Opu Hasnat

আজ ৪ ডিসেম্বর শনিবার ২০২১,

ট্রেনে পাথর নিক্ষেপ রোধে সৈয়দপুরে সচেতনতা নীলফামারী

ট্রেনে পাথর নিক্ষেপ রোধে সৈয়দপুরে সচেতনতা

প্রতি বছর অনেকের জীবন অকালে ঝরে যাচ্ছে পাথরের আঘাতে। কারোর চোখ স্থায়ীভাবে নষ্ট হয়ে যাচ্ছে চলন্ত ট্রেনে পাথর নিক্ষেপের আঘাত পেয়ে। এ অমানবিক কাজ রোধে গণসচেতনতামূলক কার্যক্রম শুরু করেছে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘আমাদের প্রিয় সৈয়দপুর’। শনিবার (১৬ অক্টোবর)  সচেতনতামূলক ওই প্রচারণা শুরু হয়। এ সময় সংগঠনের সদস্যরা রেল লাইনের ধারে বসবাসকারী স্থানীয়দের মাঝে লিফলেট বিতরণ ও পথসভায় অংশগ্রহন করেন।  পথ সভায় চলন্ত ট্রেনে পাথর নিক্ষেপকারীদের বিরুদ্ধে আইনিবিধি-বিধান তুলে ধরা হয় এবং পাথর নিক্ষেপকারীদের ধরিয়ে দেওয়ার জন্য জণগনের সহায়তা কামনা করেন। সাথে মোবাইল ফোনে কথা বলতে বলতে রেললাইনে হাটা, শিশুদের রেললাইনের উপর খেলাধুলা ও চলন্ত ট্রেনে সেলফি তোলা থেকে বিরত থাকতে বলা হয় ওই প্রচারাভিযানে।

শহরের উপকন্ঠ গোলা হাট থেকে শুরু করে সৈয়দপুর রেলওয়ে স্টেশন পর্যন্ত চলে ওই কার্যক্রম। বিভিন্ন এলাকায় এভাবে প্রতি সপ্তাহে চলবে ওই সচেতনতামূলক প্রচারাভিযান বলে জানায় সংগঠনের সদস্যরা।

প্রচারাভিযানে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘আমাদেও প্রিয় সৈয়দপুর’ সদস্যগণ নওশাদ আনসারী, সামিউল আলিম, অনলী রাজা, ইমরান, জয়, বাবু, সেরু, সুজন, সামির, মারুফসহ সংগঠনের অন্যান্য সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

সংগঠনের সামিউল আলিম বলেন, চলন্ত ট্রেনে পাথর নিক্ষেপ একটি দন্ডনীয় অপরাধ। এতে সর্বোচ্চ মৃত্যুদন্ড ও সর্বনিম্ন ১০ বছর কারাদন্ডের বিধান রয়েছে। আমরা এ বিষয়ে রেললাইনের ধারে থাকা স্থানীয়দের মাঝে মাইকিং, লিফলেট বিতরণ ও পথসভাকরছি। এই সচেনতামূলক কার্যক্রম প্রতি সপ্তাহ অব্যহত থাকবে বলে জানান তিনি।