Opu Hasnat

আজ ১৬ জুন রবিবার ২০২৪,

নগরকান্দায় ২৮ টি মোবাইল ও ৩ টি ল্যাপটপসহ গ্রেফতার ৬ ফরিদপুর

নগরকান্দায় ২৮ টি মোবাইল ও ৩ টি ল্যাপটপসহ গ্রেফতার ৬

ফরিদপুরের নগরকান্দা থানা পুলিশের একটি টিম শুক্রবার বিকালে অভিযান পরিচালনা করে মোবাইল ও ল্যাপটপ চোর চক্রের সক্রিয় ৬ সদস্যকে ২৮ টি চোরাই মোবাইল, ৩ টি ল্যাপটপ ও ৪ টি মোবাইল সফটওয়ার ডিভাইস সহ গ্রেফতার করেছে।

শনিবার (২৭ মে) দুপুর ১২ টায় নগরকান্দা থানা পুলিশের পক্ষ থেকে প্রেস নোটের মাধ্যমে জানানো হয়েছে ।

নগরকান্দা থানার এসআই মোঃ সেলিম মোল্যা সঙ্গীয় এএসআই মোঃ আজিজুল ইসলাম ও সঙ্গীয় ফোর্স সহ থানা এলাকায় বিশেষ অভিযানের সময় তালমা মোড়ে অবস্থানকালে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারেন যে, নগরকান্দা থানাধীন গজারিযা বাজারস্থ কৃষ্ণপুর রোডে আসামী সুরমান শেখ এর মোবাইল সার্ভিসিং এর দোকানে কতিপয় ব্যক্তি চোরাই মোবাইল ক্রয়- বিক্রয করার জন্য অবস্থান করছে। উক্ত সংবাদের প্রেক্ষিতে সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার নগরকান্দা সার্কেল আসাদুজ্জামান শাকিল ও নগরকান্দা থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ মিরাজ হোসেনকে অবহিত করে তাদের দিক নির্দেশনায় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ পেয়ে এসআই  সেলিম মোল্যা সঙ্গীয় অফিসার ফোর্সসহ ঘটনাস্থলে সুরমান শেখ ও রুহুল আমিন দ্বয়ের দোকানে পৌঁছে ০৬ জন লোককে গ্রেফতার করে। সুরমান শেখ ও রুহুল আমিন স্বপনের নিকট হতে ২৮ টি মোবাইল ফোন সেট, ০৩ টি ল্যাপটপ ও ০৪ টি মোবাইল সফটওয়ার ডিভাইস উদ্ধার করেন। তারা মোবাইল ফোনের কোন কাগজপত্র দেখাতে পারে না। 

নগরকান্দা থানা অফিসার ইনচার্জ মোঃ মিরাজ হোসেন বলেন ধৃত আসামীদের জিজ্ঞাসাবাদে তারা জানায় বিভিন্ন এলাকা হতে চোরদের মাধ্যমে চোরাই মোবাইল সংগ্রহপূর্বক আইএমইআই নাম্বার পরিবর্তন করিয়া বিভিন্ন মানুষের কাছে বিক্রয় করে। আসামীরা একটি সংঘবদ্ধ চোরাই মোবাইল চক্রের সক্রিয় সদস্য। তারা অভিনব কায়দায় বিভিন্ন ডিভাইস ব্যবহার করে আইএমইআই নাম্বার পরিবর্তন করে ফেলে, যার ফলে চোরাই মোবাইলের প্রকৃত মালিক সনাক্ত করা অসম্ভব হয়ে পড়ে। এ বিষয়ে নগরকান্দা থানায় মামলা হয়েছে যার নং-৩২, তারিখ- ২৬/০৫/২০২৩ইং।

গ্রেফতারকৃত মোবাইল চোর চক্রের সদস্যরা হলেন ১) সুরমান শেখ (৩৪), পিতা- শেখ পিরু, ২) রুহুল আমিন (২২), পিতা- শেখ হারুন, ৩) সুজন বিশ্বাস (২৪), পিতা-এনায়েত বিশ্বাস, সবার গ্রাম- উত্তর গোপীনাথপুর ৪) মেহেদী হাসান (১৯), পিতা-মোকসেদ প্রামানিক, বাড়ি- কৃষ্ণারডাঙ্গী ৫) শেখ শাহিন (১৯), পিতা-শেখ সামু, বাড়ি- উত্তর গোপীনাথপুর, ৬) আল আমিন শেখ (২০), পিতা- শেখ আকতার, গ্রাম- গোপালপুর, সবার থানা-নগরকান্দা, জেলা- ফরিদপুর।

উল্লেখ্য, ফরিদপুর জেলার পুলিশ সুপারের দিক নির্দেশনায় নগরকান্দা থানা সম্প্রতি বেশ কিছু চাঞ্চল্যকর ডাকাতি, খুন, চুরি মামলা উদঘাটন ও বিপুল সংখ্যক মাদকদ্রব্য উদ্ধার করতে সক্ষম হয়েছে । তাদের এই কর্মতৎপর, পেশাদারিত্বের জন্য নগরকান্দা সর্বমহলে, নগরকান্দা থানার সুনাম সমৃদ্ধি ব্যাপিত হয়েছে।