Opu Hasnat

আজ ১৪ আগস্ট শুক্রবার ২০২০,

ব্রেকিং নিউজ

বাজারে আসছে অপোর সাশ্রয়ী দামের স্মার্টফোন ‘এ১২’ তথ্য ও প্রযুক্তি

বাজারে আসছে অপোর সাশ্রয়ী দামের স্মার্টফোন ‘এ১২’

অনন্য সাধারণ মোবাইল ফটোগ্রাফি এবং শক্তিশালী কর্মক্ষমতায় চোখ ধাঁধানো সব স্মার্টফোন এনে বাংলাদেশে তরুণদের মাঝে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে অপো। ব্র্যান্ডের প্রতিটি স্মার্টফোনই তরুণ প্রজন্মের প্রশংসা অর্জন করেছে। এরই ধারাবাহিকতায় গ্লোবাল স্মার্টফোন ব্র্যান্ডটি বাংলাদেশের বাজারে নিয়ে এসেছে সাশ্রয়ী মূল্যে বিশাল স্টোরেজের নতুন স্মার্টফোন অপো এ১২।

দৈনন্দিন জীবনে স্মার্টফোন ব্যবহারকারীরা তাদের ফোনে অনেক অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহারের পাশাপাশি প্রিয় স্মৃতিগুলো ধরে রাখার জন্য প্রচুর ছবি এবং ভিডিও করে থাকেন। তাছাড়া প্রিয় গান সংরক্ষণ এবং অবসর সময়কে আনন্দময় করতে নানান ভিডিও ডাউনলোড একটি অভ্যাসে পরিণত হয়েছে। আর তাই স্মার্টফোন থেকে পরিপূর্ণ অভিজ্ঞতা পেতে একটি বড় স্টোরেজের চাহিদা তৈরি হয়েছে। এই বিষয়টি মাথায় রেখে অপো এ১২-এ রয়েছে ৬৪ গিগাবাইট ইন্টারনাল স্টোরেজ যা মাইক্রোএসডি কার্ড ব্যবহার করে সহজেই ২৫৬ গিগাবাইটে উন্নীত করা যাবে।

শুধুমাত্র বিশাল স্টোরেজই না, পারফরমেন্সের দিকে থেকেও চমক দেবে অপো এ১২। ফোনটিতে রয়েছে ৪ গিগাবাইট র‌্যাম এবং মিডিয়াটেকের ১২ ন্যানোমিটারের শক্তিশালী পি৩৫ চিপসেট। অক্টাকোর প্রসেসরের এ১২ সর্বোচ্চ ২.৩৫ গিগাহার্টজ গতিতে ডাটা প্রসেস করতে সক্ষম যা আপনাকে দেবে অসাধারণ গেমিং ও ভিউইং অভিজ্ঞতা।

শুরু থেকেই অপো স্মার্টফোনগুলো চমৎকার মোবাইল ফটোগ্রাফির জন্যে খ্যাতি অর্জন করেছে এবং এ সিরিজের নতুন স্মার্টফোনটিও এর ব্যতিক্রম নয়। ফোনটির পেছনে এআই ডুয়েল ক্যামেরায় রয়েছে ১৩ মেগাপিক্সেলের মূল সেন্সর, যা বিভিন্ন পরিস্থিতিতে চমৎকার সব ছবি উপকার দেবে। এর পাশাপাশি ২ মেগাপিক্সেলের ডেপথ সেন্সর উন্নত অ্যালগরিদমে সাবজেক্ট থেকে ব্যাকগ্রাউন্ডের মধ্যে দূরত্ব নির্ণয় করে ব্লার ব্যাকগ্রাউন্ডে নিখুঁত পোর্ট্রেট শট নিতে পারে। মূল ক্যামেরা ১০৮০ পিক্সেলে এবং সেকেন্ডে ৩০ ফ্রেমে ভিডিও রেকর্ড করতে সক্ষম। এছাড়াও ক্যামেরাটি হাই ডায়নামিক রেঞ্জ এবং প্যানারোমা সমর্থন করে। ৫ মেগাপিক্সেলের সেলফি ক্যামেরায় রয়েছে এফ/২.০ এর বড় অ্যাপারচার যা দিয়ে অন্ধকার পরিবেশেও অসাধারণ সব সেলফি তোলা যাবে। ফ্রন্ট শুটারে রয়েছে এইচডিআর সুবিধা যা ডিটেইলড সেলফি তুলতে পারবেন ব্যবহারকারীরা।

অপো এ১২-এ রয়েছে ৬.২২ ইঞ্চির বিশাল একটি ওয়াটারড্রপ স্ক্রিন। তৃতীয় জেনারেশনের কর্নিং গরিলা গ্লাসে সুরক্ষিত ডিসপ্লেতে আছে ব্লু লাইট শিল্ড, যা দীর্ঘক্ষণ ফোন ব্যবহারেও চোখকে সুরক্ষিত রাখবে। স্মার্টফোনটিতে রয়েছে ৪,২৩০ মিলিঅ্যাম্পিয়ারের ব্যাটারি যা নিশ্চিত করবে সারাদিনের ব্যাকআপ। চার্জ ফুরিয়ে যাওয়া নিয়েও ভাবতে হবে না আর।

উন্নত অ্যালগরিদমের নিরাপত্তায় অপো এ১২-এ ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর ও এআই ফেস আনলক এখন আগের থেকেও বেশি উন্নত এবং সুরক্ষিত। মাত্র ১৬৫ গ্রামের ফোনটি প্রস্থে ৮.৩ মিলিমিটার, ফলে এক হাত ব্যবহারের জন্যে চমৎকার।

স্মার্টফোনটির পেছনের আছে থ্রিডি ডায়মন্ড ব্লেজ ডিজাইন যা দেখে মনে হতে পারে ডায়মন্ড কেটে বসিয়ে দেয়া হয়েছে। মাত্র ১৩,৯৯০ টাকায় অপো এ১২ ফোনটি বাংলাদেশের বাজারে পাওয়া যাবে কালো ও নীল- এ দুটি রঙে। ৬ জুলাই, ২০২০ থেকে ফোনটি দেশজুড়ে অপোর সকল আউটলেট এবং অনলাইন প্ল্যাটফর্মে পাওয়া যাবে। সীমিত সংখ্যক গ্রাহক এই ফোনের সাথে পাবেন মাস্ক, হ্যান্ড স্যানিটাইজার ও গ্লাভসসহ একটি কেয়ার প্যাকেজ যা এই মহামারীতে নিজের এবং পরিবারের সুরক্ষা নিশ্চিত করবে।