Opu Hasnat

আজ ১৫ জুলাই সোমবার ২০২৪,

টেকসই আগামীর জন্য কোমলমতি শিক্ষার্থীদের প্রতিশ্রুতি

ভালোবাসা দিবসে প্রকৃতির ভালোবাসায় সিক্ত শিক্ষার্থীরা শিক্ষা

ভালোবাসা দিবসে প্রকৃতির ভালোবাসায় সিক্ত শিক্ষার্থীরা

সাধারণত পছন্দের মানুষের সাথেই ভালোবাসা দিবস উদযাপন করেন সবাই। তবে, এবার অন্যরকমভাবে, ভিন্ন বার্তায় প্রকৃতির সাথে ভালোবাসা দিবস উদযাপন করেছে শিক্ষার্থীরা। ‘লাভ অব নেচার’ প্রতিপাদ্যে গৃহীত অনন্য এই উদ্যোগে নিউ হরাইজন ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের শিক্ষার্থীরা ফুলের চারা রোপণ ও বিভিন্ন জিনিসের পুনর্ব্যবহারসহ বিভিন্ন কর্মসূচি পালনের মধ্য দিয়ে পরিবেশবান্ধব উপায়ে ভালোবাসা দিবস উদযাপন করে। 

মানুষ ছাড়াও আর সবার মাঝে ভালোবাসা ও স্নেহ ছড়িয়ে দেয়ার ধারণা থেকে উজ্জীবিত স্কুল শিক্ষার্থীরা পরিবেশ রক্ষায় উদ্বুদ্ধ হয়ে ৪৫ মিনিটের বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি পালন করে, এর মাধ্যমে পরিবেশের প্রতি তাদের প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করে তারা।  এ সময় সকল শিক্ষার্থী পুনর্ব্যবহারযোগ্য পাত্রে ৬০টি ফুলগাছ রোপণ করে। সুস্থভাবে গাছের বেড়ে ওঠা নিশ্চিত করতে পাত্রে পর্যাপ্ত পানি নিষ্কাশন ও শিকড় ছড়িয়ে যাওয়ার জায়গা রয়েছে। এই পাত্রগুলো খুব সহজেই এক জায়গা থেকে আরেক জায়গায় সরিয়ে নেয়া যাবে; ফলে, গাছের জন্য প্রয়োজনীয় আলো-বাতাসও নিশ্চিত করা যাবে। কেবল আশপাশকে সুন্দর করে তোলাই এই উদ্যোগের উদ্দেশ্য নয়। বরং, এর মাধ্যমে কোমলমতি শিশুদের মাঝে বৃক্ষরোপণ ও পুনর্ব্যবহারের গুরুত্ব এবং একইসাথে তাদের উদ্যমকে অর্থপূর্ণ কাজে ব্যবহারের উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়। 

এরপর মনমাতানো নানান কাজের মধ্য দিয়ে দিনটি পালন করা হয়। শুরুতেই সব শিশুর জন্য ভালোবাসার গল্প উপস্থাপন করেন স্কুলের অধ্যক্ষ ক্রিস্টাল জাউগ। এরপর গ্রেড ৩ এর শিক্ষার্থীরা তাদের সায়েন্স ক্লাসে বসে ‘সুগার কুকিজ’ তৈরি করে তা সব শিক্ষার্থীর মাঝে বিলিয়ে দেয়। এরপর থাকে ‘বাগ হান্ট,’ যেখানে স্কুল জুড়ে লুকিয়ে থাকা ‘হ্যান্ডমেইড লাভ বাগ’ খুঁজে বের করে এবং সবাই একটি করে বাগ বাসায় নিয়ে যায়। এছাড়াও, সকল শিক্ষার্থী গ্রেড ৩ এর শিক্ষার্থীদের হাতে বানানো ‘হার্ট মনস্টার’ পায়। সমবয়সীদের মাঝে ভালোবাসা ছড়িয়ে দেয়ার অংশ হিসেবে কানাডার ব্রিটিশ কলম্বিয়ার একই ক্লাসের শিক্ষার্থীদের সাথে ভালোবাসা দিবসের শুভেচ্ছা বিনিময় করে কিন্ডারগার্টেন ও গ্রেড ১ এর শিক্ষার্থীরা। সবশেষে, সকল শিক্ষার্থীকে ভালোবাসার এমন নিদর্শন হিসেবে হাতে বানানো ভ্যালেন্টাইন কার্ড উপহার দেন অধ্যক্ষ ক্রিস্টাল জাউগ। অধ্যক্ষের কাছ থেকে উপহার হিসবে পাওয়া এ কার্ডগুলো বাসায় নিয়ে যায় শিক্ষার্থীরা।  

এ বিষয়ে নিউ হরাইজন কানাডিয়ান ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের অধ্যক্ষ ক্রিস্টাল জাউগ বলেন, “আমাদের শিশুদের পৃথিবী সম্পর্কে আরও বেশি সচেতন করে তুলতেই এবারের ভ্যালেন্টাইন ডে উদযাপনে প্রকৃতির প্রতি ভালোবাসার ওপর গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে। টেকসই আগামী নিশ্চিত করতে তাদের সরাসরি পরিবেশ সংরক্ষণ কার্যক্রমে যুক্ত করাই ছিল এই আয়োজনের লক্ষ্য। পরিবেশের সুরক্ষায় আমাদের শিক্ষার্থীদের এমন স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণ দেখে আমরা উচ্ছ্বসিত- পরিবেশ রক্ষাকে তারা নিজেদের দায়িত্ব মনে করে। এ ধরনের মহৎ প্রচেষ্টায় সহায়তা করতে পেরে আমরা সত্যিই গর্বিত।”

বর্জ্য হ্রাসসহ এ উদ্যোগের মাধ্যমে কোমলমতি শিশুদের মাঝে পুনর্ব্যবহারের গুরুত্ব ও এর সুবিধাসমূহ তুলে ধরা হয়। এবারের ভালোবাসা দিবসে পৃথিবী ও আশপাশের সকলের মাঝে ভালোবাসা ছড়িয়ে দিবে সবাই, এমনটাই নিউ হরাইজন কানাডিয়ান ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের আশাবাদ।