Opu Hasnat

আজ ২৫ জানুয়ারী সোমবার ২০২১,

পাইকগাছা পৌর নির্বাচনে নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী ৩ খুলনা

পাইকগাছা পৌর নির্বাচনে নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী ৩

পাইকগাছা পৌরসভা নির্বাচনে আ’লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী প্রার্থী শহীদ সন্তান সাবেক ভারপ্রাপ্ত মেয়র জেলা পরিষদ সদস্য শেখ কামরুল হাসান টিপু ও তার ছোট-ভাই শেখ আনিছুর রহমান মুক্ত এবং বর্তমান মেয়র সেলিম জাহাঙ্গীর। তারা পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ডে নৌকা মার্কার প্রত্যাশী হয়ে প্রচার-প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছে। 

বাংলাদেশ আ’লীগের সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, জামাত-বিএনপি থেকে দলে আগতদের দলে কোন প্রাধান্য দেয়া হবে না। এমনকি দলের কোন সদস্য পদ দেয়া হবে না। এছাড়া দলীয় প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে মনোনয়ন দেবে না। সে হিসেব করলে পাইকগাছা পৌরসভার নৌকার মেয়র সেলিম জাহাঙ্গীর ছাত্রশিবির ও জামায়াত নেতা হিসেবে পরিচিত। তার মা জামায়াতের মহিলা কমিটির রোকন। যা লোকমুখে প্রচার। 

এছাড়াও ২০১৯ সালে দৈনিক সমকাল পত্রিকায় প্রকাশ হয়েছে। শেখ কামরুল হাসান টিপুর পিতা শহীদ মুক্তিযোদ্ধা শেখ মাহতাব উদ্দীন মনি মিয়া গদাইপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হয়ে দীর্ঘদিন জনসেবা করেছেন। শুধু তাই না তার পিতা একজন নামকরা দলিল লেখক ছিলেন। ১৯৭১ সালে মনি মিয়াকে পাক হানাদার বাহিনী ধরে নিয়ে গুলি করে হত্যা করে কপোতাক্ষ নদীতে ভাসিয়ে দেয়। টিপুর বড় ভাই শেখ শাহাদাৎ হোসেন বাচ্চু মুক্তিযোদ্ধাকালীন একটি ক্যাম্পের কমান্ডার ছিলেন। মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার ছিলেন। 

টিপু পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ডের ২বার কাউন্সিলর ছিলেন এবং মেয়র হিসেবে দু’বছর দায়িত্ব পালন করেন। তিনি ঠিকাদারী ব্যবসার পাশাপাশি খুলনা জেলা পরিষদের সদস্য ও উপজেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক দায়িত্ব পালন করেছেন। টিপু আ’লীগ পরিবারের সন্তান বলে পরিচিত। টিপুর ছোট ভাই শেখ আনিছুর রহমান মুক্ত পৌরসভার ৫নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ছিলেন। সে দীর্ঘদিন জেলা ও উপজেলা যুবলীগের বিভিন্ন পদে দায়িত্ব পালন করেন। বর্তমান উপজেলা যুবলীগের সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির আহবায়ক। ২০১৫ সালে পৌর নির্বাচনে নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী ছিলেন শেখ কামরুল হাসান টিপু ও সেলিম জাহাঙ্গীর। 

নৌকার মনোনয়নে সেলিম জাহাঙ্গীর পেয়ে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করলে টিপু নৌকাপ্রতীকের পক্ষে কাজ করেন। তারা ৩জন নৌকা প্রতীক পাওয়ার জন্য লবিং গ্রুপিং চালিয়ে যাচ্ছেন। খোদ আ’লীগের মধ্যে চলছে চুলচেরা বিশ্লেষণ। চায়ের দোকান থেকে শুরু করে বিভিন্ন স্থানে। কেউ কেউ বলছে, দলীয়ভাবে প্রার্থী করতে হলে শহীদ মুক্তিযোদ্ধার দু’সন্তান টিপু ও মুক্ত। এর মধ্যে ঠিকাদারী ব্যবসায়ী উপজেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ কামরুল হাসান টিপু ও তার ভাই আনিছুর রহমান মুক্তর বয়সে অনেক বড়। দলীয়ভাবে পদ পদবীতে অনেক উপরে তাকে যদি আ’লীগ মনোনয়ন দেয় জয় হওয়ার সম্ভাবনা অনেকটা বেশী। তা না হলে পাইকগাছা পৌরসভার মেয়র পদটি হাত ছাড়া হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলে নাম না প্রকাশে অনেকে জানিয়েছেন।