Opu Hasnat

আজ ১৬ জানুয়ারী রবিবার ২০২২,

ব্রেকিং নিউজ

কপোতাক্ষ নদ থেকে কলেজ ছাত্রের লাশ উদ্ধার খুলনা

কপোতাক্ষ নদ থেকে কলেজ ছাত্রের লাশ উদ্ধার

খুলনার পাইকগাছায় কপিলমুনি কলেজ ছাত্র আমিনুর রহমান (২০) এর লাশ কপোতাক্ষ নদের তীর থেকে পুলিশ উদ্ধার করেছে। সে শ্যামনগর গ্রামের ছুরমান গাজীর ছেলে ও কপিলমুনি কলেজের একাদশ শ্রেণীর ছাত্র। বুধবার ভোরে ভাটার সময় নদীতে চলমান একটা নৌকা থেকে জনৈক ব্যক্তি লাশটি দেখতে পায়। তার দেয়া সংবাদে এলাকার উৎসুক জনতা কপোতাক্ষে তীরে ভীড় করতে থাকে। অনেকেই থানায় সংবাদ দেয়। পুলিশ দ্রুত আগড়ঘাটার কপোতাক্ষ নদের পশ্চিম পাশে শাহাজাতপুরের সীমানা থেকে লাশটি উদ্ধার করে। সকালে লাশটি ময়না তদন্তের জন্য খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছে।

উল্লেখ্য, রোববার রাত ৯ টায় আগড়ঘাটা বাজার থেকে কৌশলে আমিনুরকে কপোতাক্ষ নদের তীরে নিয়ে যায় ফয়সাল। সেখানে কোমল পানীয়ের সাথে ২০টি ঘুমের বড়ি মিশিয়ে তাকে খেতে দেয়। কিছুক্ষণ পর আমিনুর অচেতন হলে তাকে দা দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে। রাত সাড়ে ১০ টার দিকে নিহতের মোবাইল দিয়ে আমিনুরের বাবার কাছে ১৫ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবী করে ফয়সাল। সে অনুযায়ী সোমবার টাকা নিয়ে চলে যাওয়ার সময় জনতা ফয়সালকে ধরে পুলিশে দেয়। ধৃত আসামী গদাইপুর গ্রামের জিল্লার রহমান সরদারের ছেলে ফয়সাল মুক্তিপণ ও খুনের কথা পুলিশের কাছে স্বীকারোক্তি দিয়েছে। পাইকগাছা থানা ওসি জিয়াউর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেন। ফয়সাল পুলিশকে জানিয়েছে দামী মটর সাইকেল না কিনলে তার সাথে সম্পর্ক রাখবেনা। প্রেমিকার আবদার রক্ষা করতে সে আমিনুরে সাথে মাত্র বন্ধুত্ব সম্পর্ক গড়ে তোলে। বন্ধুত্বের সম্পর্কের বয়স মাত্র ৬ দিন। এরপর এ ঘটনা ঘটায় বলে সে পুলিশকে তথ্য দিয়েছে।

পাইকগাছা থানা ওসি জিয়াউর রহমান জানান, তার জবানবন্দি অনুযায়ী লাশ উদ্ধারের চেষ্টা করা হয়। যেখানে আমিনুরকে খুন করা হয়েছে তার কয়েকশ গজ দুরে ৩দিন পর লাশ পাওয়া গেছে। আসামীকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।