Opu Hasnat

আজ ২৬ নভেম্বর বৃহস্পতিবার ২০২০,

খাগড়াছড়িতে স্বাস্থ্যবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগে আরও ১৩৮জনকে অর্থদন্ড খাগড়াছড়ি

খাগড়াছড়িতে স্বাস্থ্যবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগে আরও ১৩৮জনকে অর্থদন্ড

খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলাতে স্বাস্থ্যবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগে আরও ১৩৮জনকে অর্থদন্ড ভ্রাম্যামাণ বিশেষ আদালত। মাস্ক না পরে স্বাস্থ্যবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগে জেলাতে বৃহস্পতিবার আরও ১শ ৩৮জনকে অর্থদন্ড দিয়েছে ভ্রাম্যামাণ আদালত। এ নিয়ে গত চারদিনে ৫শ ৬০জনকে অর্থদন্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। মাস্ক না পরে স্বাস্থ্যবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগে ভ্রাম্যামা আদালত এ সময় তাদের কাছ থেকে ১৬হাজার টাকা আদায় করা হয়েছে। এর আগে ২৭হাজার ৩শ ২০টাকা আদায় করা হয়।

বৃহস্পতিবার খাগড়াছড়ি শহরে সাপ্তাহিক বড় বাজার, প্রত্যন্ত অঞ্চলের সাধারণ মানুষকে মাস্ক বিষয়ে ও মাস্ক পরিধানে জনসচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে সকাল সাড়ে ৮টায় মাঠে নামে ভ্রাম্যমাণ আদালত। আর এই ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে নেতৃত্ব দিচ্ছেন খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো: সাজ্জাদ হোসেন।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের তথ্যমতে, বুধবার সকাল থেকে অভিযান চালিয়ে মাস্ক না পরার অপরাধে খাগড়াছড়ি জেলা সদরে ৪০জন, পানছড়িতে ১৫জন, মানিকছড়িতে ২২জন, মাটিরাঙায় ৭জন, রামগড়ে ২০জন, গুইমারায় ১৬জন, লক্ষ্মীছড়িতে ১১জন, মহালছঢ়িতে ১৫জন ও দীঘিনালায় ২৭জনকে অর্থদন্ড দেওয়া হয়েছে। এ নিয়ে গত তিন দিনে ৪২৬জন অর্থদন্ড  দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

খাগড়াছড়ি জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো: সাজ্জাদ হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, অভিযান এখনো চলছে। ফলে সংখ্যা আরও বাড়তে পাড়ে। জরিমানা বা অর্থদন্ড মূখ্য বিষয় নয়। মূল বিষয় হলো করোনা প্রতিরোধে মাস্ক পরিধানে জনসচেতনতা বৃদ্ধি করাই আমাদের লক্ষ্য বা উদ্যেশ্য। বর্তমান সরকারের নির্দেশনায় ও নাগরিক সমাজের মাস্ক সচেতনতা বাড়াতেই  আমরা এ অভিযান চালাচ্ছি।

খাগড়াছড়ি জেলা প্রশাসক প্রতাপ চন্দ্র বিশ্বাস জানান, করোনায় স্বাস্থ্য লঙ্ঘন করলে কাউকে ছাড় দেবে না প্রশাসন। আরও কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করবে। প্রয়োজনে অর্থদন্ডের পাশাপাশি জেল-জড়িমানা দেওয়া হবে। তিনি মাস্ক ছাড়া কাউকে ঘর থেকে বের না হতে এবং সবাইকে স্বাস্থ্য বিধি মেনে 

খাগড়াছড়ি জেলা ব্যাপী শীত মৌসুমে করোনা প্রতিরোধে ও জনসচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে, জনসমাগমস্থলে মাস্ক পরিধানে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

এই বিভাগের অন্যান্য খবর