Opu Hasnat

আজ ১৮ সেপ্টেম্বর শনিবার ২০২১,

ব্রেকিং নিউজ

ফরিদপুরে ডাবল মার্ডার ! ফরিদপুর

ফরিদপুরে ডাবল মার্ডার !

ফরিদপুরের সালথায় প্রতিপক্ষের আঘাতে এক বৃদ্ধ ও মধুখালীতে ভাইয়ের হাতে ভাই নিহত হয়েছে। পুলিশ আজ দুপুরে দুটি লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করেছে।

জানাযায়, ফরিদপুরের সালথা উপজেলার যদুনন্দী ইউনিয়নের যদুনন্দী বাজারে প্রতিপক্ষের হামলার স্বীকার হন গোলাম মওলা (৭৫) নামে এক বৃদ্ধ।। রবিবার রাত ৮টার দিকে উপজেলার যদুনন্দী ইউনিয়নের যদুনন্দী বাজারে এ হামলার ঘটনা ঘটে। এরপর তাকে উদ্ধার করে মুকসুদপুর হাসপাতালে নেওয়া হলে হাসপাতালে সেখানে চিকিৎসাধীন সময়ে মারা যান।  

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, যদুনন্দী বাজারে রবিবার রাত আনুমানিক ৮টার দিকে মোশারফ মোল্যার ছেলে জুয়েল মোল্যা ও আবু তালেব মোল্যা কোন নোটিশ ছাড়াই তাৎক্ষণিকভাবে কবির মোল্যাকে ঘর ছেড়ে দিতে বলে। কবির মোল্যা দুই দিনের সময় চাইলে জুৃয়েল ও আবু তালেব চড়াও হয়ে তার উপর হামলা করে। হামলার সময় কবিরের পিতা গোলাম মওলা আগাইয়া আসলে তার উপরও হামলা চালায়। এতে সে গুরুত্বর অসুস্থ্য হলে পরিবারের লোকজন তাকে মুকসুদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়সেখানে চিকিৎসাধীন সময়ে মারা যান। খবর পেয়ে সালথা থানা পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠান।  

অপরদিকে ফরিদপুরের মধুখালীতে ছোট ভাইকে নির্মমভাবে পিটিয়ে হত্যা করেছে আপন বড় ভাই। রবিবার রাতে উপজেলার জাহাপুর ইউনিয়নের দাড়িরপাড় গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত ওই যুবকের নাম সাদ্দাম শেখ (২৫)। সাদ্দাম শেখ জাহাপুর ইউনিয়নের দাড়িরপার গ্রামের মৃত আলতাফ শেখের ৫ম সন্তান। রবিবার রাতে আলতাফ শেখের চতুর্থ সন্তান আনিছ শেখ (৩৫) হঠাৎ করেই তার আপন ছোট ভাই (আলতাফ শেখের ৫ম সন্তান) সাদ্দাম শেখ (২৫) কে বাঁশের লাঠি দিয়ে পিটিয়ে হত্যা করে। তবে পরিবারের সদস্যদের দাবী আনিছ শেখ মানসিক ভারসাম্যহীন। দীর্ঘদিন যাবৎ তার চিকিৎসা চলছে। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়েছে।  

মধুখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো: শহিদুল ইসলাম বলেন, রাতেই আনিছকে আটক করা হয়েছে। তবে সে মানসিক ভারসাম্যহীন। সাদ্দামের মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। মামলার বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন।