Opu Hasnat

আজ ১ মার্চ শুক্রবার ২০২৪,

অনুপ্রেরণাদায়ী ‘লুমিয়ের’ দের নিয়ে গ্রামীণফোনের টক শো তথ্য ও প্রযুক্তি

অনুপ্রেরণাদায়ী ‘লুমিয়ের’ দের নিয়ে গ্রামীণফোনের টক শো

একজন ‘লুমিয়ের’ কি করেন - তারা আশার বার্তা নিয়ে আসেন এবং বিজয়ের আশ্বাস জাগান। এই ভাবনা থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে, ক্লাব ‘লুমিয়ের’, ০৪ ডিসেম্বর, গ্রামীণফোনের লিংকডইন, ফেসবুক আর ইউটিউবে নিয়ে আসছে এর নতুন শো ‘লুমিয়ের’, যা দর্শকদের অভিজ্ঞতাকে নতুন মাত্রা দিবে। প্রাণবন্ত উপস্থিতি দিয়ে অনুষ্ঠানের প্রথম পর্বে অতিথি হিসেবে থাকবেন স্বনামধন্য করপোরেট ব্যক্তিত্ব ও আলোকিতজন – রুবাবা দৌলা।
নিজেদের বিশ্বস্ত ও গুরুত্বপূর্ণ গ্রাহকদের অভিজ্ঞতার মানকে আরো উন্নত করার লক্ষ্যে গত বছর কার্যক্রম শুরু করে গ্রামীণফোনের ক্লাব লুমিয়ের। ব্র্যান্ড হিসেবে গ্রামীণফোনের প্রতিশ্রুতিকে অক্ষুণ্ণ রেখে দুর্দান্ত সব আয়োজনের মাধ্যমে গ্রাহকদের মন জয় করে নেয়ার পাশাপাশি মানসম্পন্ন সেবা ও উদ্ভাবনের সর্বোচ্চ মান নিশ্চিতের মাধ্যমে গ্রাহকদের জন্য চমৎকার সব মুহুর্ত ও স্মরণীয় স্মৃতি তৈরি করে লুমিয়ের। এর ধারাবাহিকতায়, গ্রামীণফোনের এ যাবৎ সাফল্যের অগ্রযাত্রায় বিভিন্ন সময়ে অবদান রাখা বিশেষ ব্যক্তিত্বদের অংশগ্রহণে তাদের সাথে খোলামেলা কথোপকথন নিয়ে এই টক শো সাজানো হয়েছে। সমাজের অনন্য অনুপ্রেরণা এই আলোকিত ব্যক্তিরা অনুষ্ঠানে তাদের সাফল্য, প্রত্যাশা ও এর সাথে জড়িত বিশেষ স্মৃতিগুলো তুলে ধরবেন। শ্রেষ্ঠত্বের শিখরে অবস্থানকারী এই ‘লুমিয়ের’দের গল্প শুনে দর্শকরাও নিজেদের সাফল্যের পথ গড়ে তুলতে উদ্বুদ্ধ হবেন, এটিই ক্লাব লুমিয়ের -এর প্রত্যাশা।

টেলকো ব্র্যান্ড হিসেবে ইন্ডাস্ট্রিতে প্রথমবারের মতো এমন একটি আয়োজন নিয়ে এসেছে গ্রামীণফোনের ক্লাব লুমিয়ের। সমাজে সাফল্য ও আশার আলো ছড়িয়ে দেয়া ব্যক্তিত্বদের সবার আরো কাছাকাছি নিয়ে আসার প্রয়াসে ও যুবসমাজের ক্ষমতায়নে এটি গ্রামীণফোনের নিরলস প্রচেষ্টার অনন্য উদাহরণ। তাদের অবদানগুলো এক দিকে যেমন বাংলাদেশ ও দেশের গল্পকে বিশ্বের মানচিত্রে বিশেষ পরিচিতি পেতে সাহায্য করছে, পাশাপাশি প্রেরণার উৎস হিসেবেও তাদেরকে সুপ্রতিষ্ঠিত করে তুলছে। লুমিয়ের -এর প্রতিটি পর্বে এমন বিশেষ অতিথিরা যুক্ত হবেন, যারা নিজেদের কাজের ক্ষেত্রে অভাবনীয় সাফল্য অর্জন করেছেন এবং ও নিজ নিজ খাতে উল্লেখযোগ্য অবদান রেখেছেন। এবং তাদের গল্প নিঃসন্দেহে দর্শকদের অনুপ্রাণিত করবে। ক্যারিয়ারে সাফল্যের গল্পের পাশাপাশি সম্মানিত অতিথিদের ব্যক্তিগত জীবনের বিভিন্ন গল্পও টক শো’তে তুলে ধরা হবে। যদিও পেশাদার অর্জনগুলি নিঃসন্দেহে গুরুত্বপূর্ণ, এই সিরিজের লক্ষ্য এই ব্যতিক্রমী ব্যক্তিদের মানবিক দিকটি প্রদর্শন করা। তাদের সাফল্যে অবদান রাখা তাদের স্বভাবজাত বৈশিষ্ট্য ও মূল্যবোধগুলোকে তুলে ধরে, এর মাধ্যমে দর্শকরা যেন নিজেদের সম্ভাবনার বাস্তবায়ন ঘটাতে পারেন – তা-ই ক্লাব লুমিয়ের এর লক্ষ্য।

বর্তমানের সম্ভাবনাকে পুঁজি করে যেকোনো কাজকে অর্থবহ করে তোলা ও স্মরণীয় স্মৃতি তৈরির গুরুত্ব বোঝে ক্লাব লুমিয়ের। জীবন ও অর্জনের অনুপ্রেরণামূলক গল্প নিয়ে কথা বলতে গিয়ে গ্রামীণফোনের চিফ মার্কেটিং অফিসার মোহাম্মদ সাজ্জাদ হাসিব বলেন, “মানুষের অন্তর্নিহিত সম্ভাবনায় পূর্ণ আস্থা রাখে গ্রামীণফোন। মানুষের ভেতরের শক্তিই তাকে আলোকিত আর অনুকরণীয় করে তোলে। এমন আলোকিত আর অনুকরণীয় কিছু মানুষদের সামনে নিয়ে আসা ও সকলের কাছাকাছি নিয়ে যাওয়াই ক্লাব লুমিয়ের -এর লক্ষ্য। এবারের সিরিজে আমরা আমন্ত্রিত অতিথিদের এক নতুন চোখে দেখতে পাব, তাদের শক্তিকে চিনতে পারব, আর দর্শকদের সাথে সেরা সব মুহুর্ত উপভোগ করতে পারব।”

আয়োজনে অংশগ্রহণকারীরা প্রত্যেকে একেকজন নক্ষত্রের মত, যারা নিজেদের কাজের মাধ্যমে নিজ নিজ ক্ষেত্রে অনন্য উদাহরণ তৈরি করেছেন। আর যাদের জীবন ও অভিজ্ঞতা থেকে শিক্ষা নেয়ার চমৎকার সুযোগ তৈরি করছে ক্লাব লুমিয়ের। এবারের আয়োজনে আমন্ত্রিত অতিথিদের মধ্যে থাকছেন বিবি রাসেল, রুবাবা দৌলা এবং কাওসার আহমেদের মত ভিন্ন ভিন্ন শিল্পখাতের প্রথিতযশা ব্যক্তিত্বগণ। অনুষ্ঠানের আলোচনায় দর্শক-শ্রোতারা এই সফল ব্যক্তিদের ব্যক্তিগত দর্শন ও জীবনবোধের অদেখা দিকগুলো খুঁজে পাবেন।

আগ্রহী দর্শকরা ক্লাব লুমিয়েরের প্রথম পর্বটি এখন https://www.youtube.com/watch?v=q9vhZGhuMKU উপভোগ করতে পারবেন। গ্রামীণফোনের জয়যাত্রাকে সফল করে তোলা এই আলোকিত মানুষদের উদযাপনে ও তাদের গল্পগুলো শোনার জন্য সকলের প্রতি আমন্ত্রণ রইল।