Opu Hasnat

আজ ২১ এপ্রিল রবিবার ২০২৪,

রবীন্দ্রনাথের গান আর লোকগান আমার মুক্তির জায়গা : পোখরাজ চক্রবর্তী বিনোদনসাক্ষাৎকার

রবীন্দ্রনাথের গান আর লোকগান আমার মুক্তির জায়গা : পোখরাজ চক্রবর্তী

দর্শকনন্দিত সংগীতশিল্পী পোখরাজ চক্রবর্তী। সম্প্রতি তিনি মুখোমুখি হয়েছেন বাংলাদশের পাঠকপ্রিয় ও অত্যন্ত তথ্যসমৃদ্ধ অনলাইন নিউজ পোর্টাল ‘টাইমটাচ নিউজ ডটকম’ এর সঙ্গে। বাংলাদেশ থেকে তার কথা জানাচ্ছেন সাংবাদিক ফয়সাল হাবিব সানি। 

টাইমটাচ নিউজ: কেমন আছেন? 

পোখরাজ চক্রবর্তী: ভালো আছি। ভালো-মন্দ মিলিয়েই তো জীবন। ভালো থাকার চেষ্টা করে চলছি প্রতিনিয়ত। 

টাইমটাচ নিউজ: বাংলা সংস্কৃতিতে সংগীতের অবদানকে কীভাবে দেখেন? 

পোখরাজ চক্রবর্তী: বাংলা এবং বাঙালি সংস্কৃতিতে সংগীতের অবদান তো শুরু হয়েছে সেই দশম শতাব্দী থেকে অর্থাৎ চর্যাপদের সময় থেকে। তারপর কীর্তন, বাউল, বাংলা লোকগান এবং যেই স্বর্ণযুগ বাংলা সংস্কৃতির উপর দিয়ে এসেছে আমার মনে হয়, বাংলা সংস্কৃতিকে একটা বৃহৎ অংশে সমৃদ্ধ করেছে বাংলা গান। বাংলা গান ছাড়া বাংলা সংস্কৃতির প্রায় অনেকখানি অংশ অসম্পূর্ণ। সেইটা সেই শুরু থেকে এই মুহূর্ত পর্যন্ত চিরন্তন সত্য। 

টাইমটাচ নিউজ: শৈশব থেকেই কী ভাবতেন বড়ো হয়ে সংগীতশিল্পী হবেন? আর সংগীতশিল্পী না হলে জীবনে কী হতে চাইতেন? 

পোখরাজ চক্রবর্তী: আমি দুটি বিষয়-ই ছোটবেলা থেকে ভেবে এসেছি। প্রথমত গানকে খুব ভালোবাসি, গানকে যাপন করতে পছন্দ করি। একই সাথে আমি অধ্যাপনাও করি এবং গবেষণাও করি। এই দুটি বিষয় খুবই ওতপ্রোতভাবে আমার জীবনের সঙ্গে জড়িত অর্থাৎ লেখাপড়া এবং গান-বাজনা। দুটিকেই একসঙ্গে নিয়ে চলার চেষ্টা করছি। 

টাইমটাচ নিউজ: আপনার নতুন কোন গান রিলিজের অপেক্ষায় রয়েছে? মূলত, বর্তমানে সংগীত নিয়ে আপনার ব্যস্ততা সম্পর্কে বলুন? 

পোখরাজ চক্রবর্তী: এ বছরে আমার বেশ কিছু নতুন গানের পরিকল্পনা রয়েছে। ধীরে ধীরে সেইটার প্ল্যানিং হচ্ছে। দেখা যাক, ক্রমশ প্রকাশ হোক৷ 

টাইমটাচ নিউজ: ভারতের বাংলা ভাষাভাষী মানুষ ছাড়াও পার্শ্ববর্তী দেশ বাংলাদেশ থেকেও তো ভালোবাসা পেয়েছেন এবং এখনও পাচ্ছেন। বাংলাদেশের মানুষের ভালোবাসায় নিজেকে কতটা সার্থক মনে করেন? 

পোখরাজ চক্রবর্তী: বাংলাদেশ আমার প্রাণের জায়গা, কেননা আমার শেকড়টা হচ্ছে ময়মনসিংহ। ফলে বাংলাদেশের মানুষের কাছ থেকে বাংলা গানের শিল্পী হিসেবে ভালোবাসার যে প্রাপ্তি সেইটা একটা অন্যরকম অদ্ভুত ভালোলাগার অনুভূতি দেয়। আমার মনে হয় না যে, আমি এখনও সেই পর্যায়ে নিজেকে নিয়ে গেছি যেখানে বাংলাদেশের প্রায় অনেক মানুষ আমার গান শুনেছেন কিংবা আমার নাম জেনেছেন৷ তবুও যেই অল্পসংখ্যক মানুষও আমার গানকে ভালোবেসেছেন বা আমায় উৎসাহ যুগিয়েছেন তার জন্য আমি অনেক অনেক বেশি কৃতজ্ঞ তাদের নিকট। 

টাইমটাচ নিউজ: বাংলাদেশে কী পছন্দের কোনো শিল্পী রয়েছে আপনার বা বাংলাদেশে কার গান শুনতে বেশি ভালোবাসেন? 

পোখরাজ চক্রবর্তী: বাংলাদেশে পছন্দের শিল্পীর তালিকা বলে শেষ করা যাবে না৷ এই মুহূর্তে দাঁড়িয়ে  রবীন্দ্রনাথের গানের শিল্পী হোক, অরিজিনাল'স গানের শিল্পী হোক কিংবা বাংলা লোকগানের শিল্পী হোক, যাই হোক না কেন অসংখ্য শিল্পী আমার পছন্দের তালিকায় রয়েছে। 

টাইমটাচ নিউজ: সংগীত নিয়ে আপনার ভবিষ্যত পরিকল্পনা সম্পর্কে জানতে ইচ্ছুক? 

পোখরাজ চক্রবর্তী: গান-বাজনা নিয়ে অনেক কিছুই পরিকল্পনা রয়েছে। এইটুকু বলতে পারি যে, আগামী দিনে কতটা সফল সংগীতশিল্পী হবো সেইটা আমি জানি না; তবে এই যে সংগীত সাধনাকে প্রতিষ্ঠা করার জন্য একজন শিক্ষার্থী হিসেবে সংগীতকে সময় দিয়ে যাব। বাকিটুকু সৃষ্টিকর্তার হাতে, ভবিষ্যতের হাতে। 

টাইমটাচ নিউজ: যদি প্রশ্ন করি, আপনার নিজের গাওয়া কোন গান আপনার ক্যারিয়ারের টার্নিং পয়েন্ট মনে করেন? তাহলে কী উত্তর দেবেন? 

পোখরাজ চক্রবর্তী: আমার মনে হয় না এখনও পর্যন্ত আমি এমন কোনো গান গেয়েছি যেইটা আমার ক্যারিয়ারের টার্নিং পয়েন্ট হতে পারে। তবে হ্যাঁ, যেই গানগুলো আমার এসেছে সেইগুলো সবটায় আমি ভালোবেসে গেয়েছি। শ্রোতা বন্ধুদের ভালোবাসাও পেয়েছি৷ বাকিটা দেখা যাক কী হয়! 

টাইমটাচ নিউজ: সংগীত জীবনে আপনার গুরু শ্রীমতী ইমন চক্রবর্তী। আপনার পথচলায় তার অসামান্য ভূমিকার কথা সংক্ষেপে জানতে চাই?  

পোখরাজ চক্রবর্তী: আমার সংগীত জীবনের পথচলায় যদি বিন্দুমাত্রও ভালো কিছু হয়ে থাকে তার সবটুকুই আমার গুরুর অবদান বলে আমি মনে করি। আগামী দিনেও তাঁর আশীর্বাদই আমার চলার পথের পাথেয় হবে। এইটুকু বলতে পারি, আমি বিশ্বাস করি যে আমার জীবনের যা কিছু ইতিবাচক দিক সবটায় তাঁর আশীর্বাদের ফল ও তাঁর দ্বারাই উৎসাহিত হয়। 

টাইমটাচ নিউজ: ‘একদিন বাংলা সংগীত সমগ্র বিশ্বে রাজত্ব করবে'। আপনার কাছে কী কথাটিকে যথার্থ মনে হয়? 

পোখরাজ চক্রবর্তী: বাংলা সংগীত বিশ্ব সংগীতের দরবারে এর আগেও গিয়েছে। সব ধরণের গানকেই আমি সম্মান দিতে চাই। বাংলা সংগীত বিশ্বের দরবারে তো সবসময়-ই মর্যাদা পেয়ে এসেছে। আমি জানি, অদূর ভবিষ্যতেও বাংলা গান বিশ্ব সংগীতের তালিকায় সেই আসনেই মর্যাদা পাবে৷  

টাইমটাচ নিউজ: শ্রোতারা তো আপনার কাছ থেকে মূলত রবীন্দ্রাংগীত ও বাংলা লোকগান শুনে আসছেন৷ আপনি কী তবে রবীন্দ্রসংগীত এবং বাংলা লোকগানের মধ্যেই আবদ্ধ থাকতে চাচ্ছেন? 

পোখরাজ চক্রবর্তী: রবীন্দ্রনাথের গান আমার বেঁচে থাকার রসদ। একই সঙ্গে বাংলা লোকগানের প্রতিও ভালোবাসাটা ঠিক ততখানি। আমার মনে হয় না রবীন্দ্রনাথের গান আর বাংলা লোকগানের মধ্যে আমি আবদ্ধ আছি। আমার মনে হয়, দুটিই আমার মুক্তির জায়গা। তাই নিজের গান হিসেবে শ্রোতাবন্ধুদেরকে এই দুই জনরার গানই শোনাতে চাই। কিন্তু অবশ্যই বাংলা অরিজিনাল'স গান যদি কোনোদিন কেউ আমার জন্য তৈরি করেন, আমাকে যোগ্য মনে করেন তাহলে অবশ্যই আমি অরিজিনাল'স গান গাইব। সেই অপেক্ষায় রইলাম।

টাইমটাচ নিউজ: আমাদের সঙ্গে সময় অতিবাহিত করার জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ। ভালো থাকবেন আর নিজের প্রতিভার ঔজ্জ্বল্যে স্বমহিমায় জীবনকে গৌরবান্বিত করবেন প্রত্যাশা করি। বাংলাদেশ থেকে আপনাকে সাধুবাদ। 

পোখরাজ চক্রবর্তী: আপনাকেও অনেক ধন্যবাদ এবং ‘টাইমটাচ নিউজ ডটকম’ এর সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতিই বিশেষ কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করছি। বস্তুনিষ্ঠ ও সত্য সংবাদ পরিবেশনের মধ্য দিয়ে আরও বহুদূর এগিয়ে যাক বাংলাদেশের প্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল ‘টাইমটাচ নিউজ ডটকম’।