Opu Hasnat

আজ ৪ জুন বৃহস্পতিবার ২০২০,

গাইবান্ধায় ধান ঘরে তুলতে ব্যস্ত কৃষক কৃষি সংবাদগাইবান্ধা

গাইবান্ধায় ধান ঘরে তুলতে ব্যস্ত কৃষক

এল. এন. শাহী, গাইবান্ধা থেকে : গাইবান্ধায় চলতি মৌসুমে ইরি-বোরো ধানের ভালো ফলন হয়েছে। কৃষকগণ পাকা ধান কেটে ঘরে তুলতে ব্যস্ত সময় পার করছে। গাইবান্ধার সাত উপজেলায় চলতি মৌসুমে ধানের উৎপাদন লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ৮২ হাজার মেট্রিক টন। চলতি মৌসুমে গাইবান্ধার সাতটি উপজেলায় এক লাখ ২৮ হাজার হেক্টর জমিতে ধান চাষ করা হয়েছে। 

আবহাওয়া অনুকুলে থাকায় ধানের বাম্পার ফলন হয়েছে। বিঘা প্রতি প্রায় ২০ থেকে ২২ মণ ফলন হয়েছে। এখনো প্রায় ৭০ ভাগ ধান মাঠে রয়েছে। আবহাওয়ার বিরূপ প্রভাবের ফলে ধান ঘরে তুলতে না পারা পর্যন্ত দুশ্চিন্তায় রয়েছে কৃষকরা। ক্ষেতের ৮০ ভাগ ধান পাকা মাত্রই কাটছে কৃষকরা। কৃষি শ্রমিক আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, গত বছর প্রতি বিঘা ধান কাটতে খরচ হয়েছিল ৩ হাজার থেকে সাড়ে ৩ হাজার টাকা পর্যন্ত। এ বছর করোনার প্রভাবে স্থানীয় শ্রমিকরা বাড়িতে থাকায় পারিশ্রমিক কম। যা প্রতিবিঘা ১৮শত থেকে ২ হাজার টাকা। গাইবান্ধা কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগের উপ পরিচালক মাসুদুর রহমান বলেন চলতি মৌসুমে জেলায় এক লাখ ২৮ হাজার হেক্টর ধান চাষ হয়েছে। 

এ থেকে প্রায় সাড়ে ৮২ হাজার মেট্রিক টন ধান উৎপাদনের সম্ভাবনা রয়েছে। গাইবান্ধা জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক কর্মকর্তা জহুরুল হক বলেন, জেলায় সরকারিভাবে সরাসরি কৃষকদের নিকট থেকে বোরো ধান ও মিল মালিকদের নিকট থেকে চাল ক্রয় শুরু হয়েছে। 

এ বছরে কৃষকদের কাছ থেকে ১৭ হাজার ১৪২ মেট্রিক টন ধান ও মিল মালিকদের নিকট থেকে সিদ্ধ চাল ২৩ হাজার ৬৮৩ মেট্রিক টন এবং এক হাজার ৬২৮ মেট্রিক টন আতব চাল ক্রয় করা হবে।