Opu Hasnat

আজ ২৮ নভেম্বর রবিবার ২০২১,

জাম্বুরী অন দ্যা এয়ার এবং জাম্বুরী অন দ্যা ইন্টারনেট এর উদ্বোধন সংগঠন

জাম্বুরী অন দ্যা এয়ার  এবং জাম্বুরী অন দ্যা  ইন্টারনেট এর উদ্বোধন

বিশ্ব স্কাউট স্কাউট সংস্থার আয়োজনে বিশ্বব্যাপী প্রতিবারের ন্যায় এবারো  বিশ্বব্যাপী ১৫-১৭ অক্টোবর ২১ অনুষ্ঠিত হচ্ছে জাম্বুরী অন দ্যা এয়ার (জোটা)  এবং জাম্বুরী অন দ্যা  ইন্টারনেট (জোটি)। বিশ্বব্যাপী এবার অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ৬৪তম জোটা এবং ২৫তম জোটি। 

বাংলাদেশ স্কাউটস এর স্পেশাল ইভেন্টস বিভাগের পরিচালনায় শনিবার (১৬ অক্টোবর ২১) বিকাল ৪ টায় জাতীয় স্কাউট ভবন থেকে  দেশব্যাপী জাম্বুরী অন দ্যা এয়ার  এবং জাম্বুরী অন দ্যা  ইন্টারনেট উদ্বোধন করেন, বাংলাদেশ স্কাউটস এর প্রধান জাতীয় কমিশনার ও কমিশনার দুর্নীতি দমন কমিশন ড. মোঃ মোজাম্মেল হক খান। 

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, সাবেক সিনিয়র সচিব ও কোষাধ্যক্ষ, বাংলাদেশ স্কাউটস ড. মোঃ শাহ কামাল, বাংলাদেশ প্রতিযোগিতা কমিশনের চেয়ারপার্সন ও  স্পেশাল ইভেন্টস বিষয়ক জাতীয় কমিটির সভাপতি, মোঃ মফিজুল ইসলাম, বাংলাদেশ স্কাউটস এর জাতীয় কমিশনার (প্রোগ্রাম) মোহাম্মদ আতিকুজ্জামান। 

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ স্কাউটস এর উপদেষ্টা ও সাবেক মুখ্য সচিব মোঃ আব্দুল করিম, বাংলাদেশ স্কাউটস এর সহ সভাপতি প্রফেসর নাজমা শামস।  অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন, মোঃ ফসিউল্লাহ, জাতীয় কমিশনার (স্পেশাল ইভেন্টস) বাংলাদেশ স্কাউটস ও এক্সিকিউটিভ ভাইস চেয়ারম্যান, মাইক্রোক্রেডিট রেগুলেটরী অথরিটি। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য উপস্থাপন করেন বাংলাদেশ স্কাউটস এর নির্বাহী পরিচালক আরশাদুল মুকাদ্দিস। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ স্কাউটস জাতীয় কমিশনার, উপ কমিশনার, স্কাউট এক্সিকিউটিভ ও আমন্ত্রিত স্কাউট, রোভার স্কাউট ও স্কাউটারবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। পাশাপাশি দেশের  সকল জেলা হতে  স্কাউট সদস্যরা অনলাইনের মাধ্যমে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যোগদান করে।   

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ড. মোঃ মোজাম্মেল হক খান বলেন, বর্তমান যুগে শিক্ষার্থীরা তথ্য প্রযুক্তির ক্ষেত্রে অনেক অগ্রসর। জোটা জোটিতে স্কাউটদের শারিরীক উপস্থিতি না হলেও ভার্চুয়াল সংযোগ হবে। বর্তমান প্রজন্ম অনেক সম্ভবনাময়। তিনি স্কাউটদের বর্তমান সময়ের সাথে তালমিলিয়ে চলার ও সময়পযোগি হওয়ার আহবান জানান। যাতে প্রয়োরিটি অনুযায়ী কাজ করে অধিক ফলাফল অর্জন করা যায়। 

সভাপতির ভাষণে মোঃ ফসিউল্লাহ, জাতীয় কমিশনার (স্পেশাল ইভেন্টস) বলেন, জোটা জোটিতে আমাদের স্কাউটদের অনেক কৃতিত্ব রয়েছে। তিনি জোটা জোটিতে অংশগ্রহণের মাধ্যমে স্কাউটদেরকে আরো এগিয়ে যাওয়ার আহবান জানান। ২০৪১ সনে বাংলাদেশ কে উন্নত রাষ্ট্রে পরিণত করার জন্য উন্নত মানুষ হওয়ার আহবান জানান। 

জোটা জোটি বিশ্ব স্কাউট সংস্থার সর্ববৃহৎ ডিজিটাল একটিভিটিজ। প্রতিবছর অক্টোবর মাসে বিশ্বের ২-৪ মিলিয়ন স্কাউট আধুনিক তথ্য প্রযুক্তি, ইন্টারনেট ও অ্যামেচার রেডিও এর মাধ্যমে জোটা ও জোটিতে অংশগ্রহণ করে থাকে। বাংলাদেশ স্ক্উাটস এর ১৩টি অঞ্চলের সার্বিক তত্ত্বাবধানে ১৬-১৭ অক্টোর ২১ পর্যন্ত  স্কাউট ও রোভার স্কাউট গ্রুপ, উপজেলা ও জেলায় নির্ধারিত ভেন্যুতে স্কাউটরা এই জাম্বুরীতে অংশগ্রহণ করে দেশ বিদেশের স্কাউটদের সাথে পারস্পরিক মতবিনিময়, বন্ধুত্ব ও ভাতৃত্ববোধ তৈরী, নিজ নিজ কৃষ্টি সংস্কৃতি বিনিময় সর্বোপরি তথ্য প্রযুক্তিতে দক্ষতা অর্জন করবে। বাংলাদেশে এই জাম্বুরী পরিচালনায় সহায়তা প্রদানের জন্য জেলা প্রতি একজন করে কোঅর্ডিনেটর ও টাস্কফোর্স কাজ করছেন। 

এই বিভাগের অন্যান্য খবর