Opu Hasnat

আজ ৩০ নভেম্বর বুধবার ২০২২,

রাজবাড়ীতে নদী শাসনের দাবীতে দৌলতদিয়া ঘাটে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ রাজবাড়ী

রাজবাড়ীতে নদী শাসনের দাবীতে দৌলতদিয়া ঘাটে  মানববন্ধন ও বিক্ষোভ

হঠাৎ করে পদ্মা নদীর পানি বৃদ্ধির ফলে রাজবাড়ী জেলার তিনটি পয়েন্টে নদী ভাঙ্গন দেখা দিয়েছে। এরই মধ্যে ভাঙ্গনের কবলে পরে বন্ধ হয়েছে দৌলতদিয়ার ৫ নম্বর ফেরি ঘাট। ভাঙ্গন দেখা দিয়েছে গোয়ালন্দ উপজেলার দেবোগ্রাম ইউনিয়নের কাওয়াজানি ও দৌলতদিয়া ইউনিয়নের নতুন পাড়া এলাকায়ও। ভাঙ্গন রোধে জিও ব্যাগ ফেলছে বিআইডব্লিটিএ কর্তৃপক্ষ। এবার ভাঙ্গন রোধে জিও ব্যাগ বা কোন ত্রান সহায়তা নয়। নদী শাসনের দাবীতে আন্দোলনে নেমেছে দৌলতদিয়া ইউনিয়নের সর্বস্তরের জনগন।

তারই ধারাবাহিকতায় শুক্রবার (৯ সেপ্টেম্বর) বিকেলে দৌলতদিয়া ফেরিঘাটে পদ্মা নদীর পাড়ে মানববন্ধন কর্মসুচীর আয়োজন করে পদ্মা পারের সর্বস্তরের জনগন। 

বিকেল সাড়ে চারটা থেকে সাড়ে পাচটা পর্যন্ত ঘন্টাব্যাপী চলা মানববন্ধন কর্মসুচীর সভাপতিত্ব করেন রাজবাড়ী জেলা আওয়ামী মটর চালক লীগের সভাপতি তোফাজ্জেল হোসেন তপু। এ সময় গোয়ালন্দ পৌরসভার মেয়র নজরুল ইসলাম মন্ডল, গোয়ালন্দ উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ন সাধারন সম্পাদক মহম্মদ আলী মোল্লা, আতিয়ার রহমান, নজরুল ইসলাম (বড় নজরুল) বক্তৃতা করেন।

বক্তারা এ সময় বলেন, প্রতি বছর বর্ষা মৌসুমে দৌলতদিয়া ইউনিয়নে ভাঙ্গন দেখা দেয়। এতে হাজার হাজার পরিবার বসতভিটা হারা হয়ে মানবেতর জীবন যাপন করে। ভাঙ্গনের সময় তরিঘরি করে জিও ব্যাগ ফেলা হলেও সারা বছর স্থায়ী কোন সমাধান করা হয় না। তাই তারা নদী ভাঙ্গন এলাকায় স্থায়ীভাবে ব্যাবস্থা গ্রহনের জোর দাবী জানান। পরে সেখান থেকে বের করা হয় একটি বিক্ষোভ মিছিল। মিছিলটি ঢাকা খুলনা  মহাসড়কের দৌলতদিয়া জিরো পয়েন্টে গিয়ে শেষ হয়।