Opu Hasnat

আজ ১৬ জুন বুধবার ২০২১,

পাইকগাছায় অজ্ঞাত ব্যাক্তির ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার খুলনা

পাইকগাছায় অজ্ঞাত ব্যাক্তির ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

পাইকগাছায় মেয়র সেলিম জাহাঙ্গীরের ঘেরে পাইকগাছা-কয়রা সড়কের পাশে গাছে ঝুলন্ত অবস্থায় অজ্ঞাত (৩৫) এক ব্যাক্তির মরদেহ উদ্ধার করেছে সিআইডি পুলিশ। 

জানা যায়, পাইকগাছা পৌরসভার মেয়র সেলিম জাহাঙ্গীরের উপজেলার লস্কর ইউনিয়নের বগুড়ার চক মৌজায় (রুমারডাংগা) পাইকগাছা কৃষি কলেজের দক্ষিণে পাইকগাছা-কয়রা সড়কের পাশে চিংড়ি মাছের ঘের রয়েছে। রোববার ভোরে তার ঘেরের কর্মচারী হাসান জোয়ার্দার মাছ মারার সময় অজ্ঞাত এক ব্যাক্তির গলায় রশি দেয়া গাছে ঝুলতে দেখে ভয়ে চেঁচিয়ে ওঠে। তারপর সব জানাজানি হলে থানা পুলিশ সংবাদ পেলে ওসি অপারেশন দেবাশীষ এর নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে যায়। বেলা ১১ টার দিকে খুলনা সিআইডি পুলিশের সাব-ইন্সপেক্টর প্রান্তষ কুমারের নেতৃত্বে একটি টিম এসে পুরা এলাকা পাইকগাছা-কয়রা সড়ক কিছুক্ষণ আটকিয়ে গাছে ঝুলে থাকা অবস্থায় লাশের ভিডিও চিত্র ধারন পূর্বক লাশ নামিয়ে সুরতহাল হাল রিপোর্ট তৈরি করেন। পরবর্তীতে লাশ ময়না তদন্তের তদন্তের জন্য খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করেন। 

এসময় উপস্থিত ছিলেন, ইউপি চেয়ারম্যান কে.এম আরিফুজ্জামান তুহিন, সাংবাদিক, এলাকার শতশত জনসাধারণ। অনেকে বলছে অপরিচিত এই লোকটি পাইকগাছা সহ বিভিন্ন জায়গায় ভবঘুরে হয়ে বেড়াতে থাকে এবং চেয়ে খেয়ে বেড়াত। তার পরিচয় কেউ বলতে পারেনি। আবার কেউ কেউ বলছে তাকে হত্যা করে গাছে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে। 

ঘেরের ম্যানেজার আঃ জলিল জানান, মৃতদেহ দেখার সাথে সাথে মেয়র সেলিম জাহাঙ্গীরকে মোবাইলে জানানো হয়েছে। তিনি ঘটনাস্থলে আসেননি, কেন আসেনি তা তিনি বলতে পারেননি। 

মেয়র সেলিম জাহাঙ্গীর জানান, ডিসি অফিসে একটি জুম মিটিং এ থাকায় আমি যেতে পারেনি। দায়িত্বপ্রাপ্ত ওসি (তদন্ত) মোল্লা খালিদ হোসেন জানান, পুলিশ বাদী হয়ে থানায় ইউডি মামলা করা হয়েছে। এস,আই আব্দুল হালিম বলেন, লাশটি ময়না তদন্তের জন্য খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।