Opu Hasnat

আজ ২৯ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার ২০২০,

ব্রেকিং নিউজ

কুমিল্লায় মাদকের আসামীকে ছাড়াতে এসে যুবলীগ নেতাসহ আটক ৬ কুমিল্লা

কুমিল্লায় মাদকের আসামীকে ছাড়াতে এসে যুবলীগ নেতাসহ আটক ৬

কুমিল্লায় মাদক মামলার চার আসামিকে ঘুষের বিনিময়ে ছাড়িয়ে নিতে গিয়ে র‌্যাবের হাতে আটক হয়েছেন কুমিল্লা মহানগর যুবলীগের আহ্বায়ক কমিটির এক সদস্য ৬ জন। র‌্যাপিড অ্যাকশান ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) সদস্যরা সোমবার রাতে তাদের আটক করে। এ ঘটনায় কোতোয়ালি মডেল থানায় মাদক আইনে এবং দুর্নীতি দমন কমিশনে প্রথক দুটি মামলা হয়েছে। মঙ্গলবার নগরীর শাকতলা র‌্যাব কার্যালয়ে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে এসব তথ্য জানান র‌্যাব-১১ এর কোম্পানি অধিনায়ক মেজর তালুকদার নাজমুস সাকিব।

ব্রিফিংয়ে জানানো হয়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব-১১ এর একটি দল সোমবার রাতে নগরীর ডিগাম্বরীতলা এলাকায় এলআর এপেক্স টাওয়ার নামক একটি নির্মাণাধীন ভবনে অভিযান পরিচালনা করে ৩০৫ পিস ইয়াবা, ১২ ক্যান বিয়ার ও মাদক বিক্রির নগদ ৩৭ হাজার টাকাসহ চার মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করে। আটকদের মধ্যে রয়েছে নগরীর মৌলভীপাড়া এলাকার মৃত ফরিদ মিয়ার ছেলে মো. শহীদুজ্জামান সজীব (২৮), কাপ্তান বাজার এলাকার জহিরুল ইসলামের ছেলে জুবায়েরুল হক ওরফে নিপু (৩১), বজ্রপুর এলাকার মতৃ আ. জলিলের ছেলে শাকিল বিন জলিল (৩০) ও বুড়িচং উপজেলার জিয়াপুর গ্রামের মৃত আ. জলিল ভূঁইয়ার ছেলে আবুল হোসেন ভূঁইয়া (৩৮)।

র‌্যাব অধিনায়ক জানান, চার আসামিকে ছাড়িয়ে নিতে সোমবার রাতেই মহানগর যুবলীগ নেতা পরিচয়ে বোরহান মাহমুদ কামরুল নামে একজনসহ ছয় জন র‌্যাব কার্যালয়ে আসেন। তারা র‌্যাবকে দুই লাখ টাকার বিনিময়ে মাদকসহ গ্রেফতার হওয়া ওই চার জনকে ছেড়ে দিতে অনুরোধ করে। এসময় তাদেরকেও গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারদের মধ্যে রয়েছেন সদর উপজেলার গোবিন্দপুর গ্রামের মৃত মোহাম্মদ আলীর ছেলে বোরহান মাহমুদ কামরুল (৪৭), নগরীর কাপ্তানবাজার এলাকার মৃত ইউনুছ মুন্সীর ছেলে মো. জহিরুল হক (৬৪), মৌলভীপাড়া এলাকার আহমেদুল কবিরের ছেলে ইফতেখারুল কবির (১৮), মৃত ফরিদ আহমেদ এর ছেলে ফয়েজ আহমেদ ওরফে অপু (৪০), ছোটরা এলাকার মৃত আ. বারেকের ছেলে মো. নিয়ামুল হক (৩০) ও সদর উপজেলার ইলাশপুর গ্রামের আব্দুস সালামের ছেলে আমজাদ হোসেন (৩৬)।

র‌্যাব অধিনায়ক আরও জানান, মাদকসহ গ্রেফতার হওয়া চার আসামি পরস্পর যোগসাজশে কুমিল্লাসহ দেশের বিভিন্নস্থানে ইয়াবা ট্যাবলেট ক্রয়-বিক্রয় করে আসছিলো। এ ঘটনায় চার জনের বিরুদ্ধে মাদক আইনে এবং ছয় জনের বিরুদ্ধে উৎকোচ প্রদানের চেষ্টা করার অপরাধে দুর্নীতি দমন কমিশনে মামলা হয়েছে।