Opu Hasnat

আজ ১৪ জুলাই রবিবার ২০২৪,

মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য সর্বোচ্চ সম্মান বয়ে এনেছেন প্রধানমন্ত্রী : শাহজাহান খান নীলফামারী

মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য সর্বোচ্চ সম্মান বয়ে এনেছেন প্রধানমন্ত্রী : শাহজাহান খান

সম্মিলিত মুক্তিযোদ্ধা কেন্দ্রীয় কমিটির আহবায়ক, সাবেক মন্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা শাহজাহান খান এমপি বলেছেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য সর্বোচ্চ সম্মান বয়ে এনেছেন। মুক্তিযোদ্ধাদের ভাতা, ব্যাংক লোন, বীর নিবাস এসব প্রধানমন্ত্রীর অবদান। আমরা সবচেয়ে সম্মান বোধ করি মৃত্যুর পর রাষ্ট্রীয় মর্যাদা। যা একজন মুক্তিযোদ্ধার জীবনে গৌরবের বিষয়।

বাংলাদেশ সড়ক ফেডারেশনের সভাপতি, সম্মিলিত মুক্তিযোদ্ধা নীলফামারী জেলা আয়োজিত মুক্তিযোদ্ধাদের সাথে মতবিনিময় সভায় ওই কথা বলেন। সোমবার (২৯ মে) দুপুরে নীলফামারীর সৈয়দপুর পৌর কমিউনিটি সেন্টারে তিনি বক্তব্য রাখছিলেন।

তিনি বলেন, জয়বাংলা শ্লোগান, এখন জাতীয় শ্লোগান, জিয়াউর রহমান ওই শ্লোগান নিষিদ্ধ করেছিলেন। শাহজাহান খান বলেন, শিগগিরই বিভাগে বিভাগে মুক্তিযোদ্ধা সমাবেশ হবে। এরপর ঢাকায় জাতীয় সমাবেশ। ওই সমাবেশে প্রধানন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রধান অতিথি গিসাবে উপস্থিত থাকবেন। 

শাহজাহান বলেন, সকল সড়ক রাস্তাঘাট ও সেতু মুক্তিযোদ্ধাদের ও শহীদের নামে নামকরণ হবে এনিয়ে আমরা কাজ করছি।

তিনি উল্লেখ করে বলেন, মার্কিন ভিসা নীতি আওয়ামী লীগের জন্য উদ্বেগের কারণ নয়। বরং যারা নির্বাচনে অন্তরায় সুষ্ঠু নির্বাচন নিয়ে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে তাদের জন্য ভীতি ওই ভিসা নীতি।

মতবিনিময় সভায় সভাপতিত্ব করেন নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা জাকির হোসেন বাবুল। অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা হিসাবে উপস্থিত ছিলেন সম্মিলিত মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কেন্দ্রীয় সদস্য সচিব বীর মুক্তিযোদ্ধা ওসমান আলী। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন নীলফামারী জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও নীলফামারী পৌর মেয়র দেওয়ান কামাল আহমেদ। 

আরও বক্তব্য রাখেন সৈয়দপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোখছেদুল মোমিন, সৈয়দপুর পৌরসভার মেয়র রাফিকা আকতার জাহান, সৈয়দপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মহসিনুল হক, বীর মুক্তিযোদ্ধা মির্জা সালাহউদ্দিন বেগ, নীলফামারী জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক ডেপুটি কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা কান্তি কুন্ডু, সাবেক সচিব বীর মুক্তিযোদ্ধা এম আমিনুল হক প্রমুখ।

আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য শাহজাহান খান বলেন, সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার ছেলে তারেক রহমান ২০০৭ সালে মার্কিন ভিসার জন্য আবেদন করেছিলেন। তখন মার্কিন কর্তৃপক্ষ বলেছিলো, তারেক রহমান একজন ভয়ংকর মানুষ। তাঁকে আমেরিকার ভিসা দেওয়া হয়নি। ৭৫ এ জাতির জনককে সপরিবারের হত্যার মধ্য দিয়ে জিয়াউর রহমান মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে হত্যা করেছিলেন। বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে ধ্বংস করতে চেয়েছিলেন। মুক্তিযোদ্ধাদের হত্যা করা হয়েছিলো।