Opu Hasnat

আজ ৫ আগস্ট বুধবার ২০২০,

ব্রেকিং নিউজ

সুন্দরগঞ্জে গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু, স্বামী পলাতক গাইবান্ধা

সুন্দরগঞ্জে গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু, স্বামী পলাতক

এল.এন.শাহী, গাইবান্ধা থেকে : গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার হরিপুর ইউনিয়নের পাড়াসাদুয়া গ্রামে ছবিরন বেগম (৩০) নামে এক গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যুর পর থেকে পলাতক রয়েছেন তার স্বামী মধু মিয়া (৪০)।

স্থানীয়রা জানান, মঙ্গলবার বিকেলে বাড়ির পাশের একটি পাট ক্ষেতে পানিতে ভাসমান অবস্থায় ছবিরন বেগমের মৃতদেহ দেখে পুলিশে খবর দেয়া হয়েছে। ঘটনার পর থেকে তার স্বামী মধু মিয়া পলাতক রয়েছেন। ২ সন্তানের জননী ছবিরন বেগম পাড়াসাদুয়া গ্রামের শুকুর আলী-জাহেদা বেগম দম্পতির মেয়ে। সে ঢাকায় গার্মেন্টেসে চাকরি করাকালে ২০১৮ সালের ২০ ডিসেম্বর মধু মিয়ার সঙ্গে ২য় বিয়ে বন্ধনে আবদ্ধ হয়। মধু মিয়া জেলার ফুলছড়ি উপজেলার উদাখালী ইউনিয়নের হরিপুর গ্রামের ফুল মিয়া-মনোয়ারা বেগম দম্পতির ছেলে। মধু মিয়ার পূর্বের স্ত্রী ও সন্তান আছে। তিনি ছবিরনকে ২য় বিয়ে করার পর থেকে পাড়াসাদুয়া গ্রামের শ্বশুর বাড়িতে থাকতেন। তিনি পেশায় রাজমিস্ত্রী।

ইউপি সদস্য আবুল কালাম আজাদ জানান, বন্যার পানিতে বসতভিটা ডুবিয়ে যাওয়ায় ছবিরনের বাবা-মাসহ পাড়ার সকলেই পাড়াসাদুয়া নামক স্থানে তিস্তা নদীর বামতীর বাঁধের রাস্তায় আশ্রয় নিলেও স্ত্রীকে নিয়ে মধু মিয়া নিজ ঘরেই থাকতেন। মধু মিয়া-ছবিরনের শয়ন ঘরের ভিতরে কোমর পানি। তবুও তারা শয়ন ঘর ছাড়েননি। এরই এক পর্যায়ে বিকেলে তাদের কোন সারা-শব্দ না পাওয়ায় খোঁজ-খবর নিতে গেলে বাড়ির পাশের পাট ক্ষেতে ভাসমান অবস্থায় ছবিরনের মৃতদেহ দেখতে পেয়ে পুলিশে খবর দেয়া হয়েছে। ছবিরনের বাবা-মাসহ পরিবারবর্গের অভিযোগ তাকে হত্যা করে লাশ গুম করার চেষ্টা চালিয়ে স্বামী ফুল মিয়া পালিয়েছে।

থানা অফিসার ইনচার্জ আব্দুল্লাহিল জামান জানান, খবর পেয়ে পুলিশ গিলে লাশ উদ্ধার করেছে।