Opu Hasnat

আজ ২৯ অক্টোবর বৃহস্পতিবার ২০২০,

ব্রেকিং নিউজ

সৈয়দপুরে করোনায় কিন্ডার গার্টেন স্কুল বন্ধের উপক্রম, শিক্ষক-কর্মচারীদের দূর্দিন নীলফামারী

সৈয়দপুরে করোনায় কিন্ডার গার্টেন স্কুল বন্ধের উপক্রম, শিক্ষক-কর্মচারীদের দূর্দিন

নীলফামারীর সৈয়দপুরের বিভিন্ন পাড়া-মহল্লায় ও গ্রামীণ জনপদে গড়ে ওঠা কিন্ডার গার্টেন, প্রি-ক্যাডেট ও প্রিপারেটরিসহ বেসরকারি শিক্ষা-প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারীদের বড় দুর্দিন চলছে। করোনার প্রাদুর্ভাবে স্বল্প বাজেট ও বিনিয়োগে গড়ে ওঠা এসব স্কুলের শিক্ষক-কর্মচারীরা কর্মহীন হয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছেন।

সংসার চালাতেও শিক্ষক-কর্মচারীদের বেতন পরিশোধ করতে পারছে না। এমন হুমকির মুখে পড়েছে বেসরকারি এসব শিক্ষা-প্রতিষ্ঠান। এসব প্রতিষ্ঠানের বেশিরভাগই বন্ধের উপক্রম হয়েছে। এ কারণে উদ্বিগ্ন হয়ে উঠেছেন শিক্ষক-কর্মচারী ও তাদের পরিবার। উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছেন বেশিরভাগ অভিভাবক। বেসরকারি এসব শিক্ষা-প্রতিষ্ঠানের প্রতিটিতে গড়ে ২শ’ শিক্ষার্থী অধ্যয়ন করে বলে একাধিক পরিচালক জানিয়েছেন।  

করোনা মহামারি আকারে ছড়িয়ে পড়ায় গত ১৮ মার্চ থেকে দেশের শিক্ষা-প্রতিষ্ঠানগুলো সাময়িকভাবে বন্ধ ঘোষণা করে সরকার। সেই থেকে এখনও বন্ধ রয়েছে শিক্ষা-প্রতিষ্ঠানগুলো। দীর্ঘ কয়েক মাস বন্ধ থাকায় বেসরকারি শিক্ষা-প্রতিষ্ঠান শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে কোনো বেতন আদায় করতে পারছে না। ফলে শিক্ষক-কর্মচারীদের বেতন নিয়মিত দিতে পারছে না বেশিরভাগ শিক্ষা-প্রতিষ্ঠান। কেবল শিক্ষক-কর্মচারীদের বেতনই বন্ধ হয়নি। ঘরভাড়াও বাকি পড়েছে অনেকের। আবার কেউ কেউ ঋণ করে ঘরভাড়া পরিশোধ করেছে। অনেককে ছাড়তেও হয়েছে বিদ্যালয়ের ভবন। এ অবস্থার মধ্যে হাতেগোনা কিছু প্রতিষ্ঠান তাদের শিক্ষক-কর্মচারীদের কমবেশি বেতন অব্যাহত রেখেছেন। 

সমর নামে এক কিন্ডারগার্টেন স্কুলের শিক্ষক জানান, প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় পরিবার নিয়ে বড় বেকায়দায় আছি। তাই বাধ্য হয়ে কোম্পানির মালামাল বিক্রির কাজ নিয়েছি। তার মতো অনেকেই জীবন-জীবিকার তাগিদে বিভিন্ন পেশা নিয়ে টিকে আছেন।

সৈয়দপুর উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা শাহজাহান মন্ডল বলেন, আমরা কেবলমাত্র বই দেওয়ার বিষয়টি দেখাশোনা করি। এর বাইরে আমরা তেমন কিছু করতে পারি না। কারণ কোনো ধরণের নির্দেশনা আমাদের কাছে নেই। কিন্ডারগার্টেন বন্ধ হলেও শিক্ষার্থীরা যাতে ক্ষতিগ্রস্ত না হয় সেজন্যে বিনা টিসিতে যে কোনো সময় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ভর্তি করা হবে।