Opu Hasnat

আজ ৬ অক্টোবর বৃহস্পতিবার ২০২২,

ব্রেকিং নিউজ

মোরেলগঞ্জে এক ভূয়া পল্লী চিকিৎসককে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা বাগেরহাট

মোরেলগঞ্জে এক ভূয়া পল্লী চিকিৎসককে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা

বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে এক ভূয়া পল্লী চিকিৎসককে ভ্রাম্যমান আদালত ৫০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে ২ মাস জেল প্রদান করেন। শুক্রবার (১২ আগষ্ট) সকালে মোরেলগঞ্জ উপজেলার ১০৭ নং বারইখালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে অবৈধ পল্লী চিকিৎসক (বিটিএফ) এর পরিচালক মোঃ আবুবকরকে ভ্রাম্যমান আদালত এ জরিমানা করেছেন। এবং প্রতিষ্ঠানটি সিলগালা করে দেন। 

এই বিটিএফ ভূয়া প্রতিষ্ঠানটির কোন অস্তিত্ব খুঁজে পাওয়া যায়নি। সকলের চোখ ফাঁকি দিয়ে দীর্ঘ ১৫ বছর ধরে লোক ঠকানো প্রতারনার ব্যাবসা করে আসছে। ভ্রাম্যমান আদালতকে কোন প্রকার কাগজ পত্র দেখাতে পারেনি। তাই তাকে এ আইনের আওয়াতায় আনা হয়েছে।

মোবাইল কোর্টে থাকা ডাঃ আহাদ বলেন, ভূয়া কাগজ পত্র দিয় এভাবে প্রতিষ্ঠান খুলে মানুষের সাথে প্রতারনা ছাড়া আর কিছু না। তাকে সার্বিক সহোযোগীতা করেন মোরেলগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এর সেকমো শহিদুল ইসলাম। তাকে বার বার নিষেধ করা হলেও তিনি কথার কোনো কর্ণপাত না করে এভাবে প্রতিষ্ঠানটিতে সহযোগিতা করে যাচ্ছে। 

এ ব্যাপারে মোরেলগঞ্জ স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. শর্মী রায় বলেন, আমাকে অবহিত না করে কিভাবে সে উক্ত প্রতিষ্ঠানে ট্রেনিং প্রদান করেন। তা আমার জানা নেই। এই ভূয়া প্রতিষ্ঠানে ট্রেনিং পরিচালনার জন্য তাকে কারন দর্শানোর নোটিশ করা হবে। 

ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনাকারী নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ জাহাঙ্গীর আলম বলেন, উক্ত প্রতিষ্ঠানটি কোন প্রকার বৈধ প্রকার কাগজপত্র দেখাতে পারেননি। প্রতিষ্ঠানটি নিজস্ব আইডি খুলে ওয়েবসাইটে মানুষের সাথে প্রতারণা করছেন এই প্রতিষ্ঠানটি কোন অস্তিত্ব নাই। তাই তাকে মোবাইল কোটে জরিমানার আওতায় আনা হয়েছে।

এই বিভাগের অন্যান্য খবর