Opu Hasnat

আজ ১১ আগস্ট মঙ্গলবার ২০২০,

ব্রেকিং নিউজ

পাংশায় দুর্ভোগ লাঘবে নিজ অর্থায়নে ব্রীজ সংস্কার করছেন মিতুল রাজবাড়ী

পাংশায় দুর্ভোগ লাঘবে নিজ অর্থায়নে ব্রীজ সংস্কার করছেন মিতুল

রাজবাড়ীর পাংশা- সেনগ্রাম সড়কের যশাই ইউনিয়নের লক্ষীপুর বিরু মন্ডলের ঘাটের ব্রীজটি দির্ঘ প্রায় দেড় বছর ধরে ভেঙ্গে রয়েছে, এতে করে উপজেলার বাহাদুরপুর, হাবাসপুর, যশাই ইউনিয়নের মানুষের যাতায়াতের চরম বিঘন্ন হচ্ছিল। সেনগ্রাম থেকে ঢাকাগামী বাস চলাচল ব্রীজ ভাঙ্গা থাকার কারনে বন্ধ রয়েছে দির্ঘদিন। সেই সাথে চরম ভাবে ব্যাহত হচ্ছিল ওই এলাকার মানুষের যাতায়াত। সম্প্রতি বিষয়টি স্থানীয় আওয়ামীলীগ, ছাত্রলীগ, যুবলীগের নেতাকর্মীরা রাজবাড়ী জেলা আ.লীগের অন্যতম সদস্য আশিক মাহমুদ মিতুলকে জানালে তিনি তাৎক্ষনিক ওই ব্রীজটি সংস্কার করার উদ্দ্যোগ গ্রহণ করেন  সেই সাথে তাৎক্ষনিক  মের্সাস জাফরিন এন্টারপ্রাইজ’র সত্বাধীকারী মোঃ মনোয়ার হোসেন জনিকে ব্রীজের সংস্কার করার সার্বিক দায়িত্ব প্রদান করেন । সেই আলোকে আশিক মাহমুদ মিতুল নিজ অর্থায়নে ওই ব্রীজটি সংস্কার করে দিচ্ছেন বুধবার বিকাল ৩টায় ওই ব্রীজের ঢালায় কাজের উদ্বোধন করেন আশিক মাহমুদ মিতুল। 

এ সময় উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শাহিদুল ইসলাম মারুফ, মনোয়ার হোসেন জনি, যশাই ইউনিয়ন আ.লীগের সভাপতি মোঃ আনোয়ার হোসেন, সাধারণ সম্পাদক, যশাই ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি মোঃ কামাল আল মামুনসহ স্থানীয় বিভিন্ন আ.লীগ যুবলীগ ছাত্রলীগের নেতা কর্মীগন উপস্থিত ছিলেন। জেলা আওয়ামীলীগের অন্যতম সদস্য ও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আশিক মাহমুদ মিতুল স্বনামধন্য কন্সটাকশন ফার্ম মের্সাস জাফরিন এন্টারপ্রাইজ’কে দিয়ে ব্রীজের সংস্কার কাজটি করাচ্ছেন। 

মের্সাস জাফরিন এন্টারপ্রাইজ’র সত্বাধীকারী  মোঃ মনোয়ার হোসেন জনির কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন এই এলাকার মানুষের জন দূর্ভোগের কথা চিন্তা করেই আশিক মাহমুদ মিতুল নিজ অর্থায়নে এই কাজ করাচ্ছেন আমি সার্বিক ভাবে এ কাজের দেখভাল করে আসছি মাত্র। আগামী ২১ দিন পর ব্রীজটি জনসাধারণের চলাচলের জন্য খুলে দেওয়া হবে। 

যশাই ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি মোঃ কামাল আল মামুন বলেন, আমরা এই সমস্যার কথা আশিক মাহমুদ মিতুল হাকিমকে এ ব্যাপারে জানালে তিনি তাৎক্ষনিক নিজ অর্থে এ কাজ করে দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছিলেন আজ এ কাজের ঢালাই কাজ চলছে আমরা এলাকা বাসির পক্ষ থেকে আশিক মাহমুদ মিতুল হাকিমকে ধন্যবাদ জানায়। 

স্থানীয় পথচারীরা জানান, আমরা দির্ঘদিন ধরে চরম অবহেলায় ছিলাম এই পথ দিয়ে যাতায়াত করতে পারতাম না এখন আমাদের এমপি সাহেবের ছেলে নিজের টাকায় এ কাজ করছে আমরা তার জন্য দোয়া করি সে যেন তার পিতার মত মানুষের সুখ দুঃখে পাশে থাকেন। যশাই ইউনিয়ন আ.লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা  মোঃ আনোয়ার হোসেন বলেন, এই এলাকা দিয়ে মানুষের চলাচল কষ্টসাধ্য ব্যাপার হয়ে দাড়িয়েছিল আমাদের প্রিয় নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ জিল্লুল হাকিম এমপি’র পুত্র জেলা আ.লীগের অন্যতম সদস্য আশিক মাহমুদ মিতুল নিজের টাকায় এ ব্রীজের সংস্কার করায় যশাই ইউনিয়ন বাসির পক্ষ থেকে তাকে অভিনন্দন জানাই। পাংশা-সেনগ্রাম সড়কে যাতায়াত করা মানুষের দির্ঘদিনের কষ্ঠ লাঘব এখন সময়ের ব্যাপার মাত্র আগামী ২১ দিনের মধ্যে পূনরায় ফিরে পারে চিরচেনা ব্যাস্ততম সড়কটি।