Opu Hasnat

আজ ৬ অক্টোবর বৃহস্পতিবার ২০২২,

ব্রেকিং নিউজ

জাতীয় পরিচয়পত্রে ভুল সংশোধনে দালাল চক্রকে লক্ষ টাকা! বাগেরহাট

জাতীয় পরিচয়পত্রে ভুল সংশোধনে দালাল চক্রকে লক্ষ টাকা!

বাগেরহাট জেলার মোরেলগঞ্জে  জাতীয় পরিচয়পত্রের ভুল সংশোধন করতে দালাল চক্রকে এক লক্ষ টাকা দিতে হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ব্যাপারে ভূক্তভুগী হারুনুর রশিদ খান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সহ বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার ৩ নং পুটিখালী ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মোঃ মাসুদ হাওলাদার জনৈক হারুন আর রশিদ খানকে তার জাতীয় পরিচয় পত্রের জন্ম তারিখ সংশোধন করার জন্য উপজেলা নির্বাচন অফিসারের কাছে নিয়ে যায়। পরবর্তীতে নিবার্চন অফিস হইতে বের হয়ে মাসুদ নির্বাচন অফিসেরর খরচ বাবদ পঞ্চাশ  হাজার টাকা দাবি করেন। তার চাহিদা মতো নগদ ৫০ হাজার টাকা  মোরেলগঞ্জ এসে বড় ব্রিজের পাশ্বের চায়ের দোকানে বসে পরিশোধ করেন। তিন দিন পর নির্বাচন অফিসার ঢাকায় যাবে কাজ করতে আরো ২০ হাজার টাকা দাবি করেন। অনুপায় হয়ে স্ত্রী'র স্বর্ন বিক্রি করিয়া ২৪ মে বিকাশের মাধ্যমে ১৫,০০০ হাজার টাকা মাসুদ মেম্বরকে পাঠিয়ে দেয়। কিছু দিন পরে বলেন কাজ হয়ে গেছে কিন্তু আরো ৩৫ হাজার টাকা লাগবে। নির্বাচন অফিসার টাকা না পেলে কার্ড ছাড়বে না। অনুপায় হয়ে মাসুদ মেম্বরের বিকাশ নাম্বরে আবারো ৩৫ হাজার টাকা দেই। সব মিলিয়ে এক লক্ষ টাকা প্রদান করা হয়।

টাকা নেওয়ার পরে সে আমার সাথে যোগাযোগ বন্ধ করে দেয়। আনেক খোঁজা-খুঁজির পরে আমার কাজ করে না দিতে পারলে টাকা ফেরৎ চাইলে আমাকে ঘোড়াতে থাকে। এক পর্যায় ভূয়া এস এম এর মাধ্যমে নির্বাচন কমিশনার ইসি বাংলাদেশ লিখিয়া মেসেজ দেয় আপনার কাজ হবেনা। যার মোবাইল নম্বর ০১৯৯৮৫৫৭৫৫৫। পরে আমি নির্বাচন অফিসে গিয়া সেই মেসেজ দেখাইলে নির্বাচন অফিসার জানায় যে এই মেসেজ আমাদের অফিসের না। আপনার কার্ডের ভুল সংশোধন হবে না।

এ ব্যাপারে অভ্যিুক্ত ইউপি সদস্য মাসুদ মেম্বর এর সাথে কথা হলে তিনি এই ঘটনার জন্য এক লক্ষ টাকার কথা স্বীকার করে বলেন আমাকে কিছু দিন সময় দেন। আমি আগামী ১০ তারিখ হারুন ভাই এর সম্পূর্ন টাকা ফেরৎ দিয়ে দিবো।

এ ব্যাপারে মোরেলগঞ্জ উপজেলা নির্বাচন অফিসার মোস্তফা কামালের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন আর্থিক লেনদেনের বিষয় কিছুই জানিনা। তবে তার জাতীয় পরিচয় পত্র সংশোধন হবে না বলে তাকে জানিয়ে দেই। মাসুদ টাকার বিরিময় কিভাবে কার্ড সংশোধন করে দিবে আমার বোধগম্য নয়।

এ বিষয়ে মোরেলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ জাহাঙ্গীর আলম জানান, লিখিত অভিযোগ পেলে  তদন্ত পুর্বক অভিযুক্ত ইউপি সদস্য মাসুদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এই বিভাগের অন্যান্য খবর