Opu Hasnat

আজ ২৬ সেপ্টেম্বর বুধবার ২০১৮,

ব্রেকিং নিউজ

নড়াইলের বামনহাট উচ্চ বিদ্যালয়ের সভাপতি ও তার দুই সহযোগির নামে চাাঁদাবাজি মামলা নড়াইল

নড়াইলের বামনহাট উচ্চ বিদ্যালয়ের সভাপতি ও তার দুই সহযোগির নামে চাাঁদাবাজি মামলা

নড়াইল সদর উপজেলার বামনহাট উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বাদী হয়ে এ বিদ্যালয়ের সভাপতি ও বামানহাট গ্রামের সুশান্ত বিশ্বাস এবং তার দুই সহযোগির বিরূদ্ধে নড়াইল আমলী আদালতে চাঁদাবাজি মামলা করেছে।  রবিবার (১৮ অক্টোবর) বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক দীপক কুমার সাহা বাদী হয়ে এ মামলা দায়ের করেন। এ মামলার অপর দুই আসামি হলেন-নড়াইল সদর উপজেলার বামনহাট গ্রামের বিদুষ বিশ্বাস ও বাশিশ্বর বিশ্বাস । 

বিজ্ঞ বিচারক মামলাটি আমলে নিয়ে আগামী ৩০ নভেম্বরের মধ্যে নড়াইল সদর থানার ওসিকে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দিয়েছেন। বাদি ও মামলার বিবরনে জানা যায়, বিদ্যালয়ের সভাপতি সুশান্ত বিশ্বাস প্রধান শিক্ষক দীপক কুমার সাহাকে বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচনের সময় তার পক্ষে কাজ করে তাকে সভাপতি করার জন্য অনুরোধ জানায়। প্রধান শিক্ষক তার এ অনুরোধে রাজি না হওয়ায় সুশান্ত কুমার ক্ষুব্ধ হয়। 

নির্বাচনে বিজয়ী হওয়ার পর সুশান্ত বিশ্বাস ও তার সহযোগিরা প্রধান শিক্ষককে জানান, সভাপতি হওয়ার জন্য তার ৫ লাখ টাকা ব্যয় হয়েছে। ব্যয়িত এ অর্থ বাবদ সুশান্ত বিশ্বাস প্রধান শিক্ষকের নিকট ৫ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করেন। চাাঁদা না দেয়ায় তারা প্রধান শিক্ষককে হেনস্থা ও হয়রানি করে চলেছে। 

প্রধান শিক্ষক দীপক কুমার সাহা জানান, চাঁদা না দেয়ায় সভাপতি সুশান্ত বিশ্বাস তাকে সাময়িক বরখাস্ত সহ নানাভাবে হয়রানি করছে, তাই বাধ্য হয়ে তিনি আদালতের আশ্রয় নিয়েছেন। সভাপতি সুশান্ত কুমার বিশ্বাস এর সাথে মোবাইলে (তার মোবাইল নং-০১৭১৪৪৪১৭০৯) যোগাযোগ করলে তিনি মিটিংয়ে আছেন বলে মোবাইল কেটে দেন।