Opu Hasnat

আজ ২৬ মে শনিবার ২০১৮,

বান্দরবানে সেনাবাহিনীর সাথে সন্ত্রাসীদের ব্যাপক গুলি বিনিময়, অস্ত্র উদ্ধার বান্দরবান

বান্দরবানে সেনাবাহিনীর সাথে সন্ত্রাসীদের ব্যাপক গুলি বিনিময়, অস্ত্র উদ্ধার

বান্দরবানে মিয়ানমার সীমান্ত এলাকায় অভিযান চলাকালে সন্ত্রাসীদের সাথে সেনাবাহিনীর দফায় দফায় গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে। এসময় সন্ত্রাসীদের গোপন আস্তানা থেকে অস্ত্র, গুলি ও ওয়াকিটকিসহ বিপুল পরিমাণ সরঞ্জামাদি উদ্ধার করেছে সেনাবাহিনী। শুক্রবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে রুমা উপজেলার দুর্গম মিয়ানমার সীমান্ত এলাকা থেকে এসব সরঞ্জামাদি উদ্ধার করা হয়।

সেনাবাহিনী সূত্র জানায়, শুক্রবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রুমা উপজেলার দুর্গম মিয়ানমার সীমান্তবর্তী অঞ্চল দুর্গম এলাকায় অভিযান চালায় সেনাবাহিনী। এসময় সন্ত্রাসীরা সেনা সদস্যদের লক্ষ্য করে গুলি ছোঁড়ে। সেনাবাহিনীও পাল্টা গুলি ছুঁড়লে উভয়ের মধ্যে অন্তত দুইশ রাউন্ড গুলি বিনিময় হয়। এক পর্যায়ে অভিযানের মুখে টিকতে না পেরে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়। এসময় সন্ত্রাসীদের ফেলে যাওয়া একটি মার্ক-২ রাইফেল, দুইশ ২২ রাউন্ড তাজা গুলি, সাতটি রাইফেল ম্যাগাজিন, একটি এক্সপ্লোসিভ গ্রেনেড, একটি রাইফেল গ্রেনেড, একটি ওয়াকি-টকি সেটসহ অপহৃত এক পর্যটকের আইডি কার্ড উদ্ধার করা হয়।

সেনাবাহিনীর বান্দরবান রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার নকীব আহমেদ বলেন, বান্দরবানে শান্তি ও শৃঙ্খলা বজায় রাখার লক্ষ্যে সেনা রিজিয়ন সীমান্ত এলাকাসহ বিভিন্ন জায়গায় অভিযান পরিচালনা করে আসছে এবং ভবিষ্যতেও এ অভিযান অব্যাহত থাকবে।

প্রসঙ্গত, গত ৩ অক্টোবর শনিবার বিকালে রাঙামাটির বিলাইছড়ি উপজেলার বড়থলি ইউনিয়নে থেকে ঢাকার দুই পর্যটক ও স্থানীয় দুই গাইডসহ চারজনকে অস্ত্রের মুখে অপহরণ করে ভারত সীমান্তের এলাকায় নিয়ে যায় স্ত্রাসীরা।