Opu Hasnat

আজ ২৮ নভেম্বর রবিবার ২০২১,

সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সম্প্রীতি সমাবেশ ও শান্তি শোভাযাত্রা সুনামগঞ্জ

সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সম্প্রীতি সমাবেশ ও শান্তি শোভাযাত্রা

বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় কর্মসূচীর অংশ হিসেবে সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব নুরুল হুদা মুকুটের নিদের্শে সম্প্রীতি সমাবেশ ও শান্তি শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১১টায় সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব নুরুল হুদা মুকুটের নেতৃত্বে শহরের রমিজ বিপণীস্থ জেলা আওয়ামীলীগের কার্যালয়ের সামনে থেকে সম্প্রীতি সমাবেশ ও শান্তি শোভাযাত্রা বলে হয়ে শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে স্থানীয় ঐহিত্যবাহি যাদুঘর প্রাঙ্গণে সম্প্রীতি সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। এতে বীর মুক্তিযোদ্ধারাসহ জেলা কৃষকলীগ, শ্রমিকলীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মীরা অংশ নেন। এ সময় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব নুরুল হুদা মুকুট।

এছাড়াও বক্তব্য রাখেন সুনামগঞ্জ জেলা মুক্তিযোদ্ধা ইউনিটের কমান্ডার হাজি নুরুল মোমেন, মুক্তিযোদ্ধা সলিম উদ্দিন, বীর মুক্তিযোদ্ধা এড. আলী আমজদ, জেলা আওয়ামীলীগের আইন বিষযক সম্পাদক এড. মো. আব্দুল করিম, সাংগঠনিক সম্পাদক শংকর চন্দ্র দাস, জুনেদ আহমদ, কৃষি বিষয়ক সম্পাদক ও তাহিরপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান করুণা সিন্ধু চৌধুরী বাবুল, সদস্য অমল চৌধুরী হাবুল, জেলা শ্রমিকলীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক মো. ফজলুল হক, জেলা কৃষকলীগ নেতা যথীন্দ্র মোহন তালুকদার, জেলা যুবলীগের সিনিয়র সদস্য সবুজ কান্তি দাস, সুনামগঞ্জ পৌরসভার সাবেক ভারপ্রাপ্ত মেয়র নুরুল ইসলাম বজলু, সদর যুবলীগের সভাপতি এহসান আহমদ উজ্জল, সাংগঠনিক সম্পাদক জিল্লুর রহমান সজীব, পৌর কাউন্সিলর আবাবিল নুর, পৌর কাউন্সিলর আহসান জামিল আনাছ, জেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের নেতা ভজন পাল, পৌর যুবলীগের সিনিয়র সদস্য হাসানুজ্জামান ইস্পাহানি, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক সামিউল তাজুদ, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি দিপংঙ্কর কান্তি দে প্রমুখ।

সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নুরুল হুদা মুকুট বলেছেন, সম্প্রীতির এই বাংলাদেশ বিএনপির ইন্দনে স্বাধীনতা বিরোধী জামায়াত শিবির দেশব্যপী হিন্দু সম্প্রদায়ের বাড়িঘরে হামলা.অগ্নিসংযোগ,লুটপাঠ ও ধর্ষনের ঘটনা কোনভাবেই মেনে নেয়া যায় না। এই সমস্ত স্বাধীনতা বিরোধীদের রাজপথে প্রতিহত করতে মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের সকল শক্তিকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহবান জানান।

তিনি হুশিয়ারী উচ্চারন করে আরো বলেন, জাতির পিতার স্বাধীন বাংলায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারের শাসনামলে দেশে কোন স্বাধীনতা বিরোধী রাজাকারদের সম্প্রীতি বিনষ্ট করতে এবং সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ড বাধাঁগ্রস্থ করতে যারা পেছন থেকে ইন্দন দিচ্ছেন তাদের দাতভাঙ্গা জবাব দিতে সবাই প্রস্তত থাকার আহবান জানান। এই দেশ কোন গোষ্টি কিংবা এককভাবে কারো নয় এই দেশ ১৯৭১ সালে জাতির পিতা বঙ্গঁবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে প্রতিটি ধর্মের মানুষের অংশগ্রহনে মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে এই দেশটি অর্জন করা হয়েছে। এই দেশে প্রতিটি ধর্মের মানুষ নিরাপদে নিশ্চিন্তে তাদের ধর্মীয় আচার অনুষ্ঠান পালন করবে সেই নিশ্চয়তা বর্তমান সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিশ্চিত করেছেন তা সুরক্ষা করা প্রতিটি নাগরিকের দায়িত্ব বলে তিনি অভিমত ব্যক্ত করেন।  এই দেশে কোন স্বাধীনতা বিরোধী জাাময়াত শিবির রাজাকার আলবদরদের ঠাই হবে না বলেও তিনি তার বক্তব্যে উল্লেখ করেন।

 

এই বিভাগের অন্যান্য খবর