Opu Hasnat

আজ ২০ জুন বুধবার ২০১৮,

বালিয়াকান্দি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁসের অভিযোগ শিক্ষারাজবাড়ী

বালিয়াকান্দি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁসের অভিযোগ

রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলা সদরে অবস্থিত ঐতিহ্যবাহী পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ে শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষাকে কেন্দ্র করে এলাকায় নানা প্রশ্নের সৃষ্টি হয়েছে। নিয়োগ পরীক্ষার পুর্বেই প্রশ্নপত্র ফাঁসের গুরুতর অভিযোগও ঘুরপাক খাচ্ছে। তবে ম্যানেজিং কমিটির মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ার ফলে এ নিয়োগ নিয়ে শুরু হয়েছে অনিশ্চয়তা। 

পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক পঙ্কজ কুমার কর জানান, বালিয়াকান্দি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক, সহকারী প্রধান শিক্ষক, গণিত, গ্রন্থাগারিক, নিম্নমান সহকারী পদে শিক্ষক নিয়োগের জন্য স্থানীয় ও জাতীয় দৈনিক পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়। গত ৮ অক্টোবর উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসে নিয়োগ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। প্রধান শিক্ষক পদে ১১জন, সহকারী প্রধান শিক্ষক পদে ৪জন, গণিত ১১জন, গ্রন্থাগারিক ৮জন ও নিম্নমান সহকারী পদে ৮জন পরীক্ষায় অংশ গ্রহন করেন। ফলাফল ঘোষনা করা হলেও স্কুলের সভাপতি ও উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান খোদেজা বেগমকে স্কুলে মিটিং ডাকার জন্য তার বাড়ীতে ৩ দফা পিয়ন পাঠালেও তাকে না পেয়ে ফিরে আসে। তবে এ কমিটির মেয়াদ ১৩ অক্টোবর শেষ হয়ে যাওয়ার ফলে এদেরকে নিয়োগ দেওয়া সম্ভব হচ্ছে না। নিয়মানুযায়ী কমিটির মেয়াদ শেষ হওয়ার ১ সপ্তাহের মধ্যে এডহক কমিটি গঠন করার বিধান রয়েছে। এডহক কমিটি গঠনের জন্য শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে চিঠি পাঠানো হয়েছে। তবে এডহক কমিটির নিয়োগ দেওয়ার কোন বিধান নেই বলেও প্রকাশ করেন।

নাম না প্রকাশের শর্তে কয়েকজন পরীক্ষার্থী অভিযোগ করে বলেন, নিয়োগ পরীক্ষার আগের রাতে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার আবুল কালাম আজাদ অর্থের বিনিময়ে প্রশ্নপত্র ফাঁস করে দেয়। ফলে নিয়োগ পরীক্ষা নিয়েও নানা প্রশ্ন উঠেছে। তবে স্কুল প্রাঙ্গনে নিয়োগ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা থাকলেও শিক্ষা অফিসে নিয়োগ নিয়েও প্রশ্ন উঠছে। 

এ নিয়োগকে কেন্দ্র করে বালিয়াকান্দি উপজেলাতে ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।