Opu Hasnat

আজ ১৪ জুলাই রবিবার ২০২৪,

অটোরিকশাচালক হত্যা মামলায় ৩ জনের মৃত্যুদন্ড কুমিল্লা

অটোরিকশাচালক হত্যা মামলায় ৩ জনের মৃত্যুদন্ড

কুমিল্লায় সিএনজি অটোরিকশাচালককে হত্যার দায়ে তিন জনকে মৃত্যুদন্ড দিয়েছেন আদালত। বুধবার  অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের (চতুর্থ) বিচারক মো. জাহাঙ্গীর হোসেন এ রায় দেন।

দন্ডপ্রাপ্তরা হলো বুড়িচং উপজেলার কোরপাই গ্রামের সেলিম মিয়ার ছেলে মো. সুমন মিয়া (২৬), মৃত আলম মিয়ার ছেলে মো. শিহাব মিয়া (২০) এবং একই উপজেলার জয়কামতা গ্রামের মৃত আমীর হোসেনের ছেলে মো. সোহেল মিয়া (২৮)। একই ঘটনায় উপজেলার মৃত আবুল কাশেমের ছেলে আবুল বাশারকে (৩৮) সাত বছরের সশ্রম কারাদন্ড দিয়েছেন বিচারক। রায় ঘোষণার সময় সুমন মিয়া, সোহেল মিয়া ও আবুল বাশার আদালতে উপস্থিত ছিল। অপর আসামি শিহাব মিয়া ছিল অনুপস্থিত।

মামলার বিবরণ থেকে জানা যায়, ২০১৪ সালের ১৭ অক্টোবর বিকালে নাজমুল হাসান অটোরিকশা নিয়ে বাড়ি থেকে বের হয়ে নিখোঁজ হন। অনেক খোঁজাখুঁজির পর স্বজনরা জানতে পারেন কোরপাই গ্রামে নাজমুলকে গলা কেটে হত্যা করে অটোরিকশা ছিনতাই করা হয়েছে। এ ঘটনায় নাজমুলের বাবা চান্দিনা উপজেলার মধ্যমতলা গ্রামের আবদুর রব বাদী হয়ে সুমনসহ তিন জনকে আসামি করে বুড়িচং থানায় হত্যা মামলা করেন। পরে সুমন ও বাশারকে গ্রেফতার করে আদালতে হাজির করলে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয়। স্বীকারোক্তি অনুযায়ী সুমন, শিহাব, সোহেল ও বাশারের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা। সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় সুমন, শিহাব ও মো. সোহেলকে মৃত্যুদন্ড এবং বাশারকে সাত বছরের সশ্রম কারাদন্ড দেন বিচারক। পাশাপাশি তাদের ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা অনাদায়ে আরও ছয় মাসের কারাদন্ড দেওয়া হয়।

রায়ে সন্তোষ প্রকাশ করে আদালতের সহকারী সরকারি কৌঁসুলি (এপিপি) মো. জাকির হোসেন বলেন, ‘আমরা আশা করছি, উচ্চ আদালতেও এই রায় বহাল থাকবে।’

তবে আসামিপক্ষের আইনজীবী মো. মাহবুবুর রহমান বলেন, ‘রায়ের কপি হাতে পেলে উচ্চ আদালতে আপিল করবো।’