Opu Hasnat

আজ ১৭ এপ্রিল শনিবার ২০২১,

রাজবাড়ীতে টিটু সরকারের মারপিটে শ্যামল পোদ্দার গুরুতর আহত রাজবাড়ী

রাজবাড়ীতে টিটু সরকারের মারপিটে শ্যামল পোদ্দার গুরুতর আহত

রাজবাড়ী জেলা শহরের লক্ষিকোল হরিসভা মন্দিরে মহানামযজ্ঞ অনুষ্ঠান চলাকালিন সময় মদ্যপান করে মন্দিরে ঢুকে মন্দির কমিটির সহসভাপতি শ্যামল পোদ্দারকে মারপিটের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় আহত শ্যামল পোদ্দার বর্তমানে রাজবাড়ী সরকারী হাসপাতালে চিকিৎসা সেবা নিচ্ছেন। 

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, শনিবার রাতে লক্ষিকোল হরিসভা মন্দির কমিটির সাবেক সভাপতি রনজিৎ সরকার টিটু মন্দিরে ঢুকে হঠাৎ করে শ্যামল পোদ্দারকে মারপিট ও গালিগালাজ করতে থাকে। 

মারপিটের স্বীকার শ্যামল পোদ্দার জানান, বুধবার রাতে রাজবাড়ী টিটু সরকার আমাকে ফোন করে এবং আমার আবস্থান জানতে চায় মন্দিরে আফিস রুমে আছি জানার পর সে এসে আমাকে অকথ্য ভাষায় গালাগালি করেন তার পর আমাকে কিল, ঘুষি, লাথি, মারে এবং গলা টিপে প্রাণে মারার চেষ্টা করে । সে সব সময় নেশা করে সেই সময় তিনি নেশা করে এসেছেন আমি বুঝতে পেরে আমার আসেপাসে থাকা মানুষের সাহায্য পালিয়ে প্রাণে বাচি পরে আমি আমার রক্তক্ষরণ হলে আমার সহকর্মীরা আমাকে সদর হাসপালে ভর্তি করেন ।

এ ঘটনায় মন্দির কমিটির বর্তমান সভাপতি ব্যাবসায়ী জয়দেব কর্মকার বলেন, এটি একটি নিন্দনীয় কাজ। টিটু সরকার সব সময় নেশাগ্রস্থ্য অবস্থায় থাকেন। সে কমিটি নিয়ে গালিগালাজ করেছে যে কোন সময়ে আমাদের উপর হামলা করতে পারে। প্রশাসনের কাছে আমরা সহায়তা চাই এবং আমরা এই ব্যপারে আইনি সহায়তা নিবো। 

এদিকে শ্যামল পোদ্দারকে মারপিটের খবর পেয়ে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে ছুটে যান জেলা পুজা উদযাপন পরিষদের নেতৃবৃন্দ। 

এ সময় বাংলাদেশ পুজা উদযাপন পরিষদ রাজবাড়ী জেলা শাখার সভাপতি প্রদীপ্ত চক্রবর্তী কান্ত বলেন, এ ঘটনার বিচার চাওয়া ছাড়া আমাদের আর কিছু নাই। এটার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হওয়া প্রয়োজন। একজন নেশাগ্রস্থ্য হয়ে মন্দিরের পরিবেশ নষ্ট করবে তা আমাদের কাম্য নয়। আমরা টিটু সরকারসহ এই কাজকে ঘুনা করি তীব্র নিন্দা জানাই।