Opu Hasnat

আজ ১১ আগস্ট মঙ্গলবার ২০২০,

ব্রেকিং নিউজ

গোয়ালন্দে যুবককে মারপিট, চিকিৎসাধীন অবস্থায় ঢাকায় মৃত্যু রাজবাড়ী

গোয়ালন্দে যুবককে মারপিট, চিকিৎসাধীন অবস্থায় ঢাকায় মৃত্যু

রাজবাড়ী জেলার গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়ায় পরকীয়া প্রেমের সন্দেহে মোঃ শাহিন খান (৩৪) নামের এক যুবককে মারপিট করার পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় রবিবার দিবাগত রাতে ঢাকায় মৃত্যু হয়েছে। শাহিন খান গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের ছিদ্দিক কাজীর পাড়া গ্রামের মৃতঃ রহমান খানের ছেলে।

স্থানীয় ও পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, নিহত শাহিন খান স্থানীয় জামাল মোল্লার মেয়ের সাথে পরকীয়া প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে বলে সন্দেহ করে মেয়েটির পরিবার। এ নিয়ে  গত ২৯ জুন রাত সাড়ে ৯টায় শাহিন খানের সাথে মেয়েটির পরিবারের বাকবিতন্ডা হয়। তারই জেরে গত ৩০ জুন মঙ্গলবার দিবাগত রাতে শাহিন খানকে তার বাড়ী হতে ডেকে এনে বাড়ীর পাশে রাস্তার উপর জামাল মোল্লা (৫৫) ও তার দুই ছেলে আমানত মোল্লা (২০), শামিম মোল্লা (১৯) মারপিট করে। এতে শাহিন পাকা রাস্তার উপর পড়ে গিয়ে মাথায় আঘাতপ্রাপ্ত হয়। এসময় তার চিৎকারে বাড়ীর লোকজন এসে তাকে উদ্ধার করে বাড়ীতে নিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা করান।

এর তিন দিন পর গত ২ জুলাই শাহিনের শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে প্রথমে তাকে গোয়ালন্দ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। সেখান থেকে গুরুতর অবস্থায় তাকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ও পরে গত ১০ জুলাই শুক্রবার তাকে ঢাকা ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউরোসায়েন্স হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রবিবার রাত ৯ টার দিকে তার মৃত্যু হয়।

এদিকে মারামারি ওই ঘটনায় নিহত শাহিন খানের মামা ছোবাহান মোল্লা বাদী হয়ে গোয়ালন্দ ঘাট থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলার পর পুলিশ অভিযুক্ত তিনজনকে গ্রেফতার করেছে।

এ বিষয়ে গোয়ালন্দ ঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ আশিকুর রহমান জানান, ইতিপূর্বে মারামারি ঘটনায় যে মামলাটি রজু হয়েছে ওই মামলাই হত্যা মামলা হিসেবে গণ্য হবে। ইতিমধ্যে অভিযুক্তদের গ্রেফতার করা হয়েছে। নিহত সাহিনের মরদেহ ময়না তদন্ত শেষে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।