Opu Hasnat

আজ ২১ এপ্রিল শনিবার ২০১৮,

ব্রেকিং নিউজ

পিসিপি’র মিছিলে ছাত্রলীগের হামলা আহত-৫

রাঙামাটিতে প্রতিবাদকারী ছাত্রদের উপর ছাত্রলীগের হামলার নিন্দা খাগড়াছড়ি

রাঙামাটিতে প্রতিবাদকারী ছাত্রদের উপর ছাত্রলীগের হামলার নিন্দা

রাঙ্গামাটি সরকারী বিশ্ববিদ্যালয় কলেজে জুম্ম ছাত্র-ছাত্রীদের উপর ছাত্রলীগ কর্মীরা বহিরাগত সন্ত্রাসীদের সহযোগিতায় ষড়যন্ত্র মূলক ও পূর্ব পরিকল্পিত ভাবে সাম্প্রদায়িক হামলা চালায়। আজ ১৭ই অক্টোবর ২০১৫, রোজ শনিবার আনুমানিক দুপুর ১২:৩০ ঘটিকায় এই হামলায় অমর সিন্ধু চাকমা, কমেশ চাকমা, পুলক চাকমা, অপুতালুকদার, এলিন চাকমা প্রমুখ গুরুতর আহত হন।

ঘটনার সূত্রপাত থেকে জানা যায়, কলেজে প্রতি সপ্তাহে শনিবার বিভিন্ন ছাত্র সংগঠন গুলো কলেজে মিছিল ও সমাবেশ করে। প্রতি সপ্তাহের ন্যায় আজকেও পিসিপি মিছিল শুরু করলে যে স্থানে পিসিপি সমাবেশ করে 

সেটি ছাত্রলীগের কর্মীরা উদ্দেশ্য মূলক ভাবে দখল করে নেয়। তারপরেও অন্যত্র সমাবেশ করে পাহাড়ী ছাত্র পরিষদ। পরবর্তীতে পিসিপির সমাবেশ শেষ হওয়ার পর ছাত্রলীগের কর্মী সৌরভ ত্রিপুরা ও বহিরাগত ছাত্র শামসুজ্জামান বাপ্পি পিসিপি কর্মীদের সাথে অসৌজন্য মূলক আচরন করে। এতে পিসিপি কর্মীরা তার প্রতিবাদ করলে এক পর্যায়ে ছাত্রলীগ কর্মীরা জুম্ম ছাত্র-ছাত্রীদের উপর হামলা করে। 

ছাত্রলীগ কর্তৃক কলেজ প্রাঙ্গণে জুম্ম ছাত্র ছাত্রীদের উপর হামলা শুরু হওয়ার সাথে সাথে বহিরাগত সেটেলারও ছাত্রলীগের সাথে হামলায় অংশ গ্রহণ করে। তারা কলেজ গেইট ও ইউএনও অফিসের সামনে জুম্মদের উপর হামলা চালায়। তার মধ্যে তারা ইউএনও অফিসের সামনে চাকরীজীবী অপু তালুকদারকে সিএনজি থেকে নামিয়ে মারাত্মকভাবে আহত করে। তিনি বর্তমানে রাঙ্গামাটি সরকারী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। উদ্দেশ্য-প্রণোদিত ভাবে ছাত্রলীগের কর্মীরা কলেজ গেইট সংলগ্ন দোকান-পাট ভাংচুর ও লুটপাট এবং পাহাড়ী সাধারণ ছাত্র কমেশ চাকমার গাড়ি ও ভাংচুর করা হয়। সম্প্রতি রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শ্রেণি কার্যক্রম শুরু করার ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে পিসিপির চলমান জোরালো আন্দোলনকে ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করার হীন উদ্দেশ্যে পূর্ব পরিকল্পিত ভাবে বহিরাগত সন্ত্রাসীদের ছত্রছায়ায় ছাত্রলীগ কর্মীরা এ হামলা চালিয়েছে বলে পাহাড়ী ছাত্র পরিষদ মনে করে। বিনা উস্কানীতে উদ্দেশ্য-প্রণোদিত ভাবে ছাত্রলীগের এই হামলার জন্য পাহাড়ী ছাত্র পরিষদ তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিছে এবং হামলার সাথে জড়িত ছাত্রলীগ কর্মী ও বহিরাগত সেটেলারদের অচিরেই গ্রেফতার করে দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি প্রদানের দাবী জানিছে। পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ী ছাত্র পরিষদ সাধারন সম্পাদক জুয়েল চাকমা স্বাক্ষরিত প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

এদিকে ইউপিডিএফর সমর্থিত বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ(পিসিপি)-এর কেন্দ্রীয় সভাপতি থুইক্যচিং মারমা ও সাধারণ সম্পাদক রিটন চাকমা এক যুক্ত বিবৃতিতে আজ(১৭ অক্টোবর) শনিবার রাঙামাটি সরকারী কলেজ ক্যাম্পাসে প্রতিবাদকারী ছাত্রদের উপর ছাত্র লীগ কর্মীদের নির্বিচার হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন এবং এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে পাহাড়ি-বাঙালি দাঙ্গা বাঁধানোর ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে সবাইকে হুঁশিয়ার করে দিয়েছেন। বিবৃতিতে তারা উক্ত হামলাকে অগণতান্ত্রিক ও ফ্যাসিস্ট আখ্যায়িত করে বলেন, যে কোন সংগঠনের শান্তিপূর্ণভাবে প্রতিবাদ করার অধিকার রয়েছে।

আজকের ঘটনা ২০১২ সালের ২২সেপ্টেম্বর রাঙামাটিতে সংঘটিত সাম্প্রদায়িক দাঙ্গার কথা স্মরণ করিয়ে দেয় উল্লেখ করে নেতৃদ্বয় আরো বলেন, ক্যাম্পাস থেকে উক্ত ঘটনা শহরের অন্যত্র ছড়িয়ে দিয়ে তাকে সাম্প্রদায়িক দাঙ্গার রূপ দিতে অপু তালুকদার নামে এক সরকারী কর্মচারীকে অটোরিক্সা থেকে নামিয়ে মারধর করা হয়েছে। মাথায় গুরুতর আঘাতসহ তাকে রাঙামাটি সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

পিসিপি নেতৃবৃন্দ অবিলম্বে হামলাকারীদের গ্রেফতারপূর্বক দৃষ্টান্তমূলক শান্তি প্রদানের দাবি জানিয়ে পার্বত্য চট্টগ্রামে সভা সমাবেশের অধিকারসহ পূর্ণ গণতান্ত্রিক পরিবেশ সৃষ্টির জন্য সরকারের প্রতি আহŸান জানিয়েছেন। পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটি দপ্তর সম্পাদক বিপুল চাকমা স্বাক্ষরিত প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

এই বিভাগের অন্যান্য খবর