Opu Hasnat

আজ ৩০ সেপ্টেম্বর বুধবার ২০২০,

খাগড়াছড়িতে কথিত অতিরিক্ত সচিব পরিচয়ে প্রতারণা, অবৈধ সুবিধা আদায়ের চেষ্টা

কর্মকর্তাদের সাথে দুর্ব্যবহারের অভিযোগে স্বামী-স্ত্রী ও কন্যাকে পুলিশে সোপর্দ খাগড়াছড়ি

কর্মকর্তাদের সাথে দুর্ব্যবহারের অভিযোগে স্বামী-স্ত্রী ও কন্যাকে পুলিশে সোপর্দ

খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলায় অতিরিক্ত সচিব পরিচয়ে প্রতারণা, অবৈধ সুবিধা আদায়ের চেষ্টা এবং কর্মকর্তাদের সাথে দুর্ব্যবহারের অভিযোগে জেলাতে মো: জগলুল ফারুক সিফাত (৩০) ও তার স্ত্রী কন্যাসহ তিনজনকে পুলিশে সোপর্দ করেছে জেলা প্রশাসন। সোমবার (১৪ সেপ্টেম্বর) সকালে এ ঘটনা ঘটে। খাগড়াছড়ি জেলা প্রশাসনের সুত্র এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। 

ঘটনা বিবরনে জানা যায়, জগলুল ফারুক সিফাত’র পিতার নাম ফারুক সিকদার, তার গ্রামের বাড়ি পটুয়াখালী জেলার গলাচিপায়। বর্তমানে ঢাকার মিরপুরের বাসা নং-১৩, রোড নং-৩৬৮।

অতিরিক্ত সচিব পরিচয়ে খাগড়াছড়ি জেলা প্রশাসনের সুবিধা আদায়ের চেষ্টা এবং কর্মকর্তাদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করার অভিযোগে জগলুল ফারুক সিফাত (৩০) নামে এক প্রতারককে পুলিশে সোপর্দ করা হয়েছে। এসময় স্ত্রী-সন্তানকে পুলিশে সোপর্দ করা হয়। জগলুল ফারুক সিফাত পটুয়াখালী গলাচিপা উপজেলার ফারুক সিকদারের ছেলে। 

খাগড়াছড়ি মডেল সদর থানার এসআই বিকিরণ চাকমা জানান, সকাল ১০টার দিকে জেলা প্রশাসন থেকে খবর পেয়ে অতিরিক্ত সচিব পরিচয়ধানকারী মো: জগলুল ফারুক সিফাত (৩০), তার স্ত্রীর মোছাঃ জান্নাতুন ফেরদৌস (২৫) ও শিশু কন্যা ইনাইয়া আক্তারকে (২) খাগড়াছড়ি থানায় আনা হয়।

খাগড়াছড়ি জেলা প্রশাসনের এনডিসি উজ্জ্বল কুমার হাওলাদার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, কথিত অতিরিক্ত সচিব মো: জগলুল ফারুক সিফাত তার সাথে খারাপ ব্যবহার করেছে। এ বিষয়ে আইনি কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

তিনি জানান, সকালে নিজেকে অতিরিক্ত সচিব পরিচয় দিয়ে জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তাদের কাছে অবৈধ সুবিধা চান। এসময় কর্মকর্তাদের সঙ্গে তিনি খারাপ আচরণ করেন। পরে সন্দেহ হলে স্ত্রী-সন্তানসহ তাকে পুলিশে সোপর্দ করা হয়। 

এই বিভাগের অন্যান্য খবর