Opu Hasnat

আজ ১৬ জুন বুধবার ২০২১,

দৌলতদিয়ায় ছোট ফেরিতেও পার হচ্ছে সহস্রাধিক যাত্রী রাজবাড়ী

দৌলতদিয়ায় ছোট ফেরিতেও পার হচ্ছে সহস্রাধিক যাত্রী

নাড়ির টানে ঘরে ফেরা জনস্রোত রুখতে দেশের ব্যস্ততম দুই নৌরুটে বিজিবি মোতায়েন করা হলেও ঘরমুখি মানুষের চাপে উধাও স্বাস্থ্যবিধি। আর অনেকটাই অসহায় হয়ে পড়েছেন বিজিবিসহ অন্যান্য আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী ও সংশ্লিষ্টরা। 

জরুরী যানবাহন পারাপারে নিয়ন্ত্রিত ভাবে ছোট ফেরি চালু রাখা হলেও দু’একটি জরুরী যানবাহনের সাথে বিধি নিষেধ উপেক্ষা করে মানিক গঞ্জের পাটুরিয়া থেকে একটি একটি ছোট ইউটিলিটি ফেরিতে দৌলতদিয়া ঘাটে আসছে এক থেকে দেড় হাজার যাত্রী। সোমবার দুপুর ১২টার দিকে পাটুরিয়া ঘাট থেকে বনলতা নামের একটি ইউটিলিটি ফেরি দৌলতদিয়ার ৫ নং ফেরি ঘাটে আসে প্রায় ১২ শতাধিক যাত্রী ও মাত্র ১ টি এম্বুলেন্স নিয়ে। এ সময় যাত্রীদের সামাজিক দুরত্ব ও স্বাস্থ্যবিধি মানতে দেখা যায়ানি, আর মানার কোন সুযোগও ছিল না। এছাড়া অনেকে মুখে মাস্ক পর্যন্ত ছিলো না।

এদিকে ফেরি থেকে যাত্রীরা নেমে অতিরিক্ত ভাড়া দিয়ে মাইক্রোবাস, মাহেন্দ্রা, অটোরিক্সা, মোটর সাইকেল সহ বিভিন্ন মাধ্যমে গন্তব্যে যাচ্ছে। এতেও নাই স্বাস্থ্যবিধি। এছাড়া দৌলতদিয়ায় নদী পারের জন্য অপেক্ষমান রয়েছে কিছু যাত্রী ও শতাধিক ছোট গাড়ি।

একাধিক যাত্রী জানান, তারা ভেঙ্গে ভেঙ্গে অতিরিক্ত ভাড়া দিয়ে ঢাকা, টাঙ্গাইল সহ বিভিন্নস্থান থেকে পাটুরিয়ায় আসেন। এ সময় পথে পুলিশ বিভিন্নস্থানে নামিয়েও দেয়। পড়ে তারা একটি ফেরিতে ওঠেন । কিন্তু সেখানে ছিলো না কোন স্বাস্থ্যবিধি। একজনের সঙ্গে আরেকজন গাঁ ঘেষাঘেষি করে দাঁড়িয়ে আসতে হয়েছে। ভোগান্তির শেষ নাই। কিন্তু দৌলতদিয়া থেকে এখন কিভাবে যাবেন বুঝতে পারছেন না। মাইক্রো, মাহেন্দ্রা, অটোরিক্সা সহ বিভিন্ন বাহনে ভেঙ্গে ভেঙ্গে যেতে হবে। 

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীন নৌপরিবহনের (বিআইডব্লিউটিসি) দৌলতদিয়া কার্যালয়ের সহকারি মহাব্যবস্থাপক ফিরোজ শেখ বলেন, দিনে ফেরি বন্ধ। শুধু জরুরী পরিসেবায় বহরের ১৬টি ফেরির মধ্যে ২টি দিয়ে কিছু যানবাহন পারাপার করা হচ্ছে। তাও অ্যাম্বুলেন্স ও রোগী ছাড়া ফেরিতে উঠতে পারবেনা। তবে রাতে পণ্যবাহী পরিবহন পারাপারের জন্য সবগুলো ফেরি সচল রাখা হবে।