Opu Hasnat

আজ ৭ জুলাই বৃহস্পতিবার ২০২২,

ব্রেকিং নিউজ

দুর্গাপুরে ভেজা ধান নিয়ে কৃষক বিপাকে নেত্রকোনা

দুর্গাপুরে ভেজা ধান নিয়ে কৃষক বিপাকে

বিগত কয়েকদিনের টানা বৃষ্টিতে ঘরে তোলা ভেজা ধান নিয়ে বিপাকে পড়েছেন নেত্রকোনা জেলার দুর্গাপুর উপজেলার কৃষকরা। এবার বোরো আবাদ বাম্পার হলেও টানা বৃষ্টিতে বাড়িতে ওঠানো ভেজা ধান নিয়ে উভয় সংকটে পড়েছেন তারা। এর ফলে ধান শুকাতে না পেরে উদ্বেগ আর উৎকণ্ঠা নিয়ে দিন পার করছেন। রোববার উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন ঘুরে এমন চিত্রই দেখাগেছে।

অন্যদিকে উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে নিম্ন এলাকা গুলো প্লাবিত হচ্ছে। মানুষের ধান শুকানোর মাঠে পানি, ক্ষেত থেকে ধান কেটে আনতে পারলেও অনেকেই শুকাতে না পেরে ধান কেটে বাড়িতে এনে স্তুপ করে রেখেছেন। বৃষ্টি কারণে মাড়াই করে নিতে পারছেন না। আবার কেউ কেউ মাড়াই দিতে পারলেও সেই ধান শুকাতে পারছেন না। ফলে ধান পঁচে যাওয়ার উপক্রম হয়েছে। অনেকেই বাধ্য হয়ে ঘরের ভেতরে সিলিং ফ্যানের বাতাস দিয়ে ধান শুকাচ্ছেন। যেসব জমির ধান এখনও কাটা হয়নি সেসব জমির ধান পানির নিচে তলিয়ে আছে। সবমিলিয়ে ধান নিয়ে চরম ভোগান্তি পোহাচ্ছে চাষিরা।

উপজেলার গাঁওকান্দিয়া  গ্রামের কৃষক মাওলানা মনজুরুল হক বলেন, ‘কয়েকদিন ধরে টানা বৃষ্টিতে ধান শোকাতে পারতেছি না, সারাদিনই বৃষ্টি হচ্ছে, আমার প্রায় একশ মণ ধান নষ্ট হতে চলছে, অনেক ধান পঁচে যাওয়ায় এখন তা গো-খাদ্যে পরিনত হয়েছে। কষ্টের ফসল এইভাবেই নষ্ট হয়ে গেলো, এবার ধান গুলো মৌশুমের শুরুতেই কেটে বাড়িতে তুলতে পারলেও শুকাতে পারিনি, এখন আবার পাহাড়ি ঢলে বাড়িতে পানি উঠছে, বাকিসব ধান গুলোর কি হবে আল্লাহ্ ই জানেন, শুধু আমার না এলাকার অনেকেরই এমন দূর্দশা।  

দুর্গাপুর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. মাহবুবুর রহমান বলেন, টানা বৃষ্টিতে ঘরে তোলা ভেজা ধান শুকাতে পারেননি অনেক কৃষকরা, আগেভাগে ধান কেটে ফেলতে পারলেও বৃষ্টির জন্য ভেজা ধান শুকাতে না পেরে নষ্ট হচ্ছে। প্রতিনিয়তই আমরা কৃষকদের অবস্থা ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানাচ্ছি।