Opu Hasnat

আজ ৩০ নভেম্বর বুধবার ২০২২,

তরুণ প্রজন্মকে শিক্ষা নিতে হবে কীভাবে গুণী অগ্রজদের সম্মান করতে হয় শিল্প ও সাহিত্য

তরুণ প্রজন্মকে শিক্ষা নিতে হবে কীভাবে গুণী অগ্রজদের সম্মান করতে হয়

বাংলাদেশ  ইতিহাস চর্চা পরিষদের আয়োজনে ভারতীয় উপমহাদেশ বিখ্যাত দার্শনিক মুসলমান কবি ও সুফী মানব কতৃক প্রথম ইংরেজি পত্রিকার সম্পাদক, ভারত গৌরব হজরত ডেপ্যুটি শাহ মোহাম্মদ বদিউল আলম (রহঃ) এর ৯২ তম ওফাত বার্ষিকী স্মরণ সভায় এ কথাগুলো বলেন আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন বহুমাত্রিক লেখক ও কবি সৈয়দা রুখসানা জামান শানু। 

তিনি আরো বলেন, কৃতীবীর, ক্ষণজন্মা এই মহাপুরুষ মাত্র ২৬’ বছর বয়সে ১৮৯২ খ্রিস্টাব্দে ভারত উপমহাদেশে ইংরেজিতে প্রথম প্রকাশিত দৈনিক পত্রিকা ‘দি মোহামেডান অবজারভার’ সম্পাদনা এবং প্রকাশনা করে তদানিন্তন মুসলিম ইতিহাসে এক গৌবরউজ্জ্বল ইতিহাস রচনা করেন। পত্রিকা সম্পাদনার পাশাপাশি তিনি ব্রিটিশ ওপনিবেশে উচ্চপদে চাকুরি করতেন। পরবর্তীতে তিনি ভারতবর্ষে ইংরেজ বিরোধী আন্দোলনে নিজেকে সম্পৃক্ত করে দেশ মাতার টানে চাকুরি ছেড়ে দিলেন। তিনি আধ্যাত্মিক সাধনার মাধ্যমে মহান রাব্বুল আলেমিনের নৈকট্য লাভে কোনো প্রকার কমতি করেননি। আর এই পার্থিব জীবনে মানুষকে আলোর পথে আনার জন্য তথা একটি সুস্থ ও ভ্রাাতৃত্বময় সমাজ তৈরির লক্ষ্যে তিনি বহুগ্রন্থ রচনা করেছেন। 

শানু আরো বলেন, সমাজ গড়ার কারিগর হিসেবে তিনি জন্মেছিলেন আমাদের এই বাংলার মাটিতে। অর্থাৎ চট্টগ্রামের বাঁশখালি উপজেলার কালীপুর গ্রামে। তাঁর জীবন ও কর্ম থেকে জানা যায়, তিনি মানুষ, মানবতা, সাংবাদিকতা, রাজনীতির বহু ধর্মগ্রন্থ প্রণয়ন ও দ্বীন ও আখেরাতের শিক্ষায় মানুষকে আলোকিত করেছিলেন। তাঁর লিখিত গ্রন্থ এখনও আমেরিকা ও ইংল্যান্ডের বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ানো হয় এবং গবেষণা চলছে। তিনি ঐতিহ্যবাহী সাতকানিয়া মির্জাখীল দরবার শরীফের মহান খলিফা ছিলেন। শাহ্ মোহাম্মদ বদিউল আলম (রহঃ) ১৯৩১ সালে ১জুন, ১৪ মহরম ১৩৫০ হিজরী তারিখে এ নশ্বরজগৎ ত্যাগ করে ওফাতপ্রাপ্ত হন। 

শানু তার বক্তব্যে আরো বলেন, এই সুফী-দার্শনিক , প্রাত-স্মরনীয় ইতিহাসখ্যাত মহামানব সম্পর্কে আমার জানার সুযোগ হয়েছিল বহুগ্রন্থ প্রণেতা, যার নিরলস প্রচেষ্টায় থাকছে ইতিহাসের মহামানবদের আগামী প্রজন্মের সামনে তুলেধরা। এই গুণী, প্রাজ্ঞজন আমাদের সজ্জন, সংগঠক, প্রাবন্ধিক, আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন ইতিহাসবিদ এবং চট্টগ্রাম ইতিহাস চর্চা  পরিষদের সভাপতি সকলের প্রিয়মুখ সোহেল মো: ফখরুদ-দীন। 

তিনি আরো বলেন আজকের সেমিনার থেকে তরুণ প্রজন্মকে শিক্ষা নিতে হবে যে কীভাবে গুণী অগ্রজদের সম্মান করতে হয়।

আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন ইতিহাসবেত্তা সোহেল মো: ফখরুদ-দীন এর সভাপতিত্বে হজরত ডেপ্যুটি শাহ মোহাম্মদ বদিউল আলম (রহঃ) এর ৯২ তম ওফাত বার্ষিকী স্মরণ সভা অনুষ্ঠিত হয় ২১ আগস্ট, ২০২২খ্রিস্টাব্দে সন্ধ্যায় রাজধানীর পুরানা পল্টন হোমিও গণস্বাস্থ্য অডিটোরিয়ামে।  প্রধান অতিথির আসন অলংকরন করেন কবি মাহমুদুল হাজান নিজামি এবং অনান্যদের মধ্যে বক্তব্য প্রদান করেন অধ্যাপক মিজানুর রহমান, কবি সৈয়দা রুখসানা জামান শানু, কবি সিরাজুল করিম, মোহাম্মদ নাজমুল হক শামীম, সৈয়দ খায়রুল আলম, মোহাম্মদ এরশাদ হোসেন খান, শিহাব রিফাত আলম, নজরুল বাঙালি, নুর মোহাম্মদ রানা, বদিউল এহেসান,এম এ আলীম, রবিউল আলম রবি, মোঃ আদিলুজ্জামান, এইচ এম হাসান মাহমুদ, মোহাম্মদ সামসুল আলম কাজল, মোহাম্মদ এনামুল হক, মোঃ সাব্বির আহম্মদ, মো নাসির হোসেন, আহম্মদ খালিদ রিদুয়ান প্রমূখ। 

সভাপতি তাঁর বক্তব্যে হজরত ডেপুটি শাহ মোহাম্মদ বদিউল আলম (রহ:) জীবন ও কর্মের বিভিন্ন দিক বিস্তরভাবে আলোকপাত করেন। এতে করে এই দার্শনিক, মরমী কবির অনেক অজানা তথ্য দর্শক শ্রোতার সামনে ওঠে আসে। তিনি বক্তব্যের এক ফাঁকে মরমী কবির ৫ম প্রজন্ম মোহাম্মদ নাজমুল হক শামীমের সাথে পরিচয় করিয়ে দেন। বক্তব্য শেষে উক্ত মঞ্চে কবিতা পাঠ করেন বিশিষ্ট ছড়াকার আতীক হেলাল, ইউসুফ রেজা, নায়লা পাইলট, হিরো মাইনুদ্দীনসহ আরো অনেকে। কবিতা পাঠ শেষে উক্ত মঞ্চে গুণীজনদের উত্তরীয় পরিয়ে সম্মননা প্রদান করা হয়। সম্মাননা প্রদানের পর উক্ত মঞ্চে নজরুল গীতি পরিবেশন করা হয়।