Opu Hasnat

আজ ১ মার্চ শুক্রবার ২০২৪,

কোয়ালকম ও আর্কসফটের সাথে অংশীদারিত্ব

সুপার-কোর টেলিফটো ইমেজিং সিস্টেমসহ জিটি৫ প্রো আনবে রিয়েলমি তথ্য ও প্রযুক্তি

সুপার-কোর টেলিফটো ইমেজিং সিস্টেমসহ জিটি৫ প্রো আনবে রিয়েলমি

চীনের শেনঝেনে ‘নিউ গ্রাউন্ডব্রেকিং শিফট ইন টেলিফটো ইমেজিং’ শীর্ষক একটি সুপার-কোর ইমেজিং কমিউনিকেশন ইভেন্টের আয়োজন করেছে তরুণদের পছন্দের স্মার্টফোন ব্র্যান্ড রিয়েলমি। কোয়ালকম ও আর্কসফটের মতো এই খাতের শীর্ষ অংশীদারদের সহযোগিতায় ব্র্যান্ডটি ইমেজ অ্যালগরিদম ও অপটিক্যাল হার্ডওয়্যার চিপ প্রসেসিং পাওয়ারে ইন-ডেপথ অপটিমাইজেশন পরিচালনা করেছে। ব্র্যান্ডটির পরবর্তী ফ্ল্যাগশিপ রিয়েলমি জিটি৫ প্রো’তে টেলিফটো ইমেজিংয়ের যুগান্তকারী পরিবর্তন হিসেবে সুপার-কোর টেলিফটো ইমেজিং সিস্টেম ব্যবহার করা হবে। 

একটি ফ্ল্যাগশিপ ক্যামেরা ফোন কতোটা দুর্দান্ত তা নির্ভর করে এর শক্তিশালী কোরের ওপর। কোয়ালকমের সহযোগিতায় সুপার-কোর ইমেজিং হেটারোজিনিয়াস কম্পিউটিং ফ্রেমওয়ার্ক নিয়ে আসতে কোয়ালকমের সাথে অংশীডারিত্ব করে রিয়েলমি, যার মাধ্যমে প্রধান ক্যামেরার ক্ষেত্রে ফ্ল্যাগশিপ চিপ ও টেলিফটো লেন্সের সর্বোচ্চ সক্ষমতা কাজে লাগানো সম্ভব হবে। 

ইনোভেটিভ ইমেজিং টেকনোলজিতে রিয়েলমি জিটি৫ প্রো’কে সমৃদ্ধ করতে আর্কসফটের সহযোগিতায় অপ্টিমাইজড সুপার-লাইট টেলিফটো ইঞ্জিন নিয়ে আসে রিয়েলমি। আইএমএক্স ৮৯০ সুপার-লাইট পেরিস্কোপ টেলিফটো লেন্সের সর্বোচ্চ সক্ষমতা ব্যবহারে রিয়েলমি জিটি৫ প্রো ইমেজিংয়ের পুরো উন্নয়ন প্রক্রিয়ার সঙ্গে সম্পৃক্ত ছিল আর্কসফট। ফলে, প্রাণবন্ত এইচডিআর ইমেজ থেকে শুরু করে আলো-ছায়ার অনবদ্য টেক্সচার তৈরির মধ্য দিয়ে ব্যবহারকারীরা এখন আরও দুর্দান্ত ছবি তোলার অভিজ্ঞতা লাভ করবেন। 

রিয়েলমি’র ‘নো লিপ, নো লঞ্চ’ থিমকে সামনে রেখে নতুন ফ্ল্যাগশিপ জিপি৫ প্রো নিজেই ডুয়েল-ইঞ্জিন ফ্ল্যাগশিপ। মোবাইল প্ল্যাটফর্মে স্ন্যাপড্রাগন ৮ জেন ৩ ফিচার ব্যবহার করার পাশাপাশি, এখন পারফরমেন্স অভিজ্ঞতা আরও বেশি সমৃদ্ধ হবে; একইসাথে এতে ইন্ডাস্ট্রি-সেরা আইএমএক্স৮৯০ সুপার-লাইট পেরিস্কোপ টেলিফটো লেন্স ব্যবহার করা হয়েছে। কোয়ালকম ও আর্কসফটের সহযোগিতায় ফোনটির ইমেজিংয়ের মূল কাঠামো নতুনভাবে গড়ে তোলা হয়েছে, ফলশ্রুতিতে, বৃদ্ধি পেয়েছে সক্ষমতা ব্যাপকভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে। ফলে এটি ‘নিউ কিং অব টেলিফটো ইমেজিং’ স্বীকৃতি অর্জন করে। 

ইমেজিং অভিজ্ঞতায় নতুন মাত্রা দিবে টেলিফটো। হাই ইমেজ কোয়ালিটি ও হাই ম্যাগনিফিকেশন নিশ্চিত করার ক্ষেত্রে পেরিস্কোপ টেলিফটো এক অনন্য সমাধান। রিয়েলমি জিটি৫ প্রো’তে প্রাইমারি ক্যামেরার সমমানের হাই স্পেসিফিকেশন নিশ্চিত করতে ইন্ডাস্ট্রির সবচেয়ে শক্তিশালী লো-লাইট টেলিফটো লেন্স আইএমএক্স ৮৯০ সুপার-লাইট পেরিস্কোপ টেলিফটো লেন্স যুক্তভাবে অপ্টিমাইজ করা হয়েছে। হার্ডওয়্যার হিসেবে সনি আইএমএক্স ৮৯০-এ সুবিশাল ১/১.৫৬ ইঞ্চি সেন্সর ব্যবহার করা হয়েছে। এতে ৩ গুণ অপটিক্যাল জুম, সুগঠিত স্ট্যাবিলাইজেশনের জন্য ওআইএস+ইআইএস, অল পিক্সেল অমনিডিরেকশনাল ফোকাস ও সর্বাধুনিক প্রযুক্তি রয়েছে। 

ফলে, সামগ্রিক ফটোসেন্সিটিভিটি ২১৫ শতাংশ পর্যন্ত বৃদ্ধি পাবে, যা কম আলোতেও অনবদ্য পারফরমেন্স নিশ্চিত করবে এবং ব্যবহারকারীকে যেকোনো সময় নিখুঁত ও ঝকঝকে ছবি তোলার সুযোগ করে দিবে। এই মুহূর্তে রিয়েলমি জিটি৫ প্রো’র আইএমএক্স ৮৯০ সুপার-লাইট পেরিস্কোপ টেলিফটো লেন্সই ইন্ডাস্ট্রির সবচেয়ে বড় ও আলোক-সংবেদনশীল টেলিফটো লেন্স। 

সাধারণভাবে ব্যবহৃত ফোকাল লেন্থে প্রাইমারি ক্যামেরার মতো ইমেজ কোয়ালিটি নিশ্চিত করার মাধ্যমে টেলিফটো লেন্সের ইমেজ কোয়ালিটি খারাপ হয়, এই ধারণা ভেঙে ফেলেছে রিয়েলমি জিটি৫ প্রো। শক্তিশালী ওআইএস+ইআইএস স্টাবিলাইজিং সিস্টেমের সমন্বয়ে ৫০ মেগাপিক্সেল আইএমএক্স ৮৯০ সুপার-লাইট পেরিস্কোপ টেলিফটো লেন্স ১২০ গুণ সুপার জুম নিশ্চিত করে। এটি এমনকি সর্বাধিক ম্যাগনিফিকেশনের ক্ষেত্রেও সর্বোচ্চ পরিচ্ছন্নতা নিশ্চিত করে এবং টেলিফটো ইমেজিং কোয়ালিটিকে নতুন মাত্রা দিবে। 

পাশাপাশি, রিয়েলমি জিটি৫ প্রো’র সুপার-কোর টেলিফটো ইমেজিং সিস্টেমে প্রথমবারের মতো টেলিফটো সেগমেন্টে ডিওএল-এইচডিআর সমর্থন করবে। এর ২*৬+১ মাল্টি-ফ্রেম সিলেকশন স্ট্র্যাটেজি এবং জিরো-ল্যাটেন্সি এইচডিআরসহ আলট্রা-হাই ডায়নামিক রেঞ্জের মাধ্যমে এটি লার্জ লাইট রেশিও’র ক্ষেত্রেও কার্যকরভাবে সিন (চারপাশ) চিহ্নিত ও অপ্টিমাইজ করতে পারবে। অর্থাৎ চোখে দেখা বিষয়গুলোই নিখুঁতভাবে সংরক্ষণ করা সম্ভব হবে।