Opu Hasnat

আজ ৫ জুন শুক্রবার ২০২০,

স্যামসাং গ্যালাক্সি এস২০ সিরিজ, স্মার্টফোন ব্যবহারের চমকপ্রদ অভিজ্ঞতা তথ্য ও প্রযুক্তি

স্যামসাং গ্যালাক্সি এস২০ সিরিজ, স্মার্টফোন ব্যবহারের চমকপ্রদ অভিজ্ঞতা

বিশ্বকে দেখার নতুন অভিজ্ঞতায় দুর্দান্ত স্পেসিফিকেশন, অসাধারণ ডিসপ্লে, ক্যামেরার অত্যাধুনিক উদ্ভাবন ও যুগান্তকারী ডিজাইনের গ্যালাক্সি এস২০ সিরিজের এস২০+ ও এস২০ আল্ট্রা ডিভাইস দু’টি বাংলাদেশের বাজারে নিয়ে এসেছে স্যামসাং। প্রযুক্তিপ্রেমীদের মাঝে ব্যাপক সাড়া ফেলেছে স্যামসাংয়ের এই প্রিমিয়াম ডিভাইসগুলো। বিশেষ করে, ডিভাইসগুলোর গেমিং পারফরম্যান্স, ভিডিও স্ট্রিমিং, ক্যামেরা ও ডিসপ্লের প্রশংসায় পঞ্চমুখ ব্যবহারকারীরা। এই বলে, ডিভাইসগুলোর অন্যান্য ফিচারগুলোও কিন্তু পিছিয়ে নেই।  

বিগত কয়েক বছর ধরে গ্যালাক্সি সিরিজের ফ্ল্যাগশিপ ডিভাইসগুলোর ডিসপ্লে তৈরিতে নানা উদ্ভাবন নিয়ে আসছে স্যামসাং। গ্যালাক্সি এস২০+ ও এস২০ আল্ট্রা ডিভাইসগুলোর ডিসপ্লের ক্ষেত্রেও প্রতিষ্ঠানটি তাদের উদ্ভাবন যাত্রা ধরে রেখেছে। গ্যালাক্সি এস২০ সিরিজের ডিভাইসগুলোতে রয়েছে বড় আকারের উজ্জ্বল ও নান্দনিক ডিসপ্লে। স্যামসাং গ্যালাক্সি এস২০ সিরিজের ডিভাইসগুলোর নতুন সংযোজন ১২০ হার্টজ মোডের রিফ্রেশ রেট প্যানেল, যা সত্যিই অসাধারণ। এছাড়াও, স্যামসাং তাদের এস২০ সিরিজের ডিভাইগুলোতে ডিসপ্লের টাচ রেসপন্স রেট ২৪০ হার্টজে উন্নীত করেছে, যা ডিসপ্লের কর্মদক্ষতায় নতুন মাত্রা যোগ করেছে। ডিসপ্লে নিয়ে কাজ করা প্রতিষ্ঠান ডিসপ্লে মেট গ্যালাক্সি এস২০ আল্ট্রা ডিভাইসটির ডিসপ্লের খুঁটিনাটি মাইক্রোস্কোপ দিয়ে পরীক্ষা করে এর ডিসপ্লেকে এ+ গ্রেড দেয়। ডিভাইসটির ডিসপ্লে বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে ১২টি রেকর্ড ভেঙে দিয়েছে। স্যামসাং এক্সিনোস ৯৯০ আগের যে কোনো প্রসেসরের চেয়ে অনেক বেশি দ্রুতগতির। আর এর সাথে আর্ম মালি জি৭৭ এমপি১১ জিপিইউ গ্রাফিক্স প্রসেসিং ইউনিট থাকার কারণে এক্সট্রিম লেভেলের গেমিং পারফরমেন্স পাওয়া যাচ্ছে। 

ছবি তোলার ক্ষেত্রে নতুন ইতিহাস গড়ার লক্ষ্যে, স্যামসাং তাদের গ্যালাক্সি এস২০ সিরিজের ডিভাইসগুলোতে কৃত্তিম বুদ্ধিমত্তা (এআই) ভিত্তিক সম্পূর্ণ নতুন ক্যামেরা সিস্টেম নিয়ে এসেছে। এর পাশাপাশি, এই ডিভাইসগুলোতে রয়েছে বড় আকারের ইমেজ সেন্সর, যা ছবি তোলার ক্ষেত্রে ভিন্নমাত্রা যোগ করেছে। ডিভাইসগুলোর ক্যামেরার বিশেষ বৈশিষ্ট্য হচ্ছে এর জুমের ব্যবহার। যেমন: গ্যালাক্সি এস২০ আল্ট্রা ডিভাইসটি দিয়ে ১০০এক্স জুমে ছবি তোলা যায়। মনে করুন, আপনি কোথাও ভ্রমণে বেড়িয়েছেন। আপনি জানেন, আপনি যেখানে গিয়েছেন সেখান থেকে বেশ দূরবর্তী স্থানে একটি দর্শনীয় বস্তু আছে। আপনি চাইলেও সেখানে যেতে পারছেন না, তখনই মুন্সিয়ানা দেখাবে ডিভাইসটির ১০০এক্স জুম। এস২০ আল্ট্রা ডিভাইসটির ১০০এক্স জুম ব্যবহার করে আপনি দূরবর্তী স্থানে থাকা আপনার দৃষ্টিনন্দন বস্তুটিকে অনায়াসে ক্যাপচার করতে পারবেন। ডিভাইসগুলোর ১০এক্স পর্যন্ত হাইব্রিড অপটিক জুম দিয়ে, আপনি জুম ইন করে দৃশ্যবস্তুর ছবি তুলতে পারবেন, এতে ছবির গুণগত মান বজায় থাকবে। এছাড়াও, ডিভাইসগুলোর ৩০এক্স পর্যন্ত স্পেস জুম ব্যবহার করে আপনি সহজেই দূরবর্তী স্থানের দৃশ্যবস্তুর ছবি তুলতে পারবেন। ডিভাইসগুলো দিয়ে এইটকে আল্ট্রা এইচডি ভিডিও ধারণ করা যায়।  

গ্যালাক্সি এস২০ সিরিজের ডিভাইসগুলোর সাউন্ড কোয়ালিটি নিয়েও সন্তুষ্ট ব্যবহারকারীরা। এই ডিভাইসগুলোতে চারটি সাউন্ড থিম বাছাই করতে পারেন ব্যবহারকারীরা। এর মধ্যে রয়েছে গ্যালাক্সি, কাম, রেট্রো ও ফান। প্রত্যেকটি থিম রিংটোন, নোটিফিকেশন ও সিস্টেম সাউন্ড হিসেবে ব্যবহার করা যায়। 

গ্যালাক্সি এস২০ সিরিজের ডিভাইসগুলো ওয়ানইউআই ২.০ অপারেটিং সিস্টেম দ্বারা চালিত। তাই, গ্যালাক্সি এস২০ সিরিজের ডিভাইসগুলোতে সফটওয়্যার ব্যবহারের ক্ষেত্রে দুর্দান্ত অভিজ্ঞতা লাভ করছেন ব্যবহারকারীরা। ইনকামিং কল রিসিভ করা থেকে শুরু করে হোম স্ক্রিনে বিভিন্ন অ্যাপের আইকনে যাওয়ার ক্ষেত্রেও গ্যালাক্সি এস২০ সিরিজের ডিভাইসগুলোর পারফরমেন্স বেশ সন্তোষজনক। 

এছাড়া, গ্যালাক্সি এস২০+ ডিভাইসে রয়েছে ৮জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ। যা মাইক্রোএসডি কার্ডের মাধ্যমে বাড়ানো যায়। ডিভাইসটিতে রয়েছে ৪ হাজার ৫শ’ মিলিঅ্যাম্পিয়ার ব্যাটারি সুবিধা। অন্যদিকে, গ্যালাক্সি এস২০ আল্ট্রা ডিভাইসেও রয়েছে ১২৮ জিবি স্টোরেজ (মাইক্রোএসডি কার্ডের মাধ্যমে বাড়ানো যায়)। ডিভাইসটিতে রয়েছে ১২ জিবি র‌্যাম ও ৫,০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার ব্যাটারি সুবিধা। দু’টি ডিভাইসেই রয়েছে ২৫ ওয়াটের ফাস্ট চার্জিং সুবিধা।   

এই বিভাগের অন্যান্য খবর