Opu Hasnat

আজ ২৭ সেপ্টেম্বর সোমবার ২০২১,

করোনা রোগিদের সেবায় কল পেলেই ছুটছেন তারা ফরিদপুর

করোনা রোগিদের সেবায় কল পেলেই ছুটছেন তারা

কি দিন, কি রাত করোনা আক্রান্ত রোগির স্বজনের ফোন কল পেলেই অক্সিজেন সিলেন্ডার ও ঔষুধ নিয়ে ছুটে চলছেন জেলা পুলিশের রিজার্ভ অফিসার আনোয়ার হোসেন এর নেতৃত্বে একটি টিম ও জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের কুইক রেসপন্সটিম। এ যেন এক অন্য রকম উদাহরণের গল্প জেলা করোনা রোগিদের জন্য। যেখানে করোনা রোগির নাম শুনলে নিজের স্বজন থেকে শুরু করে কেও এগিয়ে আসছে না তখন নিজেদের জীবন বাজি রেখে ছুটে চলছেন এই টিম গুলোর সদস্যরা। একই সাথে করোনায় মৃতদের লাশ দাফনেও ভূমিকা রাখছেন এই টিম গুলোর সদস্যরা।

ফরিদপুরে গত একমাস যাবত করোনা আক্রান্তদের সংখ্যা বেড়েই চলছে। দেশের সব চেয়ে বেশি শতকরা হারে করোনা আক্রান্তের দিক দিয়ে বেশি ফরিদপুর জেলা রয়েছে প্রথম। করোনা ও উপসর্গ নিয়ে মৃত্যুর সংখ্যাও প্রতিদিন গড়ে ১০জনের ভিতর রয়েছে।  

ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালটিতে গত ২৪ ঘন্টায় করোনা ও উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালে ১১ জনের মৃত্যু হয়েছে। এদের মধ্যে ৫জনের করোনা পজেটিভ ও ৬জনের করোনা উপসর্গ ছিল।  বর্তমানে হাসপাতালটিতে ৪৩১জন ভর্তি রয়েছে। এর ভিতর গত ২৪ ঘন্টায় ভর্তি হয়েছে ৭৮ জন রোগি। প্রতিনিয়ত রোগির চাপ বাড়াতে হাসপাতালে সেবা দিতে হিমসিম খাচ্ছে ডাক্তার ও নার্সরা।  

গত ২৪ ঘন্টায় জেলায় ৩৩৭ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ১৪৭ জনের দেহে নতুন করে করোনা শনাক্ত হয়েছে। শনাক্তের হার ৪০.৮৪ শতাংশ। ফরিদপুরে এ পর্যন্ত ১৫ হাজার ৩৬২ জন রোগির করোনা শনাক্ত হয়। সরকারী হিসেবে এ পর্যন্ত ২৯৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। মৃত্যু হার ১.৯০ ভাগ।

ফরিদপুরের সিভিল সার্জন ডা: ছিদ্দীকুর রহমান জানান, গত ২৪ ঘন্টায় ফরিদপুর পিসিআর ল্যাবে ৩৩৭ জনের নমুনা পরীক্ষার করে শনাক্ত হয়েছে ১৪৭ জন।

আর এমন ভয়াবহ পরিস্থিতির মধ্যে করোনা রোগির পাশে এসে দাড়িঁয়েছেন এই দুটি টিমের সদস্যরা। তারা জেলার যেখানেই করোনা রোগিদের শ্বাস কষ্টের সমস্যাসহ যেকোন সমস্যা দেখলেই এগিয়ে যাচ্ছেন। অক্সিজেন সিলেন্ডার সাথে নিয়ে গিয়ে রোগিদের হাসপাতাল পর্যন্ত নিয়ে ভর্তি করাচ্ছেন তারা।    

একই সাথে করোনা রোগিদের হাসপাতালে জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে ও স্বেচ্ছাসেবকলীগের কুইক রেসপন্সটিম এর পক্ষ থেকে খাবার দেয়া হচ্ছে প্রতিনিয়িত। এছাড়াও আরো কয়েকটি সংগঠন এগিয়ে এসেছে এই মহা দূর্বিপাকে করোনা রোগিদের পাশে।

জানাযায়, ফরিদপুর পুলিশ সুপার আলীমুউজ্জামান এর দিক নির্দেশনায় রিজার্ভ অফিসার আনোয়ার হোসেনর নেতৃত্বে কাজ করছে একটি টিম। অপরদিকে জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি শওকত আলী জাহিদ এর নেতৃত্বে কাজ করছে কুইক রেসপন্সটিম।