Opu Hasnat

আজ ২৭ সেপ্টেম্বর সোমবার ২০২১,

রাঙ্গামাটিতে ফের সেনা টহলে হামলা, গুলিতে পিসিজেএসএস সমর্থক নিহত রাঙ্গামাটি

রাঙ্গামাটিতে ফের সেনা টহলে হামলা, গুলিতে পিসিজেএসএস সমর্থক নিহত

পার্বত্য জেলা রাঙ্গামাটিতে ফের সেনা টহলে হামলার গুলিতে পার্বত্য চট্টটগ্রাম জনসংহতি সমিতি (পিসিজেএসএস) সমর্থক নিহত হয়েছে। রাঙ্গামাটিতে সেনাবাহিনীর পাল্টা গুলিতে মিনটন চাকমা (৪৮) নামে এক পাহাড়ি গ্রাম প্রধান ব্যক্তি নিহত হয়েছে। সোমবার (১৪ ডিসেম্বর) ভোররাতে সদর উপজেলার জীবতলীর ধূল্যাছড়ি এলাকার ব্রীজে এ ঘটনা ঘটে বলে পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে। নিহত ব্যক্তির পিসিজেএসএস কর্মী বলে ধারণা করছে পুলিশ। তবে পিসিজেএসএস’র এলাকার সমর্থক বলে মূখপাত্র পিসিজেএসএস’র জেলা কমিটির তথ্য ও প্রচার সম্পাদক জানান।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে আরও জানা যায়, সোমবার ভোররাতে টহলরত জীবতলি আর্মি ক্যাম্পের ৭ আরই ব্যাটালিয়ানের সেনা সদস্যের উপর আকস্মিক একদল সশস্ত্র সন্ত্রাসী গুলিবর্ষণ করে। এতে সেনা সদস্যরা আত্মরক্ষার্থে গুলি বর্ষণ করলে ঘটনাস্থলে মিনটন চাকমা নামে এক সশস্ত্র পিসিজেএসএস কর্মী নিহত হয়। এসময় ঘটনাস্থল থেকে ৩রাউন্ড গুলি, ম্যাগজিনসহ একটি রিভলবার উদ্ধার করা হয়। নিহত মিনটন চাকমা সদর উপজেলার মগবান ইউনিয়নের বাসিন্দা সুরেশমনি চাকমার ছেলে বলে জানা গেছে।

পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতি’র (পিসিজেএসএস-মূল) জেলা কমিটির মূখপাত্র জানান, নিহত ব্যক্তি পিসিজেএসএস এলাকার সমর্থক এবং গ্রাম কমিটির প্রধান ছিলেন বলে জানান। তিনি এলাকার সাধারন ব্যক্তিকে ইউপিডিএফ’ গনতান্ত্রিক সশস্ত্রকর্মীরা এ হত্যাকান্ড ঘটিয়েছে। সরকারের গোমরে লেবাস থাকা দমন পীড়নে অংশ হিসেবে পরিকল্পিত ভাবে হত্যা করানো হয়েছে। যা পার্বত্য শান্তিচুক্তি বিরোধীতায় প্রমান দেয়। নিজ ঘর থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে এহেন জগন্যতম হত্যাকান্ডের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান।  

এ বিষয়ে রাঙ্গামাটি কোতয়ালী থানার ভারপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কবির হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রাঙ্গামাটি সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। সে পিসিজেএসএসের সদস্য হতে পারে বলে তিনি জানান।