Opu Hasnat

আজ ১ ডিসেম্বর মঙ্গলবার ২০২০,

গাজীপুর জেলা রোভারের প্লাষ্টিক টাইড টার্নার ওরিয়েন্টেশন অনুষ্ঠিত

ক্রমবর্ধমান প্লাষ্টিক স্রোত থামাতে দেশের ২০ লাখ স্কাউট ক্র্য্কারী ভূমিকা রাখতে পারে : জেলা প্রশাসক গাজীপুর

ক্রমবর্ধমান প্লাষ্টিক স্রোত থামাতে দেশের ২০ লাখ স্কাউট ক্র্য্কারী ভূমিকা রাখতে পারে : জেলা প্রশাসক

গাজীপুরের জেলা প্রশাসক এসএম তরিকুল ইসলাম বলেন, পলিথিন ও প্লাষ্টিক পন্যের বহুল ব্যবহারের কারনে জলীয়, বায়বীয় পরিবেশকে দারুনভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করছে।প্লাষ্টিক পন্যের ক্রমবর্ধমান ব্যবহারে বিশ্বের স্বাভাবিক পরিবেশকে গ্রাস করে ফেলছে।এ অবস্থা থেকে পরিবেশকে, বিশ্বকে বাঁচাতে প্লাষ্টিক পন্যের বিরুদ্ধে ট্রিপল আর (রিডিউস, রিসাইকেল, রিইউজ) মেথড ব্যবহার করে এগুতে হবে। আর দেশের ক্রমবর্ধমান প্লাষ্টিক স্রোত থামাতে দেশের ২০ লাখ স্কাউট ক্র্য্কারী ভূমিকা রাখতে পারে।

বাংলাদেশ স্কাউটস গাজীপুর জেলা রোভারের আয়োজেনে প্লাষ্টিক টাইড টার্নার চ্যালেঞ্জ ব্যাজ ওরিয়েন্টেশন কোর্স উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথী হিসেবে যুক্ত হয়ে বক্তব্য রাখতে গিয়ে গাজীপুরের জেলা প্রশাসক ও জেলা রোভার সভাপতি এসএম তরিকুল ইসলাম এসব কথা বলেন। আজ (২৭ আক্টোবর ২০২০) দিনব্যাপী ভার্চুয়ালী আয়োজিত কোর্স উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ওরিয়েন্টেশন পরিচালক জেলা রোভার কমিশনার অধ্যক্ষ রফিকুল ইসলাম ছাড়াও, রোভার অঞ্চলের সহ সভাপতি ও গাজীপুর জেলা রোভারের সহ সভাপতি প্রফেসর এম এ বারী, ভাওয়াল বদরে আলম সরকারী কলেজের অধ্যক্ষ মাসুদা সিকদার, রোভার অঞ্চলের উপ কমিশনার (ট্রেনিং) সিকদার রুহুল আমিন এলটি, জেলা রোভার সম্পাদক মোফাজ্জল হোসেন বক্তব্য রাখেন। এসময় গাজীপুর জেলা রোভারের যুগ্ম সম্পাদক এ্যাডভোকেট আনোয়ার হোসেন, সহকারী কমিশণার শামীম আহসান, স্কাউটার মীর মোহাম্মদ ফারুক সিএএলটি ভার্চুয়ালী যুক্ত ছিলেন। 

গাজীপুর জেলা রোভার সম্পাদক মোফাজ্জল হোসেন এএলটি বলেন, প্লাষ্টিক পন্যের অপরিকল্পিত, বহুল ও যথেচ্ছ ব্যবহারে পরিবেশের উপর বিরুপ প্রভাব পড়েছে।সমূদ্র তলদেশ থেকে সুউচ্চ পাহাড়ের শীর্ষে প্লাষ্টিক সামগ্রী ছড়িয়ে পড়েছে। ফলে কোন কোন ক্ষেত্রে জলস্রোত যেমন বাধাগ্রস্ত হচ্ছে, অপরদিকে জমির উর্বরা শক্তিও হ্রাস পাচ্ছে, জলজ প্রানী মারা যাচ্ছে, খাদ্য উৎপাদনও কমে যাচ্ছে।ক্রমবর্ধমান এই সংকট নিরসনের লক্ষ্যে বিশ্ব স্কাউট সংস্থ্যা স্কাউটদের কাজে লাগানোর প্রকল্প হাতে নিয়েছে। এরই অংশ হিসেবে স্কাউট ও রোভারদের জন্য প্লাষ্টিক টাইড টার্নার চ্যালেঞ্জ ব্যাজ চালু করেছে।সারাদেশের রোভার স্কাউটও স্কাউটদের এই প্রকল্পে ব্যপকভাবে অংশগ্রহনের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। প্রত্যেক রোভার ছয়মাস ব্যাপী নিজ নিজ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও নিজ বাড়ির আশপাশের মানুষকে প্লাষ্টিক পন্য ব্যবহার হ্রাস করতে উদ্বুদ্ধ করবে, প্লাষ্টিক পন্য দিয়ে খেলনা, সোপিসসহ নানা দ্রব্য তৈরী ও ব্যবহার করবে। তাছাড়া, প্লাষ্টিক সামগ্রীর বিকল্প পন্য ব্যবহারে উৎসাহিত করবে রোভার ও স্কাউটরা। টানা ছয় মাসব্যাপী এই কর্মসূচিতে অংশগ্রহন করে রোভার স্কাউট ও স্কাউটরা প্লাষ্টিক টাইড টার্নার চ্যালেঞ্জ ব্যাজ অর্জন করবে।রোভার স্কাউটদের জন্য এই কর্মসূচিতে অংশগ্রহন বাধ্যতামূলক। এই কর্মসূচিতে স্কাউটদের অংশগ্রহন ঐচ্ছিক।    

খুলনা জেলা রোভার এর কারিগরী সহায়তায় আয়োজিত ওরিয়েন্টেশনে প্রশিক্ষক হিসেবে ছিলেন, স্কাউটার রফিকুল ইসলাম,স্কাউটার মাহমুদ হোসেন, স্কাউটার মোফাজ্জল হোসেন এএলটি, স্কাউটার শফিকুল ইসলাম, আওলাদ মারুফ। কর্মসূচিতে গাজীপুর জেলার বিভিন্ন কলেজ ও মুক্ত রোভার গ্রুপের ৬৫জন রোভার ছেলে মেয়েও এ্যাডাল্ট লিডার অংশগ্রহন করেন।ওরিয়েন্টেশনে খুলনা জেলা রোভার এর কয়েকজন রোভার ও এ্যাডাল্ট লিডারও অংশ নেন।