Opu Hasnat

আজ ৩ জুন বুধবার ২০২০,

ব্রেকিং নিউজ

নড়াইলে প্রধানমন্ত্রীর নগদ অর্থ প্রদান তালিকা প্রনয়নে দূর্ণীতি, অনিয়ম ও স্বজনপ্রীতির অভিযোগ নড়াইল

নড়াইলে প্রধানমন্ত্রীর নগদ অর্থ প্রদান তালিকা প্রনয়নে দূর্ণীতি, অনিয়ম ও স্বজনপ্রীতির অভিযোগ

নড়াইল সদর উপজেলার কলোড়া ইউনিয়নের ৯ নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্যর বিরূদ্ধে প্রধানমন্ত্রীর নগদ অর্থ সহায়তা প্রদান কর্মসূচির তালিকা প্রনয়নে চরম দুর্ণীতি অনিয়ম ও স্বজনপ্রীতির অভিযোগ উঠেছে। 

রোববার (১৭ মে) সরজমিন গিয়ে জানা যায়, কলোড়া ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ড মেম্বর গুরুপদ কুন্ডু নগদ অর্থ প্রদানের তালিকায়  নিজ গ্রুপের বিত্তশালীদের নাম অন্তর্ভূক্ত করেছেন। এলাকায় হতদরিদ্র গরিবদের নাম বাদ  দিয়ে বিত্তবান ব্যক্তির নাম দেয়ায় এলাকায় ব্যাপক সমালোচনার ঝড় বইছে।  এছাড়া একই মোবাইল নাম্বর তালিকাভুক্ত একাধিক ব্যাক্তির নামের পাশে দেখা গেছে। করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ কমিটির সদস্য ও  ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি তপন বিশ্বাসের ন্যুনতম মতামত না নিয়ে খামখেয়ালী ভাবে এ তালিকা প্রনয়ন করা হয়েছে।  মুশুড়িয়াা গ্রামের হতদরিদ্র  দিনমুজুরী, ভূমিহীন সৌরভ মিত্র, অজিত বিশ্বাস, উৎপল রায় সহ অনেকেই মেম্বরের তৈরী করা তালিকায় স্থান পাননি। অখচ বিত্তবান বিভূতি সরকারের নাম রয়েছে তালিকায়। যার ছেলে একজন কৃষি অফিসার এবং  মেয়ে সরকারি চাকুরীজীবি। সম্পদশালী বিদুৎ সরকারের নাম রয়েছে তালিকায়। যার পরিবারে দুই জন চাকুরীজীবি। তাদের মত অনেক বিত্তবানের নাম রয়েছে। যাদের নামে বয়স্ক, বিধবা ভাতা ও ভিজিডি কার্ড রয়েছে সেই পরিবারেই কৌশল করে কার্ডধারীদের নামের পরিবর্তে অন্য সদস্যর নাম দেয়া হয়েছে। নিজ গ্রুপের ও স্বজনপ্রীতি করে দেয়া ব্যক্তিদের কয়েকজনের নামের পাশে ০১৩১২৪৯৭৫৪৮ নং মোবাইল থাকায় দুর্নীতির বিষয়টি অনেকটা স্পষ্ট হয়ে গেছে। এলাকার সচেতন মহল এই তালিকার সুষ্ঠ তদন্তপূর্বক ব্যবস্থ্যা গ্রহনের দাবি জানিয়েছেন। 

এ বিষয়ে মেম্বর গুরুপদ কুন্ডুর সাথে বার বার যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি। মহিলা মেম্বর ঝুনু মল্লিক বলেন,  এ নিয়ে লেখালেখির দরকার নেই। ইউপি চেয়ারম্যান আব্বাস আলী সর্দার বলেন, মেম্বরকে করোনা প্রতিরোধ কমিটির সাথে আলোচনা করে তালিকা তৈরি করতে বলা হয়েছে। যদি তিনি কমিটির কাউকে না জানিয়ে তালিকা করেন, আর দুর্নীতি অনিয়ম করেন, তাহলে সেটা গ্রহনযোগ্য হবে না।  

জেলা প্রশাসক আনজুমান আরা  বলেন, একই মোবাইল নম্বরে কোন অবস্থাতেই একাধিক ব্যক্তিকে নগদ অর্থ  সহায়তা প্রদান করা হবে না। কেউ এই অপচেষ্টাটি করলে তার বিরূদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে।