Opu Hasnat

আজ ২৮ নভেম্বর সোমবার ২০২২,

ফরিদপুরে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে স্ত্রীকে হত্যা, স্বামী আটক ফরিদপুর

ফরিদপুরে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে স্ত্রীকে হত্যা, স্বামী আটক

ফরিদপুর শহরের অম্বিকাপুর খাদ্য গুদাম সংলগ্ন এলাকায় নিজ ঘরে সাজেদা বেগম (৪০) নামে এক গৃহবধূকে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে হত্যা করেছেন তার স্বামী লালন মোল্লা (৪৮)। এ ঘটনায় অভিযুক্ত স্বামী লালন মোল্লাকে আটক করেছে কোতয়ালী থানা পুলিশ। ঘটনাস্থল থেকে হত্যার কাজে ব্যবহৃত একটি লোহার তৈরি ছেনি ও হাতুড়ি উদ্ধার করা হয়েছে। মঙ্গলবার (২৩ আগস্ট) ভোর রাতে এ হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটে।

ফরিদপুরের কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এম এ জলিল এর সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, অভিযুক্ত স্বামী লালন মোল্লার বাড়ি ফরিদপুরের মধুখালী উপজেলার কামারখালী এলাকায়। আর তার স্ত্রীর বাড়ি ফরিদপুর সদরের চাঁদপুর ইউনিয়নের ভাটদি এলাকায়। প্রায় ২০ বছরের দাম্পত্য জীবনে তারা নিঃসন্তান ছিলেন। শহরের আলীপুর মহল্লার অম্বিকাপুর খাদ্য গুদাম সংলগ্ন একটি ভাড়া বাড়িতে প্রায় ১০ থেকে ১২ বছর ধরে বসবাস করতেন তারা। লালন পেশায় অটোরিকশা চালক।

কোতোয়ালি থানার উপ পরিদর্শক (এসআই) জগন্নাথ বলেন, হাতুরি দিয়ে পিটিয়ে স্ত্রীকে হত্যার পর লালন নিজেই প্রতিবেশীকে ডেকে তার স্ত্রীকে হত্যার কথা বলেন। পরে এলাকাবাসী থানায় খবর দিলে মঙ্গলবার দুপুর ১২টার দিকে ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করা হয়। তখনও ওই নারীর স্বামী মরদেহের পাশেই বসা ছিলেন। তিনি আরও বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে হত্যাকারী লালন বলেছেন ভোর ৫টার দিকে তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে তিনি তার স্ত্রীর বাম কানের পাশে হাতুড়ি দিয়ে আঘাত করেন এবং মাথার ভেতরে ছেনি ঢুকিয়ে দেন। কয়েকবার মাথায় এরকমভাবে আঘাত করে তার মৃত্যু নিশ্চিত করেন।

ফরিদপুরের কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এম এ জলিল বলেন, মরদেহের সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করে ময়নাতদন্তের জন্য ফরিদপুরের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। স্বামী লালনকে আটক করা হয়েছে। এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।