Opu Hasnat

আজ ১৮ মে বুধবার ২০২২,

মুন্সীগঞ্জের নবনির্বাচিত সাংবাদিক ও সংস্কৃতিক ব্যক্তিদের সংবর্ধনা মুন্সিগঞ্জ

মুন্সীগঞ্জের নবনির্বাচিত সাংবাদিক ও সংস্কৃতিক ব্যক্তিদের সংবর্ধনা

মুন্সীগঞ্জ প্রেসক্লাব ও সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচনে বিজয়ী কমিটিকে সংবর্ধনা ও শুভেচ্ছা বিনিময় করেছে মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার মেয়র হাজী মোহাম্মদ ফয়সাল বিপ্লব। সোমবার (১৭ জানুয়ারি) বেলা সাড়ে ১১ টার দিকে মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার সভাকক্ষে এ সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করা হয়। পরে মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার আয়োজনে প্রেস ক্লাবের নবনির্বাচিত কমিটির সভাপতি, সাধারণ সম্পাদকসহ ১৭ জন সকলকে ক্রেস্ট ও ফুল দিয়ে সম্মাননা করা হয়।

এদিকে, এর পাশাপাশি সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি সূজন হায়দার জনি ও সাধারণ সম্পাদক সাব্বির হোসেন জাকিরসহ উপস্থিত সকল অতিথিদের ফুল দিয়ে বরণ করেন পৌর মেয়র।

এসময় স্বাগত বক্তব্য রাখেন পৌরসভার সচিব সাইদুল ইসলাম, শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন পৌরসভার কাউন্সিলর ও প্যানেল মেয়র ও সোহেল রানা রানু।

অনুষ্ঠানে মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার মেয়র হাজ্বী মোহাম্মদ ফয়সাল বিপ্লবের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন খালেদা খানম।

এছাড়াও উপস্থিত মুন্সীগঞ্জ প্রেসক্লাবের সকল প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিকস মিডিয়ার সকল সংবাদ কর্মীদের ফুলের শুভেচ্ছা জানানো হয়।

পৌর-মেয়র ফয়সাল বিপ্লব বলেন, সংস্কৃতিক হচ্ছে মন আর  সাংবাদিকতা হলো বিবেক। মন আর বিবেক ছাড়া মানুষ হতে পারেনা। মন আর বিবেকের নেতৃত্ব যারা দিবে তারা যেনো সঠিক মানুষ হিসেবে সভ্য সমাজ ও জাতি গঠনে ভুমিকা রাখে।

তিনি আরো বলেন, পলিটিশিয়ন আর লিডার এক নয়, তাদের মধ্যে বিস্তর একটা তফাদ রয়েছে। একটা পলিটিশিয়ানের ভিশন থাকে কিভাবে আমি ক্ষমতায় যাবো এবং কিভাবে আমি সমাজপতি হবো। আর লিডারের একটা ভিশন থাকে কিভাবে আমি সমাজের উন্নয়ন করব। পলিটিশিয়ান ক্ষমতা নিয়ে ভাবে আর লিডার সমাজের মানুষ নিয়ে ভাবে। তাই কখনোই পলিটিশিয়ান হতে চাইনা, সমাজের নিপীড়িত মানুষে জন্য কাজ করতে চাই।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত সাংবাদিক ও সাংস্কৃতিক কর্মীরা বলেন, দেশের অন্য জেলা গুলোতে সংবাদ ও সংস্কৃতিক কর্মীরদের সংবর্ধনার প্রথা থাকলেও মুন্সীগঞ্জে কখন দেখা যায়নি। এবারই প্রথম এমন সংবর্ধনার আয়োজন করা হয়েছে। শুভেচ্ছা, সংবর্ধনা ভালোকাজে আগ্রহ বাড়ায়।

এ সময় আরো বক্তব্য রাখেন, মুন্সীগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সভাপতি এড. শহীদ-ই-হাসান তুহিন, সাধারণ সম্পাদক এড. মু. আবুসাঈদ সোহান, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি এড. সুজন হায়দার জনি, সাধারণ সম্পাদক সাব্বির আহমেদ জাকির, এড. নাসিমা আক্তার, সদর উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান নাজমুল হাসান সোহেল, বীর মুক্তিযোদ্ধা মতিউল ইসলাম হিরু প্রমুখ।

অনুষ্ঠানটির সঞ্চালনায় ছিলেন, পৌরকর্মি ও সংস্কৃতি ব্যাক্তিত্ব হুমায়ুন ফরিদ।