Opu Hasnat

আজ ১৭ এপ্রিল শনিবার ২০২১,

দুর্গাপুরে ডাক্তারকে মারধর, আটক ১ নেত্রকোনা

দুর্গাপুরে ডাক্তারকে মারধর, আটক ১

নেত্রকোনার দুর্গাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার ডাক্তার মোঃ মেহেদী হাসান’কে কর্তব্যরত অবস্থায় গালাগাল, হুমকি ও মারধর করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। মঙ্গলবার দুপুরে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় আতাউল করিম (২৮) ওরফে মাহ্ফুজ মড়ল কে আটক করেছে পুলিশ। 

থানার অভিযোগ ও প্রত্যক্ষদর্শী সুত্রে জানাযায়, প্রতিদিনের মতো ওইদিন হাসপাতালের ১০৩ নং কক্ষে সাধারণ রোগি দেখার কাজে নিয়োজিত ছিলেন ডাক্তার মেহেদী হাসান। এ সময় ঔষধ কোম্পানির এক রিপ্রেজেন্টেটিভ আতাউল করিম তার ঔষধ রোগিদের ব্যবস্থাপত্রে লিখার জন্য ডাক্তার কে চাপ সৃষ্টি করলে ডাক্তার মেহেদী এতে অপারগতা প্রকাশ করলে বিতর্কে জড়িয়ে পড়ার এক পর্যায়ে ডাক্তারের শরীরে কিল-ঘুষি মেরে আহত করে সরকারী কাজের বেঘাত ঘটায়। এ সময় ডাক্তার কে দেখে নিবে বলে হুমকী দেয়। ওই কক্ষে হৈ চৈ চলায় পার্শ্বে থাকা ডাক্তার শ্রীকান্ত কর্মকার ও ডাক্তার ওয়াদুদ সরকার আহত ওই ডাক্তার কে উদ্ধার করেন। 

এ বিয়য়ে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃপঃ কর্মকর্তা ডাক্তার মো. মামুনুর রহমান বলেন, ঘটনা শোনার পর তাৎক্ষনিক অন্যান্য সহকর্মীদের নিয়ে আলোচনা শেষে ডাক্তার মেহদী কে তাঁর নিরাপত্তার জন্য আতাউল করিম এর বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়ার পরামর্শ দেই। অভিযোগের ভিত্তিতে মাহফুজ কে গ্রেফতার করে পুলিশ।

গ্রেফতার হওয়া মাহফুজ মড়ল বলেন, আমার বিরুদ্ধে অভিযোগের কোন সত্যতা নাই। আমি ডাক্তার এর সাথে কথা বলার জন্য তার কক্ষে গিয়েছি। উনার নানা অপকর্ম ঢাকতেই আমার উপর দোষ দিয়েছে।

এ বিষয়ে দুর্গাপুর থানার অফিসার ইন চার্জ (ওসি) শাহ্ নূর-এ আলম প্রতিনিধিকে বলেন, ডাক্তারের দেয়া অভিযোগটি আমলে নেওয়া হয়েছে। ইতোমধ্যে মাহ্ফুজ মড়ল কে আটক করা হয়।