Opu Hasnat

আজ ১৩ আগস্ট বৃহস্পতিবার ২০২০,

সুনামগঞ্জে প্রতারণা মামলায় তথাকথিত সাংবাদিক স্বাধীন গ্রেফতার সুনামগঞ্জ

সুনামগঞ্জে প্রতারণা মামলায় তথাকথিত সাংবাদিক স্বাধীন গ্রেফতার

সুনামগঞ্জের দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলায় বিকাশ প্রতারণার মাধ্যমে বিপুল পরিমান টাকা আত্মসাতের অভিযোগে তথাকথিত নাম সর্বস্ব ভূয়া অনলাইন পোর্টাল সাংবাদিক জাকারিয়া আহমদ স্বাধীনকে গ্রেফতার করেছে দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানা পুলিশ। আটক জাকারিয়া আহমদ স্বাধীন উপজেলার আমদাবাজ গ্রামের আব্দুল আজিদ প্রকাশ আজিজের পুত্র।

পুলিশ ও অভিযোগে সূত্রে জানা যায়, দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার আমদাবাজ গ্রামের মোঃ মজুদ মিয়ার ছেলে জনৈক হাছান মিয়া ২/৩ মাস পূর্বে ইউরোপে যাওয়ার উদ্দেশ্যে লেবানন রাষ্ট্র থেকে সিরিয়ার উদ্দেশ্যে রওয়ানা করে। দীর্ঘদিন হাছান তার পরিবারের লোকজনদের সাথে যোগাযোগ রক্ষা না করায় আপন ফুফাত ভাই কথিত ঢাকাইয়া অনলাইন সাংবাদিক জাকারিয়া আহমদ স্বাধীন বিষয়টি জানিতে পারিয়া ফেসবুকে মজুদ মিয়ার ছেলে সিরিয়া প্রবাসী হাছানের ছবি যুক্ত আইডি খুলে আপন মামা মোঃ মজুদ মিয়ার ফেসবুকে ম্যাসেঞ্জারের মধ্যে হাছান মিয়া সেজে প্রতারক জাকারিয়া আহমদ স্বাধীন যোগযোগ করিতে থাকে এবং হাছান মিয়া দালালদের খপ্পরে পড়িয়া নির্যাতিত হইতেছে বলিয়া ম্যাসেজ পাঠাইতে থাকে। একপর্যায়ে মজুদ মিয়া তাহার ছেলে হাছান মিয়াকে দালালদের খপ্পর থেকে মুক্ত করিতে চাহিলে প্রতারক জাকারিয়া আহমদ স্বাধীন সুযোগ বুঝে তাহার স্ত্রী মনিরা আক্তার, শাশুড়ী বিলকিছ বেগম ও তার নিজের নামীয় বিকাশ নাম্বার মামা মোঃ মজুদ মিয়াকে পাঠায় এবং একাধিকবার যোগযোগ করিয়া বিকাশ নাম্বারের মধ্যমে প্রায় ৩ লক্ষ ৭০ হাজার টাকা প্রতারণার মাধ্যমে আত্মসাৎ করিয়া নেয়। প্রতারণার বিষয়টি মুজদ মিয়া বুঝিতে পারিয়া দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। উক্ত অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্তে নামে দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানা পুলিশের এসআই জহিরুল ইসলাম তালুকদার। তদন্তের একপর্যায়ে দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানা পুলিশের এসআই জহিরুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা পাওয়ায় বুধবার (২৯ জুলাই) থানা পুলিশের সদস্যদের নিয়ে অভিযান পরিচালনা করে প্রতারণ জাকারিয়া আহমদ স্বাধীনকে আটক করেন। বৃহস্পতিবার (৩০ জুলাই) আটক জাকরিয়া আহমদকে মামলার ঘটনায় আদালতে প্রেরণ করেন।

স্থানীয় এলাকাবাসীর অভিযোগ রয়েছে কথিত জাকারিয়া আহমদ স্বাধীন দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানা এলাকার বিভিন্ন মুচি বাড়ী থেকে চোলাই মদ খাওয়া, চোলাই মদের ভাট্টা থেকে চাঁদা আদায়, জুয়া আসর থেকে চাঁদা আদায়ের নামে মাসোয়ারা আদায়ের বিস্তর অভিযোগ রয়েছে।

এ ব্যাপারে মামলার তদন্তকারী অফিসার মো. জহিরুল ইসলাম তালুকদার, ঢাকাইয়া অনলাইন সাংবাদিক জাকারিয়া আহমদ স্বাধীন একজন প্রতারক এবং ঠকবাজ। সে তার আপন মামা মজুদ মিয়ার দুর্বলতার সুযোগে মজুদ মিয়ার ছেলে সেজে প্রতারণার মাধ্যমে টাকা আত্মসাৎ করে। মামলাটি তদন্তাধীন আছে।

দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কাজী মুক্তাদির হোসেন জাকারিয়া আহমদ স্বাধীনের আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করেন। 

এই বিভাগের অন্যান্য খবর