Opu Hasnat

আজ ১ অক্টোবর বৃহস্পতিবার ২০২০,

আইপিএল থেকে সরে গেলো ভিভো খেলাধুলা

আইপিএল থেকে সরে গেলো ভিভো

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) এ বছরের আসর থেকে টাইটেল স্পন্সর হিসেবে নিজেদের নাম প্রত্যাহার করে নিল চীনা প্রতিষ্ঠান ‘ভিভো’। এমনটি জানিয়েছে ক্রিকেটভিত্তিক পোর্টাল ক্রিকইনফো।

এ যেন লাদাখের যুদ্ধাবস্থা বিরাজ করছে আইপিএলেও। ২০ জন ভারতীয় সেনা নিহত হওয়ার জের ধরে ভারজুড়ে ট্রেন্ড হয়ে গিয়েছিল, বয়কট চীনা পণ্য। তারই জের ধরে জোরালো দাবি উঠেছিল, আইপিএল থেকেও যেন বাদ দেয়া হয় চীনা মোবাইল কোম্পানি ভিভোকে। যদিও এ ব্যাপারে ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড (বিসিসিআই) ও ভিভো এখন পর্যন্ত অফিসিয়ালি কিছুই বলেনি।

রোববার আইপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের বৈঠকে সিদ্ধান্ত নেয়া হয় ভিভোই থাকবে তাদের স্পন্সর। এই ঘোষণার পর ভারতে শুরু হয়ে যায় তুমুল আন্দোলন। সোশ্যাল মিডিয়ায় হ্যাশ ট্যাগ দিয়ে বয়কট আইপিএল আন্দোলনের ঢেউ উঠে গেছে।

শেষ পর্যন্ত একদিনও যেতে পারলো না, আইপিএল থেকে সরে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে চীনা মোবাইল কোম্পানি ভিভো। আইপিএলের তেরোতম সংস্করণের স্পনসরশিপ থেকে সরে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে তারা।

তবে শুধুমাত্র চলতি বছরই তারা আইপিএলে স্পন্সর করবে না। চুক্তি অনুযায়ী আগামী বছর স্পন্সর করার কথা জানিয়েছে ভিভো।

ভিভো সরে যাওয়ার কারণে এবার নতুন স্পন্সর খুঁজে মাঠে নেমেছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড বিসিসিআই। শিগগিরই এ বছরের আইপিএলের জন্য নতুন স্পনসরের নাম ঘোষণা করতে যাচ্ছে বিসিসিআই।

আইপিএলের অন্যতম একটি ফ্রাঞ্চাইজি এরই মধ্যে চীনা স্পন্সর হারিয়ে নিজেদের খরচ নির্বাহের জন্য বিসিসিআইয়ের সঙ্গে যুদ্ধ শুরু করেছে। এবার সেই ফ্রাঞ্চাইজির সঙ্গে আরও ৭টি ফ্রাঞ্চাইজিও দারুণ দুশ্চিন্তায় পড়ে গেলো। ভিভো সরে যাওয়ার কারণেই মূলতঃ আইপিএল আয়োজন নিয়েই দুশ্চিন্তায় পড়ে গেলো পুরো কন্টিনজেন্ট।

সীমান্তে ভারত ও চীনের মধ্যে ক্রমবর্ধমান উত্তেজনার মধ্যে চীনা পণ্য বয়কটের ডাক দেওয়া হয়েছিল। তবুও রোববার আইপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের বৈঠকে চীনা মোবাইল প্রস্তুতকারক কোম্পানি ভিভো’কে চুক্তি অনুযায়ী টাইটেল স্পনসর হিসেবে রেখে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

কিন্তু সোশ্যাল মিডিয়ার বোর্ডের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে সমালোচনার ঝড় ওঠায় নিজেরাই চলতি বছর আইপিএলের স্পনসর থেকে সরে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নেয় ভিভো। ফলে ১৯ সেপ্টেম্বর থেকে সংযুক্ত আরব আমিরাতে শুরু হতে চলা ২০২০ আইপিএলে নতুন স্পনসর দেখা যাবে। আগামী তিন দিনের মধ্যেই নতুন স্পনসরের জন্য টেন্ডার ডাকতে চলেছে বিসিসিআই।

২০১৭ সালের চিনা মোবাইল প্রস্তুতকারক কোম্পানি ভিভো’র সঙ্গে আইপিএলের টাইটেল স্পনসর হিসেবে পাঁচ বছরের চুক্তি হয়। চুক্তি অনুযায়ী প্রতি বছর বিসিসিআইকে ভিভো দেয় ৪৪০ কোটি রুপি।

পাঁচ বছরের চুক্তি মোতাবেক বিসিসিআইকে মোট ২,১৯৯ কোটি টাকা দেবে চীনা কোম্পানিটি; কিন্তু পাঁচ বছরের মধ্যে মাত্র দু’বছর আইপিএলকে স্পনসর করেছে ভিভো। বাকি রয়েছে আরও তিন বছর। তবে চলতি বছরে সরে দাঁড়ালেও, আগামী বছর থেকে বাকি তিন বছর অর্থাৎ ২০২১, ২০২২ এবং ২০২৩ পর্যন্ত ভিভো আইপিএলে টাইটেল স্পনসর থাকবে বলে বলা হয়েছে।