Opu Hasnat

আজ ২৪ জুলাই শনিবার ২০২১,

মামলা করে নিরাপত্তাহীনতায় পালিয়ে বেড়াচ্ছে মাগুরা

মামলা করে নিরাপত্তাহীনতায় পালিয়ে বেড়াচ্ছে

সন্ত্রাসীদের হাতে মার খেয়ে ও গুরুতর জখম হয়ে বিচার চেয়ে মামলা করায় তাদের অত্যাচারে ও হুমকিতে জীবন ভয়ে মামলার বাদি রমা রানী বিশ্বাস ও তার পরিবারের সদস্যরা জীবন ভয়ে এখন পালিয়ে বেড়াচ্ছে। 

মাগুরা সদর উপজেলার কছুন্দি গ্রামের কমল চন্দ্র বিশ্বাসের মেয়ে রমা রানী বিশ্বাস মামলার অভিযোগে বলেছেন, কছুন্দি গ্রামের বিষ্ণু বিশ্বাসের সন্ত্রাসী ছেলে বিশ্বজিৎ বিশ্বাস দীর্ঘদিন যাবৎ রমা রানী বিশ্বাস ও তার পরিবারের সদস্যদের নানাভাবে হয়রানী করে আসছে। সে কারনে মামলার বাদী রমা রানী বিশ্বাসের মা পুষ্প রানী বিশ্বাসকে বিশ্বজিৎ ও তার দলীয় লোকজন রাস্তায় ফাঁকা পেয়ে সন্ত্রাসী বিশ্বজিৎ পুষ্প রানীকে লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে গুরুতর জখম করে হাত পা ভেঙ্গে দেয়। গুরুতর আহত অবস্থায় পুষ্প রানীকে মাগুরা হাসপাতালে ভর্তি করা   হয়। এ ঘটনায় রমা রানী বিশ্বাস বাদী হয়ে মাগুরার বিজ্ঞ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা করে। যার নাম্বার মাগুরা সি/আর- ৩৯৫/২১। আদালত পরবর্তীতে ওই মামলা থানায় রেফার করলে থানায় এজহার রুজু হয়। যার নাম্বার মাগুরা জি/আর - ১৬২/২১। বিজ্ঞ আদালত মাগুরা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে এ ঘটনার এফ.আই.আর করার নির্দেশ দেন। পরবর্তীতে মামলার আসামীরা আরও ক্ষীপ্ত হয়ে উঠে এবং আদালত থেকে মামলা প্রত্যাহার করার জন্য রমা রানী বিশ্বাস ও তার পরিবারের সদস্যদেরকে নানা ভাবে ভয়ভীতি ও হুমকি ধামকি প্রদান করে আসছে। ফলে রমা রানী বাদী হয়ে মাগুরার নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে ফৌজদারী কার্যবিধির ১০৭ ধারায় সন্ত্রাসী বিশ্বজিৎ গংদের নামে মামলা করে। বিশ্বজিৎ এলাকায় প্রভাবশালী ও সন্ত্রাসী হওয়ায় জীবন ভয়ে রমা রানী বিশ্বাস বাড়ী ছেড়ে এখন পালিয়ে বেড়াচ্ছে।  

এই বিভাগের অন্যান্য খবর