Opu Hasnat

আজ ৩০ নভেম্বর বুধবার ২০২২,

প্রযুক্তিখাত, অ্যাকাডেমিয়া ও গবেষণা’র মধ্যে সমন্বয়ের মাধ্যমে

প্রতিভাবানদের ক্ষমতায়ন করবে অপোহ্যাক ২০২২ তথ্য ও প্রযুক্তি

প্রতিভাবানদের ক্ষমতায়ন করবে অপোহ্যাক ২০২২

অনুষ্ঠিত হচ্ছে অপোহ্যাক ২০২২। এর দুটি অফলাইন প্রাথমিক রাউন্ডের প্রথমটি গত ১৭-১৮ সেপ্টেম্বর উত্তর আমেরিকার ইয়েল বিশ্ববিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয় এবং অন্যটি অপো ইউএস গবেষণা কেন্দ্রে ২৪-২৫ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত হবে বলে আনুষ্ঠানিকভাবে জানিয়েছে কালারওএস; একইসাথে এ সময় অনলাইন প্রাথমিক রাউন্ডও চালু করা হবে। প্রতিটি প্রাথমিক রাউন্ডের শীর্ষ তিনজনকে একটি “ফাস্ট পাস” দেওয়া হবে। দু’টি প্রাথমিক রাউন্ডে সব অংশগ্রহণকারীদের স্কোর র‌্যাঙ্কিং করে, মোট ১০ জন ফাইনালিস্ট (ব্যক্তি বা দল) চূড়ান্ত রাউন্ডে ৪০ হাজার ডলার গ্র্যান্ড প্রাইজের জন্য প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে। এ অনুষ্ঠানের লক্ষ্য হলো বৈশ্বিক পণ্য উৎপাদনকারীদের উদ্ভাবনী প্রযুক্তি বিনিময় এবং সহযোগিতা করার জন্য একটি প্ল্যাটফর্ম তৈরি করা এবং মানুষের জীবন পরিবর্তনের জন্য বিভিন্ন প্রযুক্তির বাস্তবিক প্রয়োগ করা।

অপোহ্যাক ২০২২ গত ২৩ মে উদ্বোধন করা হয়; যেখানে ৫০টিরও বেশি দেশ এবং অঞ্চল থেকে আগ্রহীরা অংশ নেয়। “ইউবিকিউটাস সার্ভিসেস: ইন্টেলিজেন্স লিংকিং দ্য ওয়ার্ল্ড” প্রতিপাদ্যের এ অনুষ্ঠানে দু’টি বিষয়ের ওপর আলোকপাত করা হয় - নিরবচ্ছিন্ন ক্রস-ডিভাইস কানেকশন ও ব্যবহার-বান্ধব ইন্টেলিজেন্ট সার্ভিসেস। স্মার্ট এন্টারটেইনমেন্ট, স্মার্ট লার্নিং, স্মার্ট মোবিলিটি এবং স্মার্ট প্রোডাকশনের মতো পরিস্থিতিতে ভিজ্যুয়াল এনহান্সমেন্ট, দক্ষ অ্যালগরিদম, ইন্টিগ্রেটেড পারসেপশন ইত্যাদির সেরা সমাধান নিয়ে চিন্তাভাবনা করতে অংশগ্রহণকারীদের এ অনুষ্ঠানে উৎসাহিত করা হয়। অনলাইনে নিবন্ধন করার পরে এবং অনলাইন বা অফলাইনে প্রতিযোগিতা করার পরে, ১০ জন ফাইনালিস্ট পুরস্কারের জন্য প্রতিযোগিতায় অংশ নিবেন। 

অন্যদিকে, বিশ্বব্যাপী ডেভেলপারদের অনুপ্রাণিত করতে এবং সর্বত্র বিদ্যমান সেবার ভবিষ্যত নিয়ে আলোচনা করার জন্য তিনটি টেক গ্যারেজ কার্যক্রম অনলাইনে চালু করা হয়েছে, যার প্রতিপাদ্য ছিল যথাক্রমে “রিডিফাইন দ্য ফিউচার অব ইউবিকিউটাস ইউআই/ইউএস,” “ইনফ্লুয়েন্স অব এআই অন এইচসিআই ইন দ্য নেয়ার ফিউচার” এবং “চ্যালেঞ্জেস অ্যন্ড অপরচ্যুনিটিস অব মাল্টি-ডিভাইস কানেকশন ইন ইউবিকিউটাস সার্ভিস।” টেক গ্যারেজ বেশ কয়েকটি প্রতিষ্ঠান বা সংস্থার মনোযোগের কেন্দ্রবিন্দুতে ছিলো। সারা বিশ্বের ১০০ টিরও বেশি প্রযুক্তিপ্রেমী টেক গ্যারেজে সাইন আপ করেছে এবং প্রশ্নোত্তর সেশনে বক্তাদের সাথে অংশগ্রহণ করে।

এ অনুষ্ঠানের প্রাথমিক রাউন্ড ১৭ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত হয়। বিভিন্ন খাতের অভিজ্ঞতাসমৃদ্ধ ব্যক্তিদের নিয়ে পরামর্শদাতা ও বিচারকমন্ডলীদের প্যানেল গঠিত হয়। এদের মধ্যে ছিল লিন ঝং (ইয়েল বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার বিজ্ঞানের অধ্যাপক), রেক্স ইং (ইয়েল বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার বিজ্ঞানের সহকারী অধ্যাপক), জেন শিউ (অপো উত্তর আমেরিকার সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ারিং টেকনোলজি স্ট্র্যাট্রেজি’র প্রধান);  ইয়েভি ঝাহো (অপো উত্তর আমেরিকার প্রধান প্রকৌশলী), জিনউয়ান ঝহু (উত্তর আমেরিকার ফ্রেস ফান্ড এর প্রধান) এবং লিংজিয়াও শু (ইউবিএস ব্যাংক ডিভিশনের ইক্যুইটি ডেরিভেটিভসের প্রধান)। এ সকল অভিজ্ঞ ব্যক্তিরা অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণকারীদের নানা দিকনির্দেশনা এবং পরবর্তী ধাপে পৌঁছানোর জন্য প্রয়োজনীয় সহায়তা প্রদান করেন। 

ইন্ডাস্ট্রি-একাডেমিয়া-গবেষণা মডেলের মাধ্যমে সর্বব্যাপী সেবার সক্ষমতা বাড়ানো প্রয়োজন এবং প্রযুক্তিগুলোকে পরীক্ষাগারের বাইরে নিয়ে এসে বাস্তবিক প্রয়োগ করা দরকার। 

অপোহ্যাক ২০২২ ছাড়াও, অপো সাম্প্রতিক বছরগুলোতে বিশ্বব্যাপী প্রতিভাদের ক্ষমতায়ন, গবেষণা প্রকল্পের বাণিজ্যিকীকরণ সহজতর করতে, ব্যবহারকারীদের জন্য আরও ভাল পণ্য এবং পরিষেবা সরবরাহ করতে এবং প্রযুক্তির অগ্রগতিতে মূল ভূমিকা পালন করতে বিশ্ববিদ্যালয় এবং গবেষণা প্রতিষ্ঠানগুলোকে ব্যাপকভাবে সহযোগিতা করছে। প্যান্টানাল সিস্টেমটি ওডিসি ২০২২ এ উন্মোচিত হয়েছে। উদাহরণস্বরূপ, ওডিসি ২০২২ এই উন্মুক্ত সহযোগিতা মডেলের প্রতিফলন। 

আইওটি’র এই যুগে, কালারওএস বৈজ্ঞানিক উদ্ভাবন, প্রতিভাবানদের প্রশিক্ষণ ও এক্সটার্নাল এক্সচেঞ্জ (বাহ্যিক বিনিময়) বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় এবং গবেষণা প্রতিষ্ঠানের সাথে আরও নিবিড়ভাবে কাজ করবে এবং অত্যাধুনিক প্রযুক্তি অন্বেষণ ও গবেষণা থেকে প্রাপ্ত ফলাফলের সঠিক প্রয়োগ নিশ্চিত করতে সাহায্য করবে। পাশাপাশি ব্যবহারকারীদের কাছে আরও ভাল পণ্য এবং ইন্টেলিজেন্ট অভিজ্ঞতা নিয়ে আসার লক্ষ্যে কাজ করবে।

এই বিভাগের অন্যান্য খবর