Opu Hasnat

আজ ৩০ নভেম্বর বুধবার ২০২২,

মোরেলগঞ্জে জমিসহ বসতঘর দখলের অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন বাগেরহাট

মোরেলগঞ্জে জমিসহ বসতঘর দখলের অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন

বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জের ভাষান্দল মৌজায় আপন ছোট ভাইয়ের বসতঘরসহ ভোগ দখলীয় সম্পত্তি জবর দখলের চেষ্টা করছে বড় দুই ভাই। সম্পত্তি বাঁচাতে ছোট ভাই  মামলা  করেছেন আদালতে। মামলাও আমলে না নিয়ে বেপরোয়া  ভাইয়েরা। এ অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন করেন ভিকটিম ছোটভাই। 

শুক্রবার রাত ৯ টায় মোরেলগঞ্জ উপজেলা প্রেসক্লাব কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে লিখিত বক্তব্য পাঠ করে শোনান অভিযোগকারী উপজেলার  নিশানবাড়িয়া ইউনিয়নের  হোগলপাতি গ্রামের মৃত আ. জব্বার খানের ছোট  ছেলে হেলাল খান। 

লিখিত বক্তব্যে তিনি জানান, উপজেলার জে. এল. ১১৪ নং ভাষান্দল মৌজায় বিএসআরএস ৪৭৯ নং খতিয়ানের ১৭৪ দাগের ০.০৮২৫ একর পৈত্তিক সম্পত্তি ৪০০ বর্গফুট  আয়তনের  বসতঘর সহ ২৫৮৬  নং দলিলে গত ২০২০ সালে তার পিতা  আ. জব্বার খান তাকে মোরেলগঞ্জ  সাব রেজিস্ট্রি অফিসের মাধ্যমে হেবা রেজিস্ট্রী করে দেন। এর কিছু দিন পর তিনি মারা যান। হেবা মূলে প্রাপ্ত ওই ঘরে আমার বৃদ্ধ মা ও স্ত্রী সন্তান নিয়ে তিনি বসবাস এবং ওই সম্পত্তি ভোগ দখল করে আসছিল। কিন্তু তার পরসম্পদলোভী প্রতিবেশী সহোদর মোঃ মিজানুর রহমান খান ও ফিরোজ খান ভোগ দখলীয় এ সম্পত্তি জোর পূর্বক দখল করার অপচেষ্টার অংশ হিসেবে গত ১২ আগস্ট সকাল ১০ টার দিকে আরও কয়েকজন দাঙ্গাবাজ লোকজন নিয়ে আমি ও আমার পরিবারকে আমার বসতঘর থেকে উচ্ছেদের চেষ্টা করলে আমাদের ডাক চিৎকারে  অন্যান্য  লোকজন ছুটে আসলে তারা হুমকি দিয়ে সরে পড়ে। পরিস্থিতি  বিবেচনায় গত ১৫ আগস্ট বাগেরহাট আদালতে ১৪৪ ধারা চেয়ে মামলা করে সে । বর্তমানে মোরেলগঞ্জ  থানার মাধ্যমে মামলার নোটিশ  আসবে জেনে উক্ত  বিবাদীরা ২৩ সেপ্টেম্বর  শুক্রবার  বিকাল ৫ টার দিকে  আমার বসতঘর ও বেড়ায় হামলা চালিয়ে ভাঙচুর ও বেড়ার নেট আত্মসাত করে।

হেলাল খান আরও  জানান, আদালতে ১৪৪ ধারা জারি রয়েছে। তারপরও বিবাদীরা জমি দখলের চেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে হুমকি ধামকি দিচ্ছে। মিথ্যা মামলায় জড়ানোর চেষ্টা করা হচ্ছে।

এ ব্যাপারে ১ নং  বিবাদী মিজানুর  রহমানের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ঘর আমার, আমি আইনি প্রক্রিয়ায়  অগ্রসর হব।

থানা অফিসার ইনচার্জ  মো. সাইদুর রহমান বলেন, তদন্তপূর্বক আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।