Opu Hasnat

আজ ২১ এপ্রিল রবিবার ২০২৪,

সৈয়দপুরে বাল্যবিবাহ আটকালেন ইউএনও নীলফামারী

সৈয়দপুরে বাল্যবিবাহ আটকালেন ইউএনও

নীলফামারীর সৈয়দপুরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ফয়সাল রায়হানের হস্তক্ষেপে ১০ম শ্রেণির এক শিক্ষার্থীর বাল্যবিবাহ বন্ধ হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২ জানুয়ারি) বিকেলে ওই ছাত্রীর বাড়িতে গিয়ে ওই বাল্যবিবাহ বন্ধের নির্দেশ দেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ফয়সাল রায়হান। এ সময় সাথে ছিলেন উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা নূরুননাহার শাহজাদী।

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার বিকেলে শহরের নিয়ামতপুর চামড়াগুাদাম এলাকায় ওই ছাত্রীর বাড়িতে গায়ে হলুদের অনুষ্ঠান চলছিল এবং শুক্রবার (৩ ফেব্রুয়ারি) পার্বতীপুরের জনৈক ছেলের সাথে বিয়ের সার্বিক আয়োজনের প্রস্তুতি চলছিল।

ইউএনও ফয়সাল রায়হান বলেন, ‘ওই ছাত্রীর পরিবার প্রশাসনের নজর এড়িয়ে তার বিয়ে দেয়ার চেষ্টা করে। পরে তার সহপাঠি ও স্থানীয়রা আমাকে জানান, তার বয়স ১৮-এর কম। এবং সে ছাত্রী এখনও লেখাপড়া করতে চায়। তারা বিয়ে বন্ধের অনুরোধ করেন। 

তিনি আরও বলেন, ‘পরে আমি ওই বাড়িতে গিয়ে  অভিভাবকদের সঙ্গে আলাপ করে তাদের বিয়ে বন্ধ করার নির্দেশ দেয়।

মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা নুরুননাহার শাহজাদী বলেন, ‘প্রাপ্তবয়স্ক হওয়ার পর বিয়ে দেয়ার জন্য ওই ছাত্রীর অভিভাবককে পরামর্শ দিয়েছি। এবং ছাত্রীর অভিভাবকদের মুচলেকা নেয়া হয়, ১৮ বছর না হওয়া পর্যন্ত ওই স্কুলছাত্রীর বিয়ে না দেয়ার। পরে ছাত্রী প্রাপ্ত বয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে দিতে পারবে না মর্মে মুচলেকা দিয়ে তাদের ছেড়ে দেয়া হয়। ওই ছাত্রী শহরের একটি বিদ্যালয়ের এবার এসএসসি পরীক্ষার্থী।