Opu Hasnat

আজ ২১ অক্টোবর বুধবার ২০২০,

ব্রেকিং নিউজ

সৈয়দপুরে পানিবন্দি মানুষের পাশে পৌর মেয়র আমজাদ হোসেন নীলফামারী

সৈয়দপুরে পানিবন্দি মানুষের পাশে  পৌর মেয়র আমজাদ হোসেন

২১ টি ডেগে রান্না হচ্ছে খাবার। একদিকে ধোয়া হচ্ছে চাল, কাটা হচ্ছে পিঁয়াজ মরিচ। কেউ চাল পাক করছেন, আবার অন্য ডেগে রান্না হচ্ছে মুরগি দিয়ে তরকারি। সময়মত পানিবন্দি মানুষের মাঝে যাতে খাবার পৌছে সেই প্রচেষ্টা তাঁদের। গত রোববার (২৭ সেপ্টেম্বর) এমনি চিত্র দেখা গেলো সৈয়দপুর ইসলামিয়া স্কুলে। পৌর মেয়র অধ্যক্ষ মো. আমজাদ হোসেন সরকারের নির্দেশে পানিবন্দি মানুষের পাশে দাঁড়াতে এমনি আয়োজনে ব্যস্ত তারা। এভাবে ঢাকায় অবস্থান করেও সৈয়দপুরের মানুষের পাশে দাঁড়ালেন পৌর মেয়র অধ্যক্ষ মো. আমজাদ হোসেন সরকার। 

টানা চারদিনের ভারী বৃষ্টিপাতের কারণে পানিবন্দি হয়ে কর্মহীন হয়ে পড়া সৈয়দপুর পৌর এলাকার মানুষজনের মাঝে শুকনো খাবার ও খিচুরি বিতরণ করেছেন তিনি। পৌর মেয়রের নির্দেশে পৌর এলাকার হাওয়ালদারপাড়া হাতিখানা, মুন্সিপাড়া,  নয়াবাজার, বাঁশবাড়িসহ বিভিন ওয়ার্ডে পানিবন্দি মানুষদের মাঝে রান্না করা হয়েছে খিচুড়ি বিতরণ করা হয়েছে। ওয়ার্ডের কাউন্সিলরসহ মেয়রের প্রতিনিধিদের মাধ্যমে বিতরণ করা হয় এসব খাবার। 

শহরের মুন্সিপাড়া এলাকায় ৫ ও ৬ নং ওয়ার্ডে পৌর মেয়রের সহযোগিতায় জিম রাসেলের তত্বাবধানে পানিবন্দি মানুষজনের মাঝে খাদ্য বিতরন করা হয়। জেলা পরিষদ সদস্য আলহাজ্ব অধ্যক্ষ মো. আবদুল গফুর সরকার, শেখ বাবলু উপস্থিত থেকে পানিবন্দি মানুষদের ওই খাদ্য বিতরণ করেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন রুপা খাতুন, মো. সাজেদুজ্জামান দিনার, আবু নাসিম মিঠু,আসলাম মল্লিক, মো.একরামসহ অন্যান্যরা। এদিকে ৮ ও ৯নং ওয়ার্ডের হাতিখানা ক্যাম্প, মাছুয়াপাড়া, হাতিখানা ও অফিসার্স কলোনী এলাকায় পৌর মেয়রের পক্ষে খাদ্য বিতরণকালে উপস্থিত ছিলেন প্রকৌশলী হুসেইন মোহাম্মদ আরমান, আনোয়ার হোসেন হাবলু, আলাউদ্দিন প্রমুখ।

মুঠোফোনে পৌর মেয়র অধ্যক্ষ আমজাদ হোসেন সরকার জানান, সৈয়দপুর ভারি বর্ষণে অনেক এলাকা প্লাবিত হয়েছে। পানিবন্দি মানুষ কর্মহীন হয়ে পড়েছে। যথাসময়ে তাদের খাবার পৌছাতে আপ্রাণ চেষ্টা করেছি এবং পৌর পরিষদকে তাদের পাশে থাকতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে এবং সে অনুযায়ী কাজও হচ্ছে।