Opu Hasnat

আজ ১৫ মে শনিবার ২০২১,

ব্রেকিং নিউজ

ক্লাউড ইকোসিস্টেম উন্নয়নে এ বছর ১,৮৬০ কোটি টাকা বিনিয়োগ করবে হুয়াওয়ে তথ্য ও প্রযুক্তি

ক্লাউড ইকোসিস্টেম উন্নয়নে এ বছর ১,৮৬০ কোটি টাকা বিনিয়োগ করবে হুয়াওয়ে

এ বছর হুয়াওয়ে ডেভেলপার প্রোগ্রাম ২.০ -এ প্রায় ১,৮৬০ কোটি টাকা বিনিয়োগের ঘোষণা দিয়েছে বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় তথ্য ও যোগাযোগ (আইসিটি) সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান হুয়াওয়ে। হুয়াওয়ে ক্লাউড, কুনপেং ও অ্যাসেন্ডের মাধ্যমে শক্তিশালী ইকোসিস্টেম উন্নয়নে সহায়তা করবে হুয়াওয়ের এ বিনিয়োগ। 

গতকাল চীনের শেনঝেনে ইউনিভার্সিটি টাউনে অনুষ্ঠিত ২০২১ হুয়াওয়ে ডেভেলপার কনফারেন্সে (এইচডিসি.ক্লাউড ২০২১) এ ঘোষণা দেয়া হয়। তিন দিনব্যাপী এ অনুষ্ঠানে প্রবন্ধ উপস্থাপন, টেকনিক্যাল সামিট, ট্রেনিং ক্যাম্প, কোড ল্যাব, ডেভেলপার কার্নিভাল এবং শিক্ষক, মেধাবী প্রযুক্তিবিদ ও হুয়াওয়ের উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের নিয়ে বিভিন্ন ফোরাম অনুষ্ঠিত হবে। এ আয়োজনে আইসিটি শিল্পখাতের শীর্ষস্থানীয় কর্মকর্তা, শিক্ষক ও গবেষক এবং ডেভেলপার ইকোসিস্টেমের শীর্ষস্থানীয় নেতৃবৃন্দ অংশগ্রহণ করবেন এবং এআই, কম্পিউটিং ও ওপেন সোর্সের বর্তমান ট্রেন্ড নিয়ে আলোচনা করবেন।  

হুয়াওয়ের এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর রিচার্ড ইউ এবং হুয়াওয়ে ক্লাউড বিইউ অ্যান্ড কনজ্যুমার বিজনেস গ্রুপের সিইও’র মূল প্রবন্ধ উপস্থাপনার মধ্য দিয়ে এ আয়োজন শুরু হয়। ইউ বলেন, ‘২০২৫ সালের মধ্যে বিশ্বের শতভাগ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ক্লাউড প্রযুক্তি ব্যবহার করবে। ক্লাউড আইসিটি শিল্পখাতের ভবিষ্যৎ এবং ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানগুলোর ডিজিটাল রূপান্তরের মূলভিত্তি। ডেভেলপাররা এ খাতের চালিকাশক্তি। হুয়াওয়ে এর প্রযুক্তিগত উদ্ভাবন উন্মোচনে ধারাবাহিকভাবে কাজ করে যাবে, পাশাপাশি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের ক্লাউড ও ইনটেলিজেন্ট রূপান্তর ত্বরাণ্বিত করতে ডেভেলপার ও অংশীদারদের সাথে কাজ করবে।’

হুয়াওয়ে ডেভেলপার কনফারেন্স (এইচডিসি.ক্লাউড) ২০২১ -এ হুয়াওয়ে ছয়টি উদ্ভাবনী পণ্য ও সেবা উন্মোচন করে, যার মধ্যে রয়েছে হুয়াওয়ে ক্লাউড সিসিই টার্বো ক্লাউড কন্টেইনার ক্লাস্টার, ক্লাউডআইডিই ইন্টেলিজেন্ট প্রোগ্রামিং অ্যাসিসটেন্ট, গসডিবি (ওপেনগস -এর জন্য) ডাটাবেজ, ট্রাস্টেড ইন্টেলিজেন্ট কম্পিউটিং সার্ভিস (টিআইসিএস), পাংগু মডেল (বিশ্বের বৃহত্তম চীনা এনএলপি মডেল ও সিভি মডেল সহ) এবং ডাইভার্স কম্পিউটিং -এর জন্য ইন্টেলিজেন্ট সফটওয়্যার। সঠিক কার্যকারিতা ও উচ্চমান নিশ্চিত করার মাধ্যমে ডেভেলপারদের সামনের দিকে এগিয়ে যেতে সহায়তা করবে হুয়াওয়ের এ ছয়টি পণ্য।   

এ কনফারেন্সের অধীনে পেকিং ইউনিভার্সিটি ও সিনঘুয়া ইউনিভার্সিটি সহ আরও বেশ কয়েকটি স্থানে মোবাইল এজ কম্পিউটিং -এর মতো সাম্প্রতিক আলোচিত বিষয়গুলো নিয়ে আটটি সামিট অনুষ্ঠিত হয়। স্বনামধন্য নানা প্রতিষ্ঠানের প্রধান প্রযুক্তি কর্মকর্তাগণ ও সিনিয়ির আর্কিটেক্টদের অংশগ্রহণে ১৩টি গোলটেবিল আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়, যেখানে অংশগ্রহণকারীরা অ্যাপ্লিকেশন উন্নয়নে প্রযুক্তিগত ট্রেন্ড সহ এক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ নানা বিষয় নিয়ে আলোচনা করেন এবং নির্দিষ্ট মতে পৌঁছান। ডেভেলপার ও হুয়াওয়ের কর্মকর্তাদের মধ্যে ৪৫টি সভা অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠিত এ সভাগুলোয় ডেভেলপারদের ক্যারিয়ারের বিকাশ ও সক্ষমতার উন্নয়ন নিয়ে পরামর্শ দেন হুয়াওয়ের কর্মকর্তাগণ। এছাড়াও, কনফারেন্সে আইসিটি সম্পর্কিত নানা বিষয়ে ৯০টি এক্সপার্ট লেকচার এবং ৩৩টি ডেভেলপার ক্যাম্প অনুষ্ঠিত হয়।